thereport24.com
ঢাকা, রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০১৭, ১৭ বৈশাখ ১৪২৪,  ২ আগস্ট ১৪৩৮

কৃতী খেলোয়াড়দের বিজিবির সংবর্ধনা

২০১৭ এপ্রিল ১৮ ২২:৫০:৩৫
কৃতী খেলোয়াড়দের বিজিবির সংবর্ধনা

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) পক্ষ থেকে ভারোত্তোলন, ভলিবল, হ্যান্ডবল ও আরচ্যারি দলের আন্তর্জাতিক পর্যায়ের কৃতী খেলোয়াড়দের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।

রাজধানীর পিলখানায় বিজিবি সদর দফতরে ১৮ এপ্রিল আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিজিবি মহাপরিচালক ও ভারোত্তোলন ফেডারেশনের সভাপতি মেজর জেনারেল আবুল হোসেন কৃতী খেলোয়াড়দের হাতে ফুলেল শুভেচ্ছা ও উপহার তুলে দেন। ভারোত্তোলন ফেডারেশন এবং বর্ডার গার্ড ক্রীড়া বোর্ডের ভলিবল, হ্যান্ডবল ও আরচ্যারি দলের খেলোয়াড়দের উৎসাহিত করার লক্ষ্যে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিরল কৃতিত্ব অর্জনকারী খেলোয়াড়দের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

উল্লেখ্য, ভারোত্তোলনে ২০১৬ সালে এসএ গেমস এবং কাতারে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক ভারোত্তোলন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে মাবিয়া আক্তার (সীমান্ত) স্বর্ণপদক এবং জুহুরা আক্তার রেশমা কাতারে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় স্বর্ণপদক অর্জন করেছেন। বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন ভারোত্তোলন ফেডারেশনের সভাপতি হিসেবে ভারোত্তোলনে কৃতিত্বপূর্ণ অবদান রাখায় কৃতী খেলোয়াড় মাবিয়া আক্তার (সীমান্ত), জুহুরা আক্তার রেশমা, ফুলবতী চাকমা ও মহিলা কোচ শাহারিয়ার সূচিকে অভিনন্দন-কৃতজ্ঞতা জানান।

এ ছাড়া বিজিবির ১৫টি দল জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে কৃতিত্ব প্রদর্শন করায় তাদেরও সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। ২০১৬ সালে বিজিবির খেলোয়াড়রা ফেডারেশন ও জাতীয় পর্যায়ে ২০টি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে ৮টিতে চ্যাম্পিয়ন, ৬টিতে রানারআপ এবং ৩টিতে ৩য় স্থান লাভ করার গৌরব অর্জন করে। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ১৩টি খেলায় অংশগ্রহণ করে ৩টি স্বর্ণ, ৮টি রৌপ্য ও ১৫টি তাম্র পদক অর্জন করেছে। ক্রীড়াক্ষেত্রে বিজিবি’র এ সাফল্য বিজিবি তথা দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে এবং জাতীয় ক্রীড়াঙ্গনের অগ্রগতিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখেছে।

বিজিবি মহাপরিচালক বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের ভলিবল দলের কৃতি খেলোয়াড় নায়েব সুবেদার সৈয়দ আতিকুর রহমান ও অবৈতনিক ল্যান্স নায়েক নারায়ণ দেবনাথকে, হ্যান্ডবল দলের অবৈতনিক ল্যান্স নায়েক মো. সোহেল রানা, অবৈতনিক ল্যান্স নায়েক মো. মাহবুবুর রহমান, অবৈতনিক ল্যান্স নায়েক মো. মেহেদী হাসান, অবৈতনিক ল্যান্স নায়েক মো. সামসুদ্দিন সানি, অবৈতনিক ল্যান্স নায়েক মো. ইলিয়াস শেখ ও সিপাহী মো. মাসুম আহমেদকে এবং আরচ্যারী দলের সিপাহী মো. সানোয়ার হোসেন ও সিপাহী মো. নাজমুল হুদাকে অভিনন্দন জানান।

এ সময় বিজিবি মহাপরিচালক বলেন, আমাদের দল ভবিষ্যতে আরো ভাল করবে এবং দেশের জন্য প্রত্যাশিত সুনাম বয়ে আনবে। আমি আশাবাদী যে, আগামী মে মাসে আজারবাইজানে অনুষ্ঠিতব্য আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় ভারোত্তলনে মাবিয়া আক্তার সীমান্ত ও ফুলবতী চাকমা অংশগ্রহণ করে আরো ভালো ফলাফলের মাধ্যমে আমাদের মুখ উজ্জ্বল করবে।

অনুষ্ঠানে বিজিবির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা, বাংলাদেশ ভারোত্তোলন ফেডারেশনের কর্মকর্তা, কোচ ও খেলোয়াড়রা উপস্থিত ছিলেন।

(দ্য রিপোর্ট/এমএসআর/এপি/এনআই/এপ্রিল ১৮, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর



রে