thereport24.com
ঢাকা, সোমবার, ২৭ মার্চ ২০১৭, ১২ চৈত্র ১৪২৩,  ২৭ জমাদিউস সানি ১৪৩৮

‘নটমণ্ডপে অভিনয় আমার জীবনের সেরা মুহুর্ত’

২০১৬ নভেম্বর ২৮ ১৫:৪৩:১৭
‘নটমণ্ডপে অভিনয় আমার জীবনের সেরা মুহুর্ত’

পাভেল রহমান, দ্য রিপোর্ট : অভিনয় জীবনে এমন মুহূর্ত কম সময়ই আসে। যখন প্রত্যাশাকে ছাপিয়ে যায় প্রাপ্তি। অভিনেত্রী রুনা খানের জীবনে এমন একটি মুহূর্ত ছিল ২৬ নভেম্বর।

মণিপুরি থিয়েটারের আমন্ত্রণে মৌলভীবাজারের ঘোড়ামারা গ্রামের নটমণ্ডপে এদিন সন্ধ্যায় মঞ্চস্থ হয়েছিল ঢাকার নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের নাটক ‘নাম গোত্রহীন’। অভিনেত্রী অপি করিমের অনুপস্থিতে মাত্র একদিনের মহড়ার পর মঞ্চে অভিনয় করেছেন রুনা খান।

প্রদর্শনী শেষ হওয়ার পর সারা যাকের যখন উপস্থিত দর্শকের সামনেই ঘোষণা করলেন, ‘এই প্রদর্শনীটি উৎসর্গ করছি রুনাকে।’ তখন আবেগে কেঁদে ফেলেন রুনা।

ঘোড়ামারা গ্রামে পৌঁছানোর পর থেকেই মুগ্ধ হন মণিপুরি থিয়েটারের নটমণ্ডপ দেখে। ধাণক্ষেতের পাশে টিনের চাল, বাঁশের বেড়া আর মাটির মঞ্চ। এ যেন নাটকের তীর্থস্থান। নটমণ্ডপ নয়, নাট্য মন্দির।

রুনা বলেন, ‘এমন পরিবেশ দেখার পর থেকেই মনে হচ্ছিল আমার অভিনয় জীবনের সেরা মুহুর্তটি পেয়ে গেছি।’

ঘোড়ামারা গ্রামে পৌঁছানোর পর থেকেই হাতে স্ক্রিপ্ট নিয়ে ঘুরছেন আর আনমনে সংলাপ বলে চলেছেন রুনা। তার এই অবস্থা দেখে মনে হচ্ছিল, একটু পরই যেন পরীক্ষার হলে বসবেন এই অভিনেত্রী। সন্ধ্যায় শুরু হল মিলনায়তনপূর্ণ দর্শকের সামনে অভিনয় মঞ্চায়ন। নিজের সবটুকু উজার করে দিয়ে অভিনয় করলেন রুনা। বিনিময়ে পেলেন দর্শকের মুহুর্মুহ করতালি। প্রদর্শনীর পর বরেণ্য অভিনয়শিল্পী সারা যাকের বলেন, ‘রুনা মাত্র একদিনে চরিত্রটিকে যেভাবে আত্মস্থ করেছে তার জন্য আমরা আজকের এই প্রদর্শনীটি উৎসর্গ করছি রুনাকে।’

সেই অভিজ্ঞতা নিয়েই দ্য রিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকমের সঙ্গে কথা বলেন রুনা খান। ঘোড়ামারা গ্রামে নটমণ্ডপে অভিনয় করার অভিজ্ঞতা শোনান তিনি।

ঘোড়ামারা গ্রামের নটমণ্ডপে অভিনয় করার অভিজ্ঞতা শুনতে চাই?

ঢাকা থেকে যাওয়ার আগে ভাবতেই পারিনি গ্রামের ধানক্ষেতের পাশে এমন চমৎকার নাট্যমঞ্চ, আর সেখানেই অভিনয় করবো। টিনের চাল, মাটির মঞ্চ, বাঁশের বেড়া। এমন হৃদয়ছোঁয়া মিলনায়তন আর কোথাও দেখিনি। সবচেয়ে বেশি মুগ্ধ করেছে দর্শক। একদম মঞ্চের নিচেও দর্শক বসে আছে। মিলনায়তনপূর্ণ দর্শক অথচ পিনপতন নিঃশব্দ। ঢাকার মঞ্চে অনেকবার অভিনয় করেছি। কিন্তু এমন অসাধারণ অনুভূতি হয়নি। অভিনয় জীবনের সেরা সন্ধ্যাটি ছিল ঘোড়ামারা গ্রামে। এর জন্য মণিপুরি থিয়েটারের শুভাশিস সিনহা, জ্যোতি সিনহা’সহ সবাইকে ধন্যবাদ। আর সারা যাকেরের কাছে কৃতজ্ঞতা। তিনি আমাকে সেখানে অভিনয় করার সুযোগ করে দিয়েছেন।

‘নাম গোত্রহীন’ নাটকে আপনার চরিত্রটি নিয়ে বলুন?

নাটকটির সুলতানা চরিত্রে মূলত অপি করিম অভিনয় করেন। তিনি ব্যস্ত থাকায় আমাকে এই চরিত্রটিতে অভিনয় করতে বলা হলো। তখনো বুঝতে পারিনি, এমন সুন্দর একটি সন্ধ্যায় অভিনয় করবো। শো’র আগে মাত্র একদিন মহড়া করতে পেরেছি। ঘোড়ামারা গ্রামে পৌঁছানোর পরই মনে হয়েছে এমন মঞ্চে অভিনয়ের সৌভাগ্য আবার কবে হবে জানিনা। চেষ্টা করেছি চরিত্রটিকে ভালোভাবে ফুটিয়ে তুলতে। শো’র পরে দর্শকের কাছ থেকে যে ভালোবাসা পেয়েছি। আর সারা যাকের যখন মিলনায়তনপূর্ণ দর্শকের সামনে এই শো’টি আমাকে উৎসর্গ করলেন তখন আবেগে কেঁদে ফেলেছি।

নটমণ্ডপে অভিনয়কে বিশেষ মুহুর্ত কেন মনে হচ্ছে?

সব মিলিয়ে সেদিনের সন্ধ্যাটা আমার জন্য বিশেষ মুহুর্ত। মণিপুরি থিয়েটারের কর্মীদের অতিথিয়েতায় মুগ্ধ হয়েছি। কিন্তু সবচেয়ে বেশী মুগ্ধ হয়েছি মঞ্চ এবং সেখানকার দর্শক দেখে। ২০ বছর ধরে মণিপুরি থিয়েটার তিলে তিলে এই মঞ্চ গড়েছেন। সেখানকার দর্শকদের আধুনিক থিয়েটারের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন। এ যে কতো বড় কাজ! ভাবলেই অবাক হই। একটা সমাজকে থিয়েটারের সঙ্গে সম্পৃক্ত করে ফেলা। আমরা ঢাকায় দর্শক সংকটের জন্য হু-হুতাশ করি। কিন্তু সেখানে দর্শক টিকিট না পেয়ে ফিরে যাচ্ছে। কি অসাধারণ দৃশ্য। থিয়েটারকর্মী হিসেবে তো এমন দৃশ্যই স্বপ্ন দেখি। মণিপুরি থিয়েটার সেই স্বপ্নকে বাস্তবে এনে দেখাচ্ছে। এর জন্য মণিপুরি থিয়েটারের সবাইকে অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা। নটমণ্ডপে আবারও অভিনয় করতে চাই। সেই সুযোগের অপেক্ষায় আছি।

আপনি তো টিভি এবং মঞ্চে অভিনয় করেন। কোন মাধ্যমে বেশি ভালো লাগে?

অভিনয়ের ক্ষেত্রে দুটো জায়গা আলাদা। অভিনয়ের প্রতিক্রিয়াও আলাদা। তবে অভিনয়ের প্রতিক্রিয়া অনেক বেশি লাইভ। দর্শকের চোখে তাকালেই অভিনয়ের প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়। ঢাকার মঞ্চে তো এখন দর্শক অনেক কমে গেছে। ফলে দর্শকের যে প্রতিক্রিয়া সেটাও কমে গেছে। ঘোড়ামারা গ্রামে অভিনয় করে দর্শকের চোখে যে প্রতিক্রিয়া দেখেছি সেটা আমাকে নতুনভাবে প্রেরণা যুগিয়েছে। আর টিভি পর্দার প্রতিক্রিয়া অন্যরকম। দুটো মাধ্যমেই অভিনয় করতে ভালো লাগে।

(দ্য রিপোর্ট/পিএস/এফএস/নভেম্বর ২৮, ২০১৬)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জলসা ঘর এর সর্বশেষ খবর

জলসা ঘর - এর সব খবর



রে