thereport24.com
ঢাকা, রবিবার, ২৫ জুন ২০১৭, ১১ আষাঢ় ১৪২৪,  ২৯ রমজান ১৪৩৮

মানবতাবিরোধী অপরাধে নোয়াখালীর ৩ জন কারাগারে

২০১৫ অক্টোবর ০৬ ১৪:১৩:৫১
মানবতাবিরোধী অপরাধে নোয়াখালীর ৩ জন কারাগারে

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় নোয়াখালী জেলার সুধারামের তিন জনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

মঙ্গলবার সকালে গ্রেফতার ওই তিন জনকে আন্তর্জতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হয়। পরে ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

তারা হলেন— আমীর আহম্মেদ ওরফে রাজাকার আমীর আলী, মো. ইউসুফ ও মো. জয়নাল আবদিন।

আগামী ১৪ অক্টোবর এ মামলার আনুষ্ঠানিক অভিযোগ আমলে নেওয়ার বিষয়ে শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

এর আগে সোমবার মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগেনোয়াখালীর পাঁচ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন ট্রাইব্যুনাল।

রাষ্ট্রপক্ষের এক আবেদনের প্রেক্ষিতে সোমবার ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এ আদেশ দেন।

যাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে তারা হলেন— আমীর আহম্মেদ ওরফে আমীর আলী, আবুল কালাম ওরফে একেএম মনসুর, মো. ইউসুফ, মো. জয়নাল আবদীন ও মো. আব্দুল কুদ্দুস।

এর আগে পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ (ফরমাল চার্জ) দাখিল করে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেন প্রসিকিউটর জাহিদ ইমাম। এ সব আসামির বিরুদ্ধে ৭১ এর মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে নোয়াখালীর সুধারাম থানায় একশ’ ১১ জনকে গণহত্যাসহ তিনটি অভিযোগ আনা হয়।

প্রসিকিউটর জাহিদ ইমাম সাংবাদিকদের বলেন, গত বছরের ১৬ নভেম্বর আসামিদের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়ে গত ৩১ আগস্ট শেষ হয়। ওই দিনই তদন্তের চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রসিকিউশনের কাছে জমা দেন তদন্ত কর্মকর্তা।

আসামিদের বিরুদ্ধে আনীতযত অভিযোগ

প্রথম অভিযোগ : একাত্তরের ১৫ জুন নোয়াখালীর সুধারামে ৪১ জনসহ শতাধিক ব্যক্তিকে হত্যা-গণহত্যায় নেতৃত্ব দেন এই পাঁচ আসামি।

দ্বিতীয় অভিযোগ : একাত্তরের ১৩ সেপ্টেম্বর ভোর সাড়ে পাঁচটা থেকে সাড়ে সাতটা পর্যন্ত হত্যা-গণহত্যায় নেতৃত্ব দেন আমীর আহম্মেদ ওরফে রাজাকার আমীর আলী, আবুল কালাম ওরফে এ কে এম মনসুর ও মো. জয়নাল আবদিন।

তৃতীয় অভিযোগ : একাত্তরের ১৩ সেপ্টেম্বর ভোর সাড়ে ছয়টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত ৯ জনকে হত্যা-গণহত্যায় নেতৃত্ব দেন আমির আহম্মেদ ওরফে রাজাকার আমীর আলী, আবুল কালাম ওরফে এ কে এম মনসুর ও মো. ইউসুফ।

তদন্ত সংস্থার প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, আমীর আহম্মেদ ওরফে রাজাকার আমীর আলী ও আবুল কালাম ওরফে এ কে এম মনসুর আনীত সব অপরাধের সঙ্গে জড়িত ছিলেন বলে ফর্মাল চার্জে বলা হয়। মো. ইউসুফ ও মো. জয়নাল আবদিন দুটি এবং মো. আব্দুল কুদ্দুস একটি ঘটনায় জড়িত ছিলেন।

(দ্য রিপোর্ট/এমএইচ/একেএস/এইচ/অক্টোবর ০৬, ২০১৫)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

অপরাধ ও আইন এর সর্বশেষ খবর

অপরাধ ও আইন - এর সব খবর



রে