thereport24.com
ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর ২০১৭, ৫ কার্তিক ১৪২৪,  ২৯ মহররম ১৪৩৯

পাহাড়ি ঢলে অভ্যন্তরীণ রাস্তায় ধস

দুই মাস পার হলেও খুলে দেওয়া হয়নি মাধবকুণ্ড ইকোপার্ক

২০১৭ আগস্ট ১১ ২১:০৩:৪৯
দুই মাস পার হলেও খুলে দেওয়া হয়নি মাধবকুণ্ড ইকোপার্ক

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি : দুই মাস অতিবাহিত হতে চললেও দেশের সর্ববৃহৎ প্রাকৃতিক জলপ্রপাত ও ইকোপার্ক মাধবকুণ্ড পর্যটকদের জন্য খুলে দেয়া হয়নি। পাহাড়ি ঢল আর ভারি বর্ষণে অভ্যন্তরীণ রাস্তায় ফাটল ও ধস দেখা দিলে বনবিভাগ এ পর্যটন কেন্দ্রটির প্রধান ফটক বন্ধ করে দেয়। কর্তপক্ষের নিষেধাজ্ঞা জারির কারণে নানা প্রতিকূলতা ডিঙিয়ে দূরদূরান্তের পর্যটক মাধবকুণ্ড এলাকায় পৌঁছেও জলপ্রপাত না দেখেই ফিরে যান। গত ঈদুল ফেতরে মাধবকুন্ডের সৌন্দর্য উপভোগ থেকে বঞ্চিত হন প্রকৃতিপ্রেমীরা। যদিও প্রতি বছর ঈদ মৌসুমে অর্ধলক্ষ পর্যটকের সমাগম ঘটে এ পিকনিক স্পটে। এবার জনশূন্য থাকায় ব্যবসা বাণিজ্যে ধস নেমে আসে। বিভাগীয় বন কর্মকর্তা এসএম মনিরুল হক ১০ আগস্ট ইকোপার্কের প্রধান ফটক উন্মুক্ত করার আশ্বাসে পর্যটন সংশ্লিষ্টদের মাঝে স্বস্তি দেখা দিলেও শেষ পর্যন্ত তা বাস্তবায়ন না করায় ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে।

জানা গেছে, গত জুন মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহের ভারি বর্ষণ আর পাহাড়ি ঢলে মাধবকুণ্ড জলপ্রপাতের অভ্যন্তরীণ রাস্তায় ফাটল, যাতায়াতের সিঁড়ির নিচের কিছু মাটি দেবে যায়। এতে রাস্তাটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠে। দুর্ঘটনা এড়াতে স্থানীয় প্রশাসন ২১ জুন থেকে মাধবকুন্ডের অভ্যন্তরে পর্যটক প্রবেশ বন্ধ করে দেয়। এরপর থেকে নিস্তব্ধ হয়ে পড়ে দেশের অন্যতম এ পর্যটন এলাকাটি। কিন্তু ঈদুল ফেতরের আনন্দ উপভোগে হাজার হাজার পর্যটক মাধবকুন্ডে ছুটলেও ভেতরে প্রবেশ করতে না পেরে অনেকে বন্ধ ফটকের সামনে সেলফি তুলেই জলপ্রপাত দেখার স্বাদ মিটিয়ে নেন।

পর্যটক ও ব্যবসায়ীদের অভিযোগ- বন বিভাগের উদাসীনতায় দীর্ঘ দুই মাসেও অভ্যন্তরীণ রাস্তার মেরামত কাজ সম্পন্ন হচ্ছে না। সঠিক উদ্যোগ ও সমন্বয়হীনতার কারণে দেশের অন্যতম পর্যটন কেন্দ্রটির নাম দেশের মানুষ আজ ভুলতে বসেছে। ব্যবসায়ী এনাম উদ্দিন, আব্দুল হান্নান, ইমরান আহমদ, হেলাল উদ্দিন জানান, রাস্তায় সামান্য ফাটল ও ধসের কারণে ইকোপার্কের গেট বন্ধ করে দেয়ার যুক্তি তাদের বোধগম্য নয়। যখন রাস্তাঘাট পাকা ছিল না, এরচেয়ে অনেক খারাপ অবস্থায়ও মানুষজন মাধবকুণ্ড যাতায়াত করেছে।

স্থানীয় আদিবাসী গ্রাম প্রধান ওয়ানবর এল গিরি জানান, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা এসএম মনিরুল হক ১০ আগস্ট ইকোপার্কের গেট খুলার আশ্বাস দিলেও খুলে দেয়া হয়নি।

সহকারী রেঞ্জ কর্মকর্তা শেখর রঞ্জন দাস জানান, রাস্তার মেরামত কাজ ও দুর্ঘটনা এড়াতে ২১ জুনের বিভাগীয় বন কর্মকর্তার অফিস আদেশে ইকোপার্কের প্রধান ফটক তালাবদ্ধ করা হয়। বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ১০ আগস্ট খুলে দেয়ার আশ্বাস দিলেও সংস্কার কাজ সম্পন্ন না হওয়ায় তা সম্ভব হয়নি। তবে আগামী ঈদুল আজহার আগে মাধবকুণ্ড ইকোপার্ক পর্যটকদের জন্য খুলে দেয়ার চেষ্টা চলছে।

(দ্য রিপোর্ট/এজে/এনআই/আগস্ট ১১, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর



রে