thereport24.com
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৩ আশ্বিন ১৪২৫,  ৭ মহররম ১৪৪০

 

ভিলিয়ার্সের পেছনে মুমিনুল

২০১৫ মে ০৯ ১৬:০৮:৩২
ভিলিয়ার্সের পেছনে মুমিনুল

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : প্রতি টেস্টে এক এক করে সব রেকর্ড নিজের করে নিচ্ছেন ক্রিকেটার মুমিনুল হক সৌরভ। পাকিস্তানের বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে খুব বেশি সৌরভ ছড়াতে না পারলেও টানা ১১ টেস্টে পঞ্চাশ কিংবা ততোধিক রান করে শচিন টেন্ডুলকার-এডরিচকে পেছনে ফেলেছেন তিনি। ওয়স্টে ইন্ডিজের কিংবদন্তি ক্রিকেটার ভিভ রিচার্ডসনের সঙ্গে একই অবস্থানে রয়েছেন বাংলাদেশের এই ক্রিকেটার।

এখন তার উপরে শুধু একজনই রয়েছেন, ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে একটি পঞ্চাশের বেশি স্কোর গড়তে পারলেই দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্সকে ছুঁয়ে ফেলবেন মুমিনুল। টেস্ট ক্রিকেটে টানা সর্বোচ্চ হাফসেঞ্চুরির রেকর্ড দক্ষিণ আফ্রিকার ভিলিয়ার্সের। ২০১২ সালের নভেম্বর থেকে ২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত টানা ১২ ম্যাচে হাফসেঞ্চুরি করছেন তিনি।

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে হাফসেঞ্চুরি করে টেন্ডুলকার-এডরিচের সঙ্গে নিজের নাম লিখিয়ে নিয়েছিলেন মুমিনুল। খুলনায় ওই ম্যাচে ৮০ রানের ইনিংস খেলেছিলেন তিনি। খুলনায় প্রথম টেস্টে হাফসেঞ্চুরি করে শচিন ও ইংল্যান্ডের জন এডরিচের পাশে বসেছিলেন মুমিনুল।

শনিবার মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টের চতুর্থ দিনে টানা একাদশ ম্যাচে হাফসেঞ্চুরি করেছেন মুমিনুল হক। ৬টি চারের সাহায্যে ৮৩ বলে হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করেছেন তিন। পাকিস্তানের বিপক্ষে এটা তার দ্বিতীয় হাফসেঞ্চুরি।

পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ হওয়া ঢাকা টেস্টটি মুমিনুলের ক্যারিয়ারের চতুর্দশ টেস্ট। একটি ম্যাচেই কেবল হাফসেঞ্চুরি পাননি। সেটা ছিল তার ক্যারিয়ারের তৃতীয় টেস্ট। হারারেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওই ম্যাচের দুই ইনিংসে ২৩ ও ২৯ রান করেছিলেন মুমিনুল। এর পর প্রতি ম্যাচেই হাফসেঞ্চুরি পেয়েছেন তিনি। এ ছাড়া মুমিনুলের আগের ১২টি পঞ্চাশ পার হওয়া ইনিংসের ৪টিই তিন অংক পেরিয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গল টেস্টে অভিষেক হয় মুমিনুল হকের। এই ১৪ ম্যাচে মুমিনুল ১৩৮০ রান সংগ্রহ করেছেন। ৪টি সেঞ্চুরির পাশাপাশি রয়েছে ৯টি হাফসেঞ্চুরি।


(দ্য রিপোর্ট/আরআই/সিজি/এজেড/মে ০৯, ২০১৫)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে