thereport24.com
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫,  ১৪ মহররম ১৪৪০

‘স্বাবলম্বী না হলে নারীর প্রতি সহিংসতা কমবে না’

২০১৬ এপ্রিল ৩০ ২১:১৭:১৩
‘স্বাবলম্বী না হলে নারীর প্রতি সহিংসতা কমবে না’

খুলনা ব্যুরো : স্বাবলম্বী না হলে নারীর প্রতি সহিংসতা কমবে না বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি জিনাত আরা।

খুলনায় ‘নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে বিচার প্রাপ্তির ক্ষেত্র বিনির্মাণ’ শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ইউকেএইড-এর সহায়তায় বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা, অ্যাডোর এবং মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন যৌথভাবে এ সভার আয়োজন করে।

মেয়েদেরকে শিক্ষিত ও স্বাবলম্বী করতে অভিভাবকসহ সমাজকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

পুলিশ ও বিচারকদের করণীয় প্রসঙ্গে জিনাত আরা বলেন, ‘পুলিশ বিভাগ ও বিচারকদের জনগণের আস্থা অর্জনে আরও তৎপর হতে হবে। মিথ্যা মামলা যাতে না হয় সেদিকে পুলিশ বিভাগ ও আইনজীবীদের সতর্ক থাকতে হবে। পাশাপাশি একজন প্রকৃত ভিকটিম মামলা নিয়ে থানায় আসলে অযথা হয়রানি না করে তাকে সব ধরনের সহায়তা করতে হবে।’

বিচারকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘প্রতিটি মামলার পারিপার্শ্বিক অবস্থা বিচার করে সাজা প্রদান করতে হবে। বাদী ও বিবাদী সকলের ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে। মামলার সাক্ষীদের সাক্ষ্যগ্রহণে আরও আন্তরিক হতে হবে। সাক্ষী উপস্থিত থাকলে প্রয়োজনে অফিস সময়ের পরেও সাক্ষ্যগ্রহণ করতে হবে।’

সভায় বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার মহাসচিব অ্যাডভোকেট জাহানারা বেগম সভাপতিত্ব করেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন খুলনা সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ বেগম জেসমিন আনোয়ার, মহানগর দায়রা জজ অরূপ কুমার গোস্বামী, বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আবদুর রব হাওলাদার এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. রবিউল ইসলাম।

অংশগ্রহণকারী বক্তারা পারিবারিক আদালতকে আরও শক্তিশালী, অপরাধের প্রকৃত কারণ চিহ্নিতকরণ, দ্রুততার সঙ্গে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলাসমূহ নিষ্পত্তির পাশাপাশির অন্য মামলার মতো নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা সরাসরি আমলযোগ্য করার বিধান প্রবর্তনের দাবি জানান। একইসঙ্গে তারা একাধিক ট্রাইব্যুনাল গঠন, আপদকালীন ব্যবস্থা হিসেবে অন্য কোর্টে মামলা স্থানান্তর এবং প্রতিটি বিভাগীয় শহরে ডিএনএ টেস্টের ব্যবস্থা করার ওপরও গুরুত্বারোপ করেন।

(দ্য রিপোর্ট/জেএস/এপি/সা/এপ্রিল ৩০, ২০১৬)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর



রে