thereport24.com
ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ মার্চ ২০১৭, ৯ চৈত্র ১৪২৩,  ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৩৮

বড় জয়ে সিরিজ পাকিস্তানের

২০১৫ অক্টোবর ০৫ ২০:৫৫:১৭
বড় জয়ে সিরিজ পাকিস্তানের

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : বড় জয়ের সঙ্গে ওয়ানডে সিরিজও জয় করেছে পাকিস্তান। সোমবার সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে তারা এক বিলালেই উড়িয়ে-মুড়িয়ে দিয়েছে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের সব প্রতিরোধ। আগে ব্যাটিং করতে নামা স্বাগতিকদের দেওয়া ১৬২ রানের টার্গেট মাত্র ৩ উইকেট হারিয়েই ছুঁয়ে ফেলেছে অতিথিরা।

বিলালের স্পিন কাণ্ড শুরু হয়েছে প্রথম ইনিংসে; নিয়েছেন ৫ উইকেট। ফের ব্যাট হাতেও ওপেনিংয়ে নেমে সেরা স্কোরারও তিনি। বিলাল করেছেন ৩৮ রান। অবশ্য তার সমান রান আসাদের ব্যাটেও (৩৮*)। কিন্তু বল বিবেচনায় এগিয়ে বিলাল। এ ছাড়া শোয়েব ৩৪*, শেহজাদ ৩২ এবং হাফিজ ১৩ রান তুলেছেন। ৩৪ ওভার শেষেই জয় নিশ্চিত করেছেন দ্বিতীয় ম্যাচে ৪ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস করা শোয়েব মালিক ও আসাদ জুটি।

সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে নবীনতম বিলাল আসিফ স্পিন জাদুতে ৫ উইকেট নিয়ে একাই ধসিয়ে দিয়েছেন স্বাগতিকদের। তাতে জিম্বাবুয়ের ব্যাটিং লাইনআপের আর কিইবা থাকতে পারে। স্পিনে লণ্ডভণ্ড জিম্বাবুয়ে শেষমেশ অলআউট হয়েছে ১৬১ রানে। অথচ দুর্দান্ত শুরু করেছিল স্বাগতিকদের ২ ওপেনার। নির্বিঘ্নে বিনা উইকেটে ৮৯ রান তোলা জিম্বাবুয়ে যখন তেড়েফুড়ে ম্যাচটিতে ফাইনালের আমেজ এনে দিচ্ছিল; ঠিক সেখানে দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে খেলতে নেমে ভেল্কি দেখিয়েছেন বিলাল। শুধু যে বোলার তাও নন; তিনি রীতিমতো একজন অলরাউন্ডার। বোলার বিলাল ব্যাটেও দস্তুর পরীক্ষা দিয়েছেন। সেখানেও পাস।

বেহাল জিম্বাবুয়ের হয়ে সর্বোচ্চ ৬৭ রান করেছেন মুতুম্বামি। ওপেনার চিবাবার ব্যাটে ৪৮ রানের পরে লুক জংউইর ব্যাটে ১৬ রান। বিলালের এমন ধ্বংসযজ্ঞে আটকে পড়া জিম্বাবুয়ে পথের দিশাই খুঁজে পায়নি। মাত্র ২৫ রান দিয়ে ৫ উইকেট পেয়েছেন বিলাল। তার মতোই আরেক নতুন বোলার ইমাদ ওয়াসিম নিয়েছেন ৩ উইকেট। মোহাম্মদ ইরফান এবং শোয়েব মালিকের ঝুলিতে একটি করে উইকেট।

অলরাউন্ডার বিলালের ম্যান অব দ্য ম্যাচ নিয়ে একটুও সংশয় ছিল না। ঠিক যেমনটি ছিল না শোয়েব মালিকের ক্ষেত্রে ম্যান অব দ্য সিরিজ হওয়া নিয়ে। ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে তার ব্যাটে ১৬১ রান। এর মধ্যে ২ ম্যাচেই অপরাজিত ছিলেন। সঙ্গে বোলার হিসেবে ৪ উইকেট। প্রথম ম্যাচে হারা জিম্বাবুয়ে দ্বিতীয় ম্যাচে বিশেষ ডি/এল কৃপায় জয় পেয়েছিল। তাই শেষ ম্যাচটি অঘোষিত ফাইনালে পরিণত হয়েছিল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

জিম্বাবুয়ে : ১৬১/১০, ওভার ৩৮.৫ (মুতাম্বামি ৬৭, চিবাবা ৪৮; বিলাল ৫/২৫, ইমাদ ৩/৩৬)

পাকিস্তান : ১৬২/৩, ওভার ৩৪ (বিলাল ৩৮, আসাদ ৩৮*, মালিক ৩৪*; পানিয়াঙ্গারা ১/২২)

ফল : পাকিস্তান ৭ উইকেটে জয়ী

সিরিজ : তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে পাকিস্তান ২-১ ব্যবধানে জয়ী

ম্যাচ সেরা : বিলাল আসিফ (পাকিস্তান)

সিরিজ সেরা : শোয়েব মালিক (পাকিস্তান)

(দ্য রিপোর্ট/এএস/জেডটি/আরকে/অক্টোবর ০৫, ২০১৫)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে