thereport24.com
ঢাকা, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০১৭, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৪,  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

রাজশাহীতে বসত বাড়িতে মিলল ২৭টি সাপ

২০১৭ জুলাই ০৫ ১৬:১৬:৫৮
রাজশাহীতে বসত বাড়িতে মিলল ২৭টি সাপ

রাজশাহী অফিস : রাজশাহী নগরীর মতিহারের বুধপাড়া এলাকার একটি বসত বাড়িতে মিলল ২৭টি বিষধর গোখরা সাপ। তবে একে একে সবগুলোকে মেরে ফেলা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৪ জুলাই) মধ্যরাতে বুধপাড়া এলাকার মাজদার হোসেনের বাড়িতে সাপগুলো মারা হয়। এই নিয়ে ওই এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। সকাল থেকে মৃত সাপ দেখতে এলাকার মানুষ ওই বাড়িতে ভিড় করছেন।

ঐ বাড়ির মালিক মাজদার আলী জানিয়েছেন, রাতে তিনি এবং তার ৭ বছরের ছেলে সিয়ামসহ ঘরের বিছানাতে বসে টিভি দেখছিলেন। কিন্তু হঠাৎই চোখ আটকে যায় তাদের। দেখেন, ঘরের মধ্যে সাপ! খানিকটা ভয় পেয়েও গিয়েছিলেন। বুদ্ধি হারানোর মতো অবস্থা। তবে ভাগ্যিস ঘরের কোণে রাখা ছিল একটা লাঠি। লাঠি ও টর্চ লাইট হাতে নিয়ে মারতে গেলে সাপটি লুকিয়ে যায় ঘরের আলমারির পেছনে। অনেক কষ্টে সেটিকে বের করে মারলেন। পরে আলমারি সরানো হলে সেখানে আরও তিনটি সাপ দেখা যায়। এরপরে মাজদার তার ভাইদের ডেকে ঐ তিনটি সাপ মারলেন। কিন্তু একি! একে একে বেরিয়ে আসতে থাকলো আরও সাপ! ঘরের মাটি ও দেয়াল খুঁড়ে শুরু হলো সাপ নিধনের দুঃসাহসিক অভিযান। এতে যোগ দিলেন স্থানীয়রাও। তাদের হাতে একে একে মারা পড়লো ২৭টি বিষাক্ত গোখরা সাপ।

তিনি আরও জানিয়েছেন, বাড়িটি মাটির তৈরি এবং অনেক পুরনো। তাই হয়তো সাপ বাসা বেঁধেছে। গরমের কারণে সাপগুলো বেরিয়ে আসতে পারে। বাড়িতে আর্র সাপ আছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সাপের দখলে চলে গেছে পৈত্রিক বাড়িটি। এখন আতঙ্কে রয়েছে তার পরিবার। তাই তার বউ ও বাচ্চা এখন আর বাড়িতে থাকতে চাইছে না। ভয়ে ওই ঘরেও আর কেউ ঢুকছেন না। কারণ, যে সাপগুলো মারা পড়েছে, সবই বাচ্চা। দৈর্ঘ্য আড়াই ফুট। এই সাপের বাচ্চাগুলোর বাপ-মা তো রয়েছেই। তাই অভিজ্ঞ সাপুড়িয়ার খোঁজ করা হচ্ছে।

বুধপাড়া এলাকার বাসিন্দা সাইদুর রহমান জানিয়েছেন, মাজদারের ওই ঘরে অসংখ্য ইঁদুরের গর্ত রয়েছে। আর সেই গর্তগুলোতে বাসা বেঁধেছিল সাপ। রাত ১১টা থেকে ভোর ৪টা পর্যন্ত ঘরের মধ্যে বিভিন্ন গর্ত শাবল দিয়ে খুঁড়ে খুঁড়ে সাপগুলো মারা হয়েছে। পরে গর্তের ভেতর পানি ঢেলে দেওয়া হয়েছে। এতে আরও সাপ থাকলে বেরিয়ে আসার সম্ভাবনা আছে।

(দ্য রিপোর্ট/কেএনইউ/এনআই/জুলাই ০৫, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর



রে