thereport24.com
ঢাকা, সোমবার, ২১ আগস্ট ২০১৭, ৬ ভাদ্র ১৪২৪,  ২৭ নভেম্বর ১৪৩৮

হাতীবান্ধায় ওষুধ প্রয়োগে ধানক্ষেত নষ্টের অভিযোগ

২০১৭ এপ্রিল ২০ ১৯:০৪:৩৪
হাতীবান্ধায় ওষুধ প্রয়োগে ধানক্ষেত নষ্টের অভিযোগ

লালমনিরহাট প্রতিনিধি : জেলার হাতীবান্ধা উপজেলায় বিষাক্ত রাসায়ানিক ওষুধ প্রয়োগে ধানক্ষেত নষ্টের অভিযোগ করেছেন এক কৃষক।

বৃহস্পতিবার (২০ এপ্রিল) হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা , কৃষি কর্মকর্তা এবং স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বরাবর এ অভিযোগ করেছেন জুল হোসেন নামে এক কৃষক। অভিযোগের ভিত্তিতে ইতিমধ্যে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন সরেজমিনে ধনক্ষেতটি পরিদর্শনও করেছেন।

পাটিকাপাড়া ইউনিয়নের জুল হোসেন অভিযোগ করেছেন, গেল ১৬ এপ্রিল (রবিবার) ভোরে পশ্চিম বেজগ্রামে তার ৪১ শতক বোরো ধানের জমিতে বিষাক্ত রাসায়ানিক ওষুধ প্রয়োগ করা হয়েছে। যার পিছনে উত্তর পারুলীয়া গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে সাদেকুল ও পাটিকাপাড়া গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলে আব্দুল লতিফ জড়িত বলে লিখিত অভিযোগ করেছেন তিনি। এই ঘটনার প্রতক্ষদর্শী হিসেবে একই গ্রামের দিন মামুদের ছেলে নূর মোহাম্মদের নামও লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেছেন তিনি।

এ ব্যাপারে অভিযোগকারী কৃষক জুল হোসেন বলেছেন, ‘ওই জমিতে আমার প্রায় ১৪ থেকে ১৫ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। আমি এ বিষয়ে ইউএনওর নিকট অভিযোগ করেছি।’

আর অভিযোগের পক্ষে সাক্ষ্য দেওয়া নূর মোহাম্মদ বলেছেন, ‘আমি রবিবার (১৬ এপ্রিল) ফজরের নামাজের পর আমার ক্ষেত দেখতে যাই। আর সেখানে দেখতে পাই আব্দুল লতিফ ও তার বোন জামাই সাদেকুল ধান ক্ষেতে ওষুধ দিচ্ছে।’

অভিযুক্তরা জানিয়েছেন, তাদের উপর আনিত অভিযোগ মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দ্বন্দ্ব থাকায় তাদের বিরুদ্ধে ওই অভিযোগ তোলা হয়েছে এবং মিথ্যা মামলা দেওয়ার চক্রান্ত করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন বলেছেন, ‘আমি এ বিষয়ে অভিযোগ পেয়ে নিজেই ধানক্ষেত দেখতে গিয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।’

এদিকে দ্য রিপোর্টের কাছে অভিযোগের সত্যাতা স্বীকার করেছেন হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ এনামুল কবির। এমনকি বিষয়টি নিয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাকে তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতেও নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি।

(দ্য রিপোর্ট/কেএনইউ/এজে/এপ্রিল ২০, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর



রে