thereport24.com
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ জুন ২০১৭, ১৩ আষাঢ় ১৪২৪,  ১ অক্টোবর ১৪৩৮

ফরিদপুরে পাথর ব্যবসা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১০

২০১৭ জুন ১৮ ১৮:১৮:২৬
ফরিদপুরে পাথর ব্যবসা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১০

ফরিদপুর প্রতিনিধি : ফরিদপুরের লক্ষ্মীপুর এলাকায় রেলস্টেশনে পাথর ব্যবসাকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে রবিবার দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতিসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে গুরুতর আহত ১ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে ফরিদপুর রেলস্টেশনে পাথর ব্যবসা ও আশপাশের এলাকার দখল নিয়ে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। একটি গ্রুপ দীর্ঘদিন ধরে স্টেশন ও আশপাশের এলাকা দখল করে ব্যবসা-বাণিজ্য ও ঘর তুলে ভাড়া দিয়ে আসছিল। এ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। গত কয়েকদিন ধরে রেলস্টেশনের আধিপত্য ধরে রাখতে দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা চলছিল। রবিবার সকাল থেকে উভয় গ্রুপ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে একে অপরের উপর হামলা চালায়। হামলায় গুরুতর আহত হন ৮নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি মাহমুদ নাঈম জাহান লিপন, যুবলীগ কর্মী নাজমুল হুদা মিঠু, আজিজুল হক, সাজু আহমেদ, দেওয়ান হাবিব, হায়াত সিমনসহ কমপক্ষে ১০ জন। এদের মধ্যে লিপনকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বাকিদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ফরিদপুর রেল স্টেশনে এলএমকেএস এন্টারপ্রাইজ নামের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পদ্মা সেতুর কাজের জন্য আনা পাথর শুরু থেকেই লোড আনলোড ও ক্যারিং-এর কাজ করে আসছিল। সম্প্রতি এই ব্যবসার নিয়ন্ত্রণকারী শহরের লক্ষ্মীপুর এলাকার ব্যবসায়ী, জেলা ইটভাটা মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও ফরিদপুর চেম্বার অব কমার্সের সহ-সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান এলএমকেএস এন্টারপ্রাইজকে সরিয়ে সেখানে তার আত্মীয়-স্বজনকে পাথর লোড আনলোডে সম্পৃক্ত করার উদ্যোগ নেয়। এতে এলএমকেএস এন্টারপ্রাইজের কর্মীদের সাথে সিদ্দিকুর রহমানের দ্বন্দ্ব দেখা দেয়।

আহত নাজমুল হুদার বড় বোন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ ফরিদপুর শাখার সাধরাণ সম্পাদক খাদিজা বেগম ওরফে মনি জানান, তার ভাই ও আহত অন্যরা সকলেই পাথর লোড আনলোড ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অতর্কিতভাবে এদের উপর হামলা চালানো হয়েছে। তিনি অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। ঘটনাটি লিখিতভাবে উল্লেখ করে ফরিদপুর জেলা প্রশাসকের কাছে একটি অভিযোগ জমা দিয়েছেন তিনি।

পাথর আমদানিকারী প্রতিষ্ঠান আলাউদ্দিন ট্রেডিং-এর স্বত্ত্বাধিকারী সিদ্দিকুর রহমান বলেন, এর আগে নঈমের ভাই আমার এক ফুপাতো ভাইকে মেরেছিল। এরই পাল্টা হামলা হিসেবে আজকের এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। আমি এর বেশি কিছু জানি না।

কোতোয়ালি থানার এসআই বিপুল দে জানান, সংঘর্ষের পর ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এ ঘটনায় কোন পক্ষই থানায় মামলা করেনি।

(দ্য রিপোর্ট/এপি/জুন ১৮, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর



রে