thereport24.com
ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫,  ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

নাসিরে মুগ্ধ মাশরাফির ভিন্ন ছক

২০১৫ জুন ২২ ২০:০৭:৫৮
নাসিরে মুগ্ধ মাশরাফির ভিন্ন ছক

রবিউল ইসলাম, দ্য রিপোর্ট : নায়ক মুস্তাফিজুর রহমানের নামের পাশে ৬; অথচ ২-এ অবশ্যই পার্শ্বনায়ক নায়ক নাসির হোসেন। দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে ধুঁকতে থাকা ভারতকে ধাওয়ান-ধোনি যুগল যখন খাদের কিনারা থেকে টেনে তুলতে ব্যস্ত। তখনই অকেশনাল নাসিরের জোড়া আঘাত। প্রথমজন বিপদজ্জনক হয়ে ওঠার আগেই বিরাট কোহলি। আর পরের জন উইকেটে পুরো জমে যাওয়া ধাওয়ান (৫৩)। প্রথম ওভারে মুস্তাফিজে রোহিত ফিরে যাওয়ার পর ভারত কিন্তু ওই জুটিতেই বাঁধতে ছিল বুক।

সোমবার আনন্দমুখর ছুটিতে ক্রিকেটাররা। বেশিরভাগই ক্রিকেটারই সময় কাটাচ্ছেন হোটেলে। তবে ঢাকার যারা তারা বাড়িতে ইফতার করতে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছেন। কেউ কেউ আবার এতি-উচি ঘুরে বেড়িয়েছেন। যেমন গেলেন নাসির-সানিরা। দুপুরের বের হওয়ার উদ্দেশ্য ব্যক্তিগত কাজ।

ভারতের বিপক্ষে হঠাৎ পরিকল্পনা; নাকি আগ থেকেই বোলিং আক্রমণের পরিকল্পনায় ছিলেন নাসির হোসেন। এই নিয়ে অবশ্য রবিবার রাতেই সংবাদ মাধ্যমেকে পরিষ্কার করেছেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। সোমবার আবার এ প্রসঙ্গে নাসির বলেছেন, ‘আমি আসলে ম্যাচের আগেই জানতাম আমাকে ১০ ওভার বোলিং করতে হবে। তেমন পরিকল্পনা নিয়েই আমি অনুশীলন করেছি। চেষ্টা করেছি নিজেরে সেরাটা দেওয়ার।’

সোমবার হোটেল লবিতে অল্প স্বল্প কথা বলেছেন ফিনিশার খ্যাত নাসির হোসেন। তিনি দুপুর দুইটার দিকে হোটেল থেকে বের হওয়ার পথে কথা বলেছেন সাংবাদিকদের সঙ্গে।

নাসিরের জোড়া আঘাতের পর পরই ভেঙে গিয়েছে ভারতের ব্যাটিং লাইনআপ। এরপর ব্যাটসম্যানের নিয়ন্ত্রণ তুলে নিয়েছেন বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। রবিবার সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি মুস্তাফিজুরের পাশাপাশি নাসিরের বোলিংয়েরও ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

নাসিরকে নিয়ে ভারতের বিপক্ষে আলাদা ছক ছিল মাশরাফির। ঘাটাঘাটি করেছেন ভারতের গত একবছরের পরিসংখ্যান। সেখান দেখে জেনেছেন ভারত অফস্পিনে বেজায় দুর্বল। সেই চিন্তা থেকেই মূলত নাসিরকে খেলানো এবং ১০ ওভার বোলিং করানোর। মাশরাফি বলেছেন, ‘সিরিজের আগে আমি পরিসংখ্যান দেখেছি, গত এক বছরের বেশি সময় ওরা অফস্পিনে খুব ভুগছে। সবচেয়ে বেশি উইকেট হারিয়েছে। সেই জায়গা থেকে আমি ঠিক করি নাসিরকে দিয়ে বল করানোর। আমি মনে করি, আমাদের দলের অন্যতম সেরা অফস্পিনার নাসির। অনেকে ওকে অনিয়মিত স্পিনার হিসেবে মনে করতে পারে। তবে আমি মনে করি বাংলাদেশ দলের অন্যতম সেরা অফস্পিনার নাসির, বিশেষ করে ওয়ানডের জন্য।’ মাশরাফির এমন কথার পরও নাসির শুধু হাসলেন। মুখে কিছুই বললেন না। কেন কথা নেই- জানালেন আমাদের কথা বলতে বারণ।

বিগত কিছুদিন ধরে খুব বেশি ব্যাটিং করার সুযোগ পাচ্ছেন না নাসির হোসেন। বদলে যাওয়া বাংলাদেশের এটাই নতুন উপখ্যান। মাশরাফি তাইতো নাসিরের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে বোলিংয়ের দায়িত্ব তুলে দিয়েছেন। রবিবার মাশরাফি জানিয়েছেন, ‘নাসির ২০-৩০ বলের বেশি খেলার সুযোগ পাচ্ছে না। তাতে করে ব্যাটিং খুব বেশি অবদান রাখতে পারছিল না। যদি বোলিংয়ে অবদান রাখে সেক্ষত্রে ওর আত্মবিশ্বাসটা ভাল থাকবে। কারণ প্রয়োজন হলে যেভাবে ইচ্ছে সেভাবে নাসিরকে ব্যবহার করা যাবে।’

আর নাসির বলেছেন, ‘এটাইতো ভাল। একটা দিয়ে অন্য একটা পুষিয়ে নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছি। তাই বোলিংটাই মনোযোগ দিয়ে করছি। বোলিং নিয়ে তেমন কোনো পরিকল্পনা নেই। তারপরও চেষ্টা করছি ভাল কিছু করার। তবে উইকেট যে পেতেই হবে এমন কোনো কথা নেই।’

(দ্য রিপোর্ট/আরআই/এএস/আরকে/জুন ২২, ২০১৫)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর