thereport24.com
ঢাকা, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৫ আশ্বিন ১৪২৪,  ২৮ জিলহজ ১৪৩৮

৫৭ ধারা বাতিলের দাবি সাংবাদিক নেতাদের

২০১৭ জুলাই ১১ ১৭:২৫:৫৪
৫৭ ধারা বাতিলের দাবি সাংবাদিক নেতাদের

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : ৫৭ ধারা বাতিলের দাবি জানিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা। ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে এই দাবি জানানো হয়। একই সঙ্গে ডিজিটাল সিকিউরিটিজ অ্যাক্ট নামের যে নতুন আইন হচ্ছে তা যেন ৫৭ ধারার আদলে না হয় সেই দাবি জানান তারা।

মঙ্গলবার (১১ জুলাই) ডিআরইউতে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) একাংশের সভাপতি শওকত মাহমুদ বলেন, প্রভাবশালী ও সরকারী কিছু ব্যক্তির স্বার্থে ২০১৩ সালে ৫৭ ধারা করা হয়েছিল যাতে মানুষের মুখ বন্ধ করা যায়। বিশেষ করে মুক্ত গণমাধ্যমের স্বাধীনতাকে হরণ করা জন্য।

আইনমন্ত্রীর সমালোচনা করে তিনি বলেন, সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধে এই মুহূর্তে জাতীয় সংসদে ৫৭ ধারায় বাতিল করতে আইন পাশ করেন।

বিএফইউজের সাবেক সভাপতি রুহুল আমীন গাজী বলেন, মুক্ত সাংবাদিকতায় কিংবা গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় বাধা দিয়ে অতীতে কোনো রক্ষা হয়নি। আগামীতেও হবে না।

তাই ৫৭ ধারা বাতিল করে যারা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। একই সঙ্গে নতুন আইনের খসড়ায় ১৯, ২০ এবং ২১ নম্বর ধারায় কি আছে তা দেখতে চাই। পাশাপাশি সাংবাদিক ডিআরইউ, বিএফইউজে, ডিইউজের নেতাদের সঙ্গে বসেতাদের মতামত নিয়ে এই আইন বাস্তবায়ন করার দরকার।

ঢাকা ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সভাপতি শাবান মাহমুদ বলেন, সাংবাদিকরা যেখানে নির্যাতিত হবে সে খানে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন চালিয়ে যাবো। অবিলম্বের ৫৭ ধারা বাতিল করতে হবে। পুলিশের নির্যাতনসহ ৫৭ ধারায় এখন পর্যন্ত ২১জন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে তাদের প্রত্যেকের মামলা প্রত্যাহার করতে হবে।

সমাপনী বক্তব্যে সংগঠনের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা বলেন, ইয়াবা নাটক করে, ফেইবুকের পোস্টকে কেন্দ্র করে ৫৭ ধারায় নামে যে নাটক করা হচ্ছে তা বাতিল করতে হবে।

একই সঙ্গে আগামী আগস্ট মাসের মধ্যে নতুন যে আইন করা হচ্ছে তাতে যেন ৫৭ ধারার মাল মসলা না থাকে, এই আইন যেন কালো আইন না হয়। আর তাতে পুলিশের ক্ষমতা যেন ৫৭ ধারার মতো বহাল না থাকে তার প্রতি গুরুত্ব দিতে হবে।

তিনি বলেন, ৫৭ ধারা আইন বাতিলের জন্য ডিআরইউ’র পক্ষ থেকে তথ্য ও আইন মন্ত্রণায়লকে একটি স্মারকলিপি দেওয়া হবে। সরকার যদি সেই স্মারকলিপি অনুসারে কাজ না করে তবে সবগুলো সাংবাদিক সংগঠন মিলে কঠোর কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে।

ডিআরইউ’র সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন নোমানীর পরিচালনায় এসময় বক্তব্য রাখেন ডিআরইউ’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান, রাজু আহমেদসহ বিএফইউজ, ডিইউজের এবং ডিআরইউ’র বর্তমান ও সাবেক নেতারা।

(দ্য রিপোর্ট/এপি/জুলাই ১১, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর



রে