thereport24.com
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৩ আশ্বিন ১৪২৫,  ৭ মহররম ১৪৪০

দ্বিতীয় হলেও টানা সপ্তমের রেকর্ড

বিরোধী দলের সরব উপস্থিতিতে বাজেট পেশ

২০১৫ জুন ০৪ ১৯:১৬:০২
বিরোধী দলের সরব উপস্থিতিতে বাজেট পেশ

রানা হানিফ ও আমান উল্লাহ আমান, দ্য রিপোর্ট : বিরোধীদলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের উপস্থিতে প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টির প্রায় সকল সদস্যই অংশ নিচ্ছেন ২০১৫-১৬ অর্থ বছরের বাজেট অধিবেশনে।

দেশের ইতিহাসে দ্বিতীয়বারের মতো বিরোধী দলের সরব উপস্থিতিতে পেশ হচ্ছে জাতীয় বাজেট। চলতি (২০১৪-১৫) অর্থবছরের বাজেট অধিবেশনের প্রথম থেকে অংশ নেয় প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টি।

এদিকে, সর্বাধিক বাজেট পেশের দিক থেকে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত নবমবারের মতো বাজেট পেশ করে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকলেও টানা সপ্তমবারের মতো বাজেট পেশ করে রেকর্ড গড়লেন তিনি। এর আগে একজন অর্থমন্ত্রী টানা পাঁচবারের বেশি বাজেট পেশ করার সুযোগ পাননি।

জাতীয় সংসদে বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টায় ২০১৫-১৬ অর্থবছরের জন্য দুই লাখ ৯৫ হাজার ১০০ কোটি টাকার বাজেট উপস্থাপন শুরু করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। ঐকমত্যের সরকারের দ্বিতীয় এবং দেশের ৪৪তম এ বাজেট পেশ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সংসদ ভবন এলাকায় ছিল উৎসবের আমেজ। প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আলোচনা শেষে ৩০ জুন বাজেট পাস করার কথা রয়েছে।

বাজেটর পেশের সময় বিরোধী সদস্যরা টেবিল চাপড়ে ‘২০১৫-১৬’ অর্থবছরের উত্থাপিত বাজেটের সমর্থন জানান রওশন এরশাদের নেতৃত্বাধীন বিরোধী দল।

এদিকে, বাজেট পেশ উপলক্ষে কানায় কানায় পূর্ণ ছিল অধিবেশন কক্ষ। সংসদ গ্যালারি থেকে ভিআইপি লাউঞ্জে সর্বত্রই ছিল উপচে পড়া ভিড়।

সম্পূর্ণ ডিজিটাল পদ্ধতিতে নিজের জীবনের নবম বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। ৫ জানুয়ারির ‘বিতর্কিত’ নির্বাচনের পর এটি বর্তমান সরকারের দ্বিতীয় বাজেট।

বাজেট বক্তৃতার আগেই জাতীয় সংসদের কেবিনেট কক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে বাজেট অনুমোদন দেওয়া হয়। রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সংসদে নিজ কক্ষে বসে বাজেট উপস্থাপন প্রত্যক্ষ করেন। রাষ্ট্রপতিকে সংসদ ভবনে স্বাগত জানান সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী।

সংসদ কার্য-উপদেষ্টা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৪৫ ঘণ্টা আলোচনার পর ৩০ জুন ‘২০১৫-১৬’ অর্থবছরের বাজেট পাস হবে। বাজেট অধিবেশন চলবে ৯ জুলাই পর্যন্ত।

বাজেট অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীসহ সিনিয়র সদস্যদের প্রায় সকলেই অধিবেশনে অংশ নেন।

অন্যদিকে, ভিআইপি গ্যালারিতে উপস্থিত ছিলেন প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা মশিউর রহমান, এইচ টি ইমাম, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান, সেনাবাহিনীর প্রধান ইকবাল করিম ভূইয়া, বিমানবাহিনীর প্রধান এয়ার মার্শাল মোহাম্মদ এনামুল বারী, নৌবাহিনীর প্রধান ভাইস এডমিরাল মোহাম্মদ ফরিদ হাবিব প্রমুখ।

এ ছাড়া বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকরাও অধিবেশন কক্ষের নির্ধারিত চেয়ারে বসে বাজেট বক্তৃতা প্রত্যক্ষ করেন। তাদের মাঝে অর্থমন্ত্রীর ইংরেজিতে প্রিন্ট করা বাজেট বক্তৃতা সরবরাহ করা হয়।

প্রিয় পোশাকে প্রধানমন্ত্রী অর্থমন্ত্রী

বাজেট অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পেস্ট কালারের মোটা পাড়ের অফ হোয়াইট সিল্ক শাড়ি পরে অধিবেশন কক্ষে ঢোকার সময় তার পিছু পিছু আসেন অর্থমন্ত্রী। তার পরনে ছিল প্রিয় পোশাক ঘিয়া রঙের পাঞ্জারির উপর কালো মুজিব কোট। এ সময় অর্থমন্ত্রীর সম্বল ছিল একটি কালো সুটকেস। অর্থমন্ত্রীকে বেশ উচ্ছ্বসিত দেখাচ্ছিল।

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হলে অর্থমন্ত্রী বাজেট পেশের অনুমতি চান। পরে তিনি শারীরিক কারণে বসে বাজেট বক্তব্য পাঠ করার অনুমতি চাইলে স্পিকার তাকে বসেই বাজেট পেশের অনুমতি দেন।

বিরোধী দলের উপস্থিতি

নবম জাতীয় সংসদে মহাজোট সরকারের পাঁচটি বাজেট বিরোধী দল বর্জন করলেও এবারের চিত্র ছিল ভিন্ন। তবে ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের মাধ্যমে গঠিত দশম সংসদের চিত্র সম্পূর্ণ বিপরীত। রওশন এরশাদের নেতৃত্বাধীন বিরোধীদলীয় সদস্যরা দ্বিতীয়বারের মতো বাজেট উত্থাপনের সময় উপস্থিত রয়েছেন। এর আগে, ২০০৯-১০, ২০১০-১১, ২০১১-১২ ও ২০১২-১৩ অর্থবছরের বাজেট অধিবেশন বর্জন করে তৎকালীন বিরোধী দল বিএনপি। আর সর্বশেষ ২০১৩-১৪ অর্থবছরের বাজেট উত্থাপনের আগে বিরোধী দল অধিবেশনে যোগ দিলেও বাজেট উত্থাপনের দিন তারা অধিবেশন কক্ষে যাননি। তৎকালীন বিরোধী দলের নেতা খালেদা জিয়া কার্যালয়ে বসে বাজেট বক্তৃতা শোনেন।

মুহিতের নবম বাজেট

অর্থমন্ত্রী হিসেবে আবুল মাল আবদুল মুহিত নবমবারের মতো বাজেট প্রস্তাব পেশ করছেন। আওয়ামী লীগ সরকারের টানা দ্বিতীয় মেয়াদের দ্বিতীয় বাজেট এটি। বর্তমান অর্থমন্ত্রী এর আগে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের ২০১৪-১৫, ২০১৩-১৪, ২০১২-২০১৩, ২০১১-২০১২, ২০১০-২০১১ ও ২০০৯-২০১০ এবং হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টির সরকারের আমলে ১৯৮২-৮৩ ও ১৯৮৩-৮৪ অর্থবছরের দু’টি বাজেট পেশ করেছিলেন।

এদিকে, অবস্থানের দিক থেকে দ্বিতীয় হলেও টানা দুই মেয়াদে মোট সাতবার বাজেট পেশ করে নতুন রেকর্ড গড়েছেন তিনি। বাজেট বক্তব্যের সময় অর্থমন্ত্রী তাকে সুযোগ করে দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান।

(দ্য রিপোর্ট/আরএইচ/এমএআর/সা/জুন ০৪, ২০১৫)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

অর্থ ও বাণিজ্য এর সর্বশেষ খবর

অর্থ ও বাণিজ্য - এর সব খবর



রে