thereport24.com
ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ১ পৌষ ১৪২৪,  ২৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা

২০১৭ আগস্ট ১১ ১৩:১২:০১
দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : দক্ষিণ আফ্রিকায় কাজী সোহেল রানা নামের এক বাংলাদেশি এক ব্যবসায়ীকে সন্ত্রাসীরা গুলি করে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছে নিহতের স্বজনেরা।

ওই প্রবাসীর বাড়ি শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলার মহিষার গ্রামে। সোহেলের বাবা হাফেজ আ. জলিল কাজী ও মা ছালেহা বেগম। সে দীর্ঘ ১৫-১৬ বছর দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্যবসা করে আসছে। সেখানে সে স্ত্রী নিছা আকতার ও ছেলে তাবিজ কাজীকে সঙ্গে নিয়ে বসবাস করতো। বর্তমানে তার স্ত্রী ও পুত্র সেখানেই আছে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, সোহেল রানা বৃহস্পতিবার বিকেল আনুমানিক ৫টায় দক্ষিণ আফ্রিকার কেপটাউনের রাইলেন শহরে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢোকার সময় সন্ত্রাসীরা রাস্তা থেকে তাকে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে। এ সময় মাথায় ও পেটে গুলি লাগলে সোহেল মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। সন্ত্রাসীরা গুলি করে দ্রুত পালিয়ে যায়। এ সময় সেখানে অবস্থানরত বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা তাকে উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সোহেলকে মৃত ঘোষণা করেন। বর্তমানে তার লাশ দক্ষিণ আফ্রিকার একটি হাসপাতালের হিমাগারে রাখা হয়েছে। আইনী প্রক্রিয়া শেষে খুব শিগগিরি তার লাশ দেশে আনা হবে বলে স্বজনেরা জানিয়েছে।

নিহত সোহেল রানার মৃত্যুর সংবাদ দেশে পৌঁছানোর পর তার আত্মীয়স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়ে। পাড়া-প্রতিবেশী শত শত লোক তাদের বাড়িতে ভিড় জমায়।

নিহতের মা ছালেহা বেগম ছেলের মৃত্যুর সংবাদে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। কারও সান্ত্বনায় তার কান্না থামছে না। মা ছালেহা বেগম শুধু বিলাপ করে বলছেন, আমার সোহেল কই, আমার সোহেলকে এনে দাও। কাঁদতে কাঁদতে বার বার মূর্ছা যাচ্ছেন।

নিহতের বাবা হাজী আ. জলিল কাজী বলেন, আমার ছেলে দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্যবসা করতো। সে প্রায় ১৫/১৬ বছর যাবত সেখানে থাকে। বৃহস্পতিবার বিকেল আনুমানিক ৫টায় সে দোকানে ঢোকার সময় সন্ত্রীরা তাকে গুলি করে হত্যা করেছে।

ভেদরগঞ্জ থানার ওসি মো. মেহেদী হাসান বলেন, বিদেশে কেউ মারা গেছে কিনা এখনো আমার কাছে কোন খবর আসেনি। খবর আসলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব।

(দ্য রিপোর্ট/এমএইচএ/এনআই/আগস্ট ১১, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর



রে