thereport24.com
ঢাকা, শনিবার, ১৯ আগস্ট ২০১৭, ৪ ভাদ্র ১৪২৪,  ২৫ নভেম্বর ১৪৩৮

উদ্বোধন হবে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে

ঢাকায় হচ্ছে বিশ্বের সর্ববৃহৎ বার্ন ইনস্টিটিউট

২০১৭ আগস্ট ১০ ১৮:৪৩:৫৮
ঢাকায় হচ্ছে বিশ্বের সর্ববৃহৎ বার্ন ইনস্টিটিউট

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে পৃথিবীর সর্ববৃহৎ বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট তৈরি হচ্ছে বাংলাদেশে। আগামী বছরের সেপ্টেম্বর মাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বের সর্ববৃহৎ এই বার্ন ইনস্টিটিউটটি উদ্বোধন করবেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে চাঁনখারপুলে ইনস্টিটিউটের নির্মাণকাজ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের একথা জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

এ সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী অত্যন্ত দক্ষতা ও দ্রুততার সঙ্গে ইনস্টিটিউটটি নির্মাণের কাজ সম্পন্ন করছে। আমাদের সৌভাগ্য যে দুনিয়ার সবচেয়ে বড় বার্ন ইন্সটিটিউট আমাদের দেশে হচ্ছে এবং আমাদের প্রধানমন্ত্রীর নামে। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বের সর্ববৃহৎ এই বার্ন ইনস্টিটিউটটি উদ্বোধন করবেন।

তিনি বলেন, আমরা আজ নির্মাণকাজ পরিদর্শন করলাম। ক্যালেন্ডার অনুযায়ী কাজ চলছে। আমাদের বিশ্বাস প্রতিদিন অগ্নিদগ্ধরা সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে নির্মিত ৫০০ শয্যার এই বৃহত্তম হাসপাতালটিতে এসে উন্নত সেবা নিতে পারবে।

বক্তব্যের আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে নির্মাণকাজ পরিদর্শন করেন সেনাবাহিনী প্রধান আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক, জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্ল্যাস্টিক সার্জারি ইউনিটের প্রধান সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মিজানুর রহমানসহ সেনাবাহিনী ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের চিকিৎসকরা।

এর আগে ২০১৫ সালের ২৪ নভেম্বর জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এ প্রকল্পটি অনুমোদন দেওয়া হয়। ২০১৬’র এপ্রিলের ৬ তারিখ চানখাঁরপুলে ইনস্টিটিউট ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করে নির্মাণকাজের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও নির্ধারিত সময়ের ৩ মাস আগেই কাজ শেষ হবে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিট রূপান্তরিত হচ্ছে এই ইনস্টিটিউটে। দুই তলা বেজমেন্টসহ মোট ১২তলা ভবন হবে তিনটি ব্লকে। একটি ব্লকে বার্ন, একটিতে প্লাস্টিক ও অন্যটিতে একাডেমিক ভবন হবে। নতুন এই ইনস্টিটিউটের যাত্রা শুরু হলে প্রতিবছর গড়ে ১০ থেকে ১২ জন চিকিৎসক এ বিষয়ে উচ্চ শিক্ষার সুযোগ পাবেন।

(দ্য রিপোর্ট/এপি/এনআই/আগস্ট ১০, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর



রে