thereport24.com
ঢাকা, সোমবার, ১৬ জানুয়ারি ২০১৭, ২ মাঘ ১৪২৩,  ১৭ রবিউস সানি ১৪৩৮

গাইবান্ধায় চারজনকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

২০১৭ জানুয়ারি ১১ ১২:৪৫:০৩
গাইবান্ধায় চারজনকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধা জেলার সাদুল্যাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও যুবদলের চার নেতাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে সাদা পোশাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার (৯ জানুয়ারি) রাত থেকে মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) সকাল পর্যন্ত বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের তুলে নেওয়া হয়।

নিখোঁজরা হলেন- সাদুল্যাপুর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও ৩ নং দামোদরপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো. মনোয়ারুল হাসান জীম্মল, নলডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাইদুল ইসলাম প্রিন্স, দামোদরপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাদেকুল ইসলাম সাদেক ও নলডাঙ্গা ইউনিয়ন যুবদলের সহ-সাধারণ সম্পাদক শফিউল ইসলাম শাপলা (৩২)।

তবে তাদের তুলে নেওয়া ও আটকের ব্যাপারে কিছু বলতে পারছে না জেলা পুলিশ, র‌্যাব বা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সদস্যরা। তারা জানিয়েছেন এমন পরিচয়ে কাউকেই তারা আটক করেনি।

নিখোঁজ মনোয়ারুল হাসান জীম্মলের বাবা গোলাম মোস্তফা জানান, সোমবার রাতে উপজেলা শহরের কৃষি ব্যাংক মোড় থেকে তার মোটরসাইকেলে করে নলডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম নয়নের কাছে যাওয়ার জন্য রওনা দেন। পথিমধ্যে লালবাজার নামক এলাকা থেকে তিনি সাদেকুল ইসলাম সাদেককে মোটরসাইকেলে তুলে নেন। এরপর বিভিন্নস্থানে খোঁজখবর নিয়েও তাদের কোনো সন্ধান পাওয়া যাচ্ছেনা।

মনোয়ার হাসানের পরিবারের ধারণা, সাদা পোশাকধারী আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর লোকজন অথবা বিশেষ মহলের ইন্ধনে জামায়াত-শিবিরের ক্যাডাররা মোটরসাইকেলসহ ২ জনকে তুলে নিয়ে গেছে। এ ঘটনার পর থেকে তাদের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে এবং মোটরসাইকেলেরও কোন হদিস পাওয়া যাচ্ছেনা।

নিখোঁজ মাইদুল ইসলাম প্রিন্সের ভাই তরিকুল ইসলাম নয়ন জানান, মঙ্গলবার সকালে সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয় দিয়ে কয়েকজন নলডাঙ্গা রেলগেট এলাকা থেকে প্রিন্সকে মোটরসাইকেলসহ তুলে নিয়ে যায়। বিভিন্নভাবে চেষ্টা করেও তার কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি।

নিখোঁজ শফিউল ইসলাম শাপলার বাবা আমিনুল ইসলাম জানান, নলডাঙ্গার কাচারী বাজার এলাকায় তার ছেলে অবস্থান করছিল। এ সময় কয়েকজন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য বলে পরিচয় দিয়ে তাকে তুলে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে সাদুল্যাপুর উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহারিয়ার খাঁন বিপ্লব দ্য রিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয় দিয়ে তাদের তুলে নিয়ে যাওয়ার ঘটনাটি বিস্ময়কর বিষয়। তবে তাদের তুলে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে জেলা পুলিশ সুপারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। তারা সব জায়গায় খোঁজ অব্যাহত রাখেছেন। সাদুল্যাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফরহাদ ইমরুল কায়েস দ্য রিপোর্টকে জানান, তাদের তুলে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি জেনেছি। বিষয়টি ইতোমধ্যে জেলা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাদের অবগত করা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে কারও পরিবার কোন লিখিত অভিযোগ করেনি। তবে এসব পরিবারকে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

(দ্য রিপোর্ট/কেএনইউ/এমকে/জানুয়ারি ১১, ২০১৭)


পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর



রে