thereport24.com
ঢাকা, রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০১৭, ১৬ বৈশাখ ১৪২৪,  ২ আগস্ট ১৪৩৮

তিস্তার ধূ-ধূ বালু চরে কুমড়া চাষ

২০১৭ এপ্রিল ১২ ২০:০২:৫০
তিস্তার ধূ-ধূ বালু চরে কুমড়া চাষ

লালমনিরহাট প্রতিনিধি : যে বালুচরে কোনদিন কোন ফসল ফলানো সম্ভব হয়নি সেই খসখসে তপ্ত বালুর চরে কুমড়ো গাছ দিয়ে সবুজে ছেঁয়ে গেছে। বালু চরে কুমড়ার হলুদ ফুলের নান্দনিক শোভায় মুগ্ধ শুধু কৃষেকই নন এলাকাবাসীরাও হয়েছে। এমনকি এ দৃশ্য দেখে থমকে দাঁড়াচ্ছে পথিকেরাও।

তিস্তা নদীর জেগে ওঠা চরে চলতি মৌসুমে কুমড়া চাষ করছে কৃষকরা। অন্য ফসলের চেয়ে তুলনামূলক কম খরচে অধিক লাভ হওয়ায় দিগন্ত জুড়ে বালু চরে শুধু মিষ্টি কুমড়া চাষ করছে কৃষকরা। তবে মিষ্টি কুমড়ার পাশাপাশি মিষ্টি আলু, রসুন, পিঁয়াজসহ বিভিন্ন ধরণের সবজি এই ধূ-ধূ বালু চরে চাষ করে লাভবান হচ্ছেন চাষিরা।

তাদের উৎপাদিত এসব সবজি এ অঞ্চলের মানুষের চাহিদা মিটিয়ে দিচ্ছে। এমনকি রাজধানীসহ দেশের বিভিন্নস্থানেও এসব সবজি চাহিদা মেটাচ্ছে। তবে উৎপাদিতপণ্য দেশের চাহিদা মিটিয়ে যাতে বিদেশে রপ্তানী করতে পারে সেজন্য সরকারের সহযোগিতা কামনা করছেন কৃষকরা।

হাতীবান্ধা উপজেলার চর সিন্দুর্না এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, আবাদকৃত মিষ্টিকুমড়াসহ অন্যান্য সবজির পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় অতিবাহিত করছে কৃষকেরা। সবুজে ছুঁয়ে গেছে পুরো চর এলাকা। শুধু সিন্দুর্না চরে নয় এ উপজেলার প্রত্যেকটি চর সবুজে ছুঁয়ে গেছে।

চর সিন্দুর্নার কৃষক এরশাদ বলেন, ‘বাব-দাদার আমলে কখনও এসব বালুচরে কোন ফসলের চাষ হয়নি। তবে গত দুই-তিন বছর থেকে মিষ্টি কুমড়াসহ নানান জাতের সবজির চাষ এই চরে হচ্ছে। অন্য ফসলের চেয়ে তুলনামূলক কম খরচে অধিক লাভ হওয়ায় চলতি মৌসুমে কুমড়া চাষে আগ্রহ বেড়েছে অন্যান্য কৃষকদেরও।

তিনি আরও বলেন, ‘বালু চরে কুমড়ো চাষ করে অনেক কৃষক স্বাবলম্বী হয়েছে। তাদের পরিবারের বিভিন্ন চাহিদা মেটাতে পারছে। সন্তানের লেখা-পড়া খরচেও যোগান দিতে পারছে। এতে তারা খুবই খুশি।’

এ বিষষে হাতীবান্ধা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন দ্য রিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, কুমড়া চাষে তেমন কোন রোগ বালাই নেই। তাছাড়া কুমড়া চাষে জৈব সার ব্যতীত তেমন কোন রাসায়নিক সার ব্যবহার করতে হয়না। অল্প খরচে অধিক ফলন এবং দামও বেশি। তাছাড়া তিস্তার ওই বালু চরে অন্য ফসল চাষ করা খুব কঠিন কাজ।

তিনি আরও জানান, চলতি বছরে চর এলাকায় প্রায় ১০০ একর জমিতে মিষ্টি কুমড়ার চাষ হয়েছে।

(দ্য রিপোর্ট/কেএনইউ/এপ্রিল ১২, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর



রে