thereport24.com
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৭, ১২ বৈশাখ ১৪২৪,  ২৭ রজব ১৪৩৮

লিটনপত্নীর ওপর ক্ষুব্ধ আ’লীগ

২০১৫ অক্টোবর ০৬ ১২:০৮:৩১
লিটনপত্নীর ওপর ক্ষুব্ধ আ’লীগ

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : শিশুর ওপর গুলিবর্ষণকারী গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সংসদ মো. মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের স্ত্রীর ওপর বেশ ক্ষুব্ধ স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

তাদের অভিযোগ, লিটন ও তার স্ত্রীর কর্মকাণ্ডে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে। পলাতক এই এমপি ও তার স্ত্রীকে গ্রেফতার করে দল থেকে বহিষ্কারের দাবিও জানিয়েছেন তারা।

সুন্দরগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাসুদুল ইসলাম চঞ্চল দ্য রিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, ২০০০ সালে রাজনীতিতে আসেন লিটন। এরপর থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত এলাকায় আওয়ামী লীগের পক্ষে ঐক্যবদ্ধভাবে জামায়াত-শিবিরের কোনো কর্মসূচি প্রতিহত করা সম্ভব হয়নি।

পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাজেদুল ইসলাম দ্য রিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, লিটনের স্ত্রী স্মৃতির আপন চার ভাই ও চাচাতো দুই ভাই কাবিখা, কাবিটা, টিআর, এডিবি ও জেলা পরিষদের অর্থ বণ্টনসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ত। এসব কারণে সুন্দরগঞ্জে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের ত্যাগী নেতাকর্মীরা কাজ করার কোনো সুযোগই পান না।

সুন্দরগঞ্জ উপজেলার স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি গোলাম কবির মুকুল দ্য রিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, লিটনের স্ত্রী ও শ্বশুরবাড়ির সবাই বিশেষ করে শ্যালকরা জামায়াত-শিবিরের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে তার স্ত্রী স্মৃতিও তাদের গোপনে মদদ দিয়ে আসছেন। এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর লিটন সহকারী একান্ত সচিব (এপিএস) হিসেবে তার স্ত্রী স্মৃতিকে নিয়োগ দেন।

স্মৃতি এই দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকেই এমপির পক্ষে দলের সব কর্মকাণ্ডে নিজের নিয়ন্ত্রণ দাপটের সঙ্গে প্রতিষ্ঠা করতে শুরু করেন বলে অভিযোগ আওয়ামী লীগের ওই নেতা।

এমপি লিটনের গুলিতে শুক্রবার ভোরে সৌরভ মিয়া (৯) গুরুতর আহত হয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে ভর্তি করা হয় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। দহবন্দ ইউনিয়নের গোপালচরণ গ্রামের সাজু মিয়ার ছেলে সৌরভ গোপালচরণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র।

লিটন-স্মৃতি পলাতক

শিশু সৌরভকে গুলি করার পর থেকেই লিটন ও তার স্ত্রী পলাতক রয়েছেন।

সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের সাহাবাজ গ্রামে এমপি লিটনের দোতলা বাড়িতে মঙ্গলবার সকালে তালা ঝুলতে দেখা গেছে। বাড়ির উঠানে অরক্ষিত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা গেছে লাল রংয়ের একটি পাজেরো জিপ। ওই জিপ থেকেই লিটন শিশু সৌরভকে গুলি চালান বলে অভিযোগ উঠেছে।

এদিকে, ঘটনার পাঁচ দিন পরও এমপি লিটনকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। ফলে সুন্দরগঞ্জ উপজেলার রাজনৈতিক ও সুশীল সমাজসহ এলাকার সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

লিটনকে গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন ও অবরোধ কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছেন এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইসরাইল হোসেন দ্য রিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, এমপি লিটনের অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হতে গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। ইতোমধ্যে কয়েকটি টিম মাঠে কাজ করছে। সন্ধান পেলেই যেকোনো মুহূর্তে তাকে গ্রেফতার করা হবে।

আতঙ্কে সৌরভের পরিবার

সৌরভকে গুলি করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে এমপি লিটনকে একমাত্র আসামি করে শনিবার রাতে সুন্দরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন সৌরভের বাবা সাজু মিয়া। মামলা করার পর থেকে স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে নিরাপত্তহীনতায় ভুগছেন বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।

সাজু মিয়া অভিযোগ করেন, ঘটনার পর থেকে এমপি লিটনের পক্ষে বেশ কয়েকজন মামলা না করার জন্য হুমকি দিয়েছেন। মামলার পর সরকারি দলের লোকজনও হুমকি দিচ্ছে। ফলে পরিবার নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় আছি।

এ জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

(দ্য রিপোর্ট/কেএন/এএসটি/এনআই/অক্টোবর ০৬, ২০১৫)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর



রে