thereport24.com
ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর ২০১৭, ৫ কার্তিক ১৪২৪,  ২৯ মহররম ১৪৩৯

টাঙ্গাইলে সৎ বাবার ধর্ষণে মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা

২০১৭ আগস্ট ০৮ ১০:৩৮:১৮
টাঙ্গাইলে সৎ বাবার ধর্ষণে মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলে এবার সৎ বাবার ধর্ষণের শিকার হয়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে ১৮ বছরের এক কিশোরী। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার ঘাটাইল উপজেলার প্রত্যন্ত পাহাড়ি এলাকার মালিরচালা গ্রামে।

এ ঘটনায় গত ২৪ জুলাই মেয়েটি বাদী হয়ে অভিযুক্ত বাবা কামরুল ইসলামের বিরুদ্ধে টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেছেন। তবে মামলা দায়ের হলেও অভিযুক্ত লম্পট পিতাকে এখনও আইনের আওতায় আনতে পারেনি পুলিশ। এর ফলে মামলা তুলে নিতে নানাভাবে হুমকি দেয়া হচ্ছে বলেও জানিয়েছে মেয়েটির পরিবার।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার কালাইপাড় গ্রামের আমির হোসেনের সঙ্গে বিয়ে হয় বানেছা বানুর। তাদের ঘরে আমিনা খাতুন নামে এ কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। মেয়েটির বয়স যখন ৩-৪ বছর তখন আমির হোসেনের সঙ্গে বানেছা বানুর বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। ফলে মায়ের সঙ্গেই শিশু কন্যা আমিনা চলে আসে নানার বাড়ি ঘাটাইলের সাগরদিঘী এলাকার ফুলমালীরচালা গ্রামে। ওই বাড়িতে কামরুল ইসলামের যাতায়াতের এক পর্যায়ে বানেছা বানুর সঙ্গে সখ্য গড়ে ওঠে। এক পর্যায়ে বানেছা বানুকে বিয়ে করে কামরুল। বিয়ের শর্ত থাকে বানেছা বানুর মেয়ে আমেনাকে কামরুল মেয়ে হিসেবে দেখভাল করবে। পরে বানেছা বানু জানতে পারে তার স্বামী কামরুল ইসলাম এর আগেও একাধিক বিয়ে করেছিল। তারপরও আশায় বুকবেধে ঘর-সংসার করতে থাকে বানেছা বানু। প্রথম কয়েক বছর ভালই চলছিল তাদের সংসার। তার কিছুদিন পর মেয়ে আমিনার উপর কামরুলের কু-দৃষ্টি লক্ষ্য করে বানেছা বানু তার মেয়েকে নানার বাড়ি পাঠিয়ে দেয়। এ বিষয়ে কয়েক দফায় কামরুলকে সতর্কও করে দেয় বানেছা বানু। এতে তার উপর পাশবিক নির্যাতনের খড়গ নেমে আসে। নানা ছল-ছুতোয় বানেছাকে মারধর করে কামরুল। এমতাবস্থায় গত ২ ফেব্রুয়ারি মাকে দেখতে বাড়ি আসে মেয়ে। সে রাতে বানেছা বানু ঘুমিয়ে পড়লে মেয়েকে বাবা কামরুল ইসলাম ধর্ষণ করেন।

ধর্ষিতা জানায়, ঘটনার রাতে সবাই ঘুমিয়ে পড়লে দেড়টার দিকে অতর্কিতভাবে তার মুখ চেপে ধরে কামরুল ইসলাম তাকে ধর্ষণ করে। পরে এ ঘটনাটি কাউকে জানালে তাকে মেরে ফেলার হুমকিও দেয়। এভাবে একাধিক বার কামরুল ইসলাম তাকে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে মেয়ে গর্ভবতী হয়ে পড়ে।

বর্তমানে মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে বিচারের জন্য দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছে। টাঙ্গাইলের আদালতে মামলা দায়ের করলেও মামলা তুলে নিতে নানাভাবে হুমকি দেওয়া

(দ্য রিপোর্ট/এনটি/এনআই/আগস্ট ০৮, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর



রে