thereport24.com
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৭, ৯ কার্তিক ১৪২৪,  ৩ সফর ১৪৩৯

প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা জানাতে রাস্তায় নেতাকর্মীদের ঢল

২০১৭ অক্টোবর ০৭ ০৯:৩০:০৯
প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা জানাতে রাস্তায় নেতাকর্মীদের ঢল

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে অংশগ্রহণ শেষে দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার (৭ অক্টোবর) সকাল ৯টা ২৫ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছানোর কথা রয়েছে তার। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা দিতে রাস্তায় আসা শুরু করেছেন দলটির নেতাকর্মীরা।

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ ও দলটির অন্য অঙ্গসংগঠনগুলো প্রধানমন্ত্রীকে গণসংবর্ধনা জানাতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে। শনিবার সকাল ৮টার পর থেকেই শেখ হাসিনাকে বরণ করতে বিমানবন্দর থেকে গণভবন পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে হাজার হাজার নেতাকর্মীর ভিড় জমেছে। তবে রাস্তার বাম পাশে ভিড় বেশি। হাতে বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড ও ব্যানার নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে তাদের। অনেকে সবুজ টি-শার্ট ও ক্যাপ পরে এসেছেন।

এদিকে বিমানবন্দর থেকে লা মেরিডিয়ান হোটেল এলাকায় তুরাগ থানা, বিমানবন্দর থানা ও দক্ষিণখান থানার নেতাকর্মীরা জড়ো হয়েছেন। লা মেরিডিয়ান হোটেল থেকে খিলক্ষেত ব্রিজ পর্যন্ত উত্তরা পূর্ব ও পশ্চিম থানা ও ওয়ার্ডের নেতা-কর্মীরা ভিড় জমিয়েছেন।

রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়াম থেকে কাকলি মোড় পর্যন্ত বাড্ডা, গুলশান এলাকার আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা জড়ো হয়েছেন। মহাখালী থেকে জাহাঙ্গীর গেট পর্যন্ত অবস্থান নিয়েছে তেজগাঁও ও তেজগাঁও শিল্প এলাকার নেতাকর্মীরা। এদিকে র‌্যাংগস ভবন থেকে গণভবন পর্যন্ত মোহাম্মদপুর ও শেরেবাংলা নগর এলাকার নেতাকর্মীরা জড়ো হয়েছেন।

এদিকে রাজধানীর গুলিস্তান, ফার্মগেট ও শাহবাগ এলাকায় সকাল ৮টার পর থেকে শুরু হয়েছে তীব্র যানজট। তাই এই এলাকাগুলো থেকে প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা জানাতে অনেক নেতাকর্মীকে হেঁটে রওনা দিতে দেখা গেছে।

প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা উপলক্ষে আওয়ামী লীগের এ আয়োজনে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। মোতায়েন করা হয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য। রাজধানীর রাস্তাগুলোতে জল কামান, টিয়ারশেলসহ অবস্থান নিয়েছে পুলিশ।

চলমান রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর ভূমিকা বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হওয়ায় তাকে এই সংবর্ধনা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি।
গত ২৫ আগস্ট থেকে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে দেশটির সেনাবাহিনী ও স্থানীয় বৌদ্ধদের হামলার শিকার হয়ে এ পর্যন্ত ৫ লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। নানা সমালোচনা উপেক্ষা করে প্রধানমন্ত্রী মানবিক কারণে তাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দেন। এমনকি তিনি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় শিবির পরিদর্শন করেন। সেইসঙ্গে রোহিঙ্গাদের নিরাপদে দেশে ফেরত পাঠানোর আগ পর্যন্ত বাংলাদেশে থাকার নিশ্চয়তা দেন তিনি। সম্প্রতি জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনেও রোহিঙ্গাদের অধিকার নিয়ে বক্তব্য দিয়েছেন শেখ হাসিনা।
রোহিঙ্গা ইস্যুতে তার এই ভূমিকা তথা মানবিকতা দেশে হতবাক হয়েছে বিশ্ববাসী। বিশ্বব্যাপী শরণার্থী সমস্যা মোকাবিলায় যখন বড় বড় নেতারা হিমশিম খাচ্ছেন তখন বাংলাদেশের মতো একটি ছোট দেশ ৫ লাখের বেশি শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়ে যে যোগ্যতার তথা মানবিকতার প্রমাণ দিয়েছে তাতে বিশ্ববাসীর হতবাক হওয়ারই কথা। আর তাই যুক্তরাষ্ট্র ও জাতিসংঘসহ বিভিন্ন মহল তথা বিশ্ব নেতারা প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

এই অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতেই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। তারই অংশ হিসেবে আজ শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সংবর্ধনা দিতে বিমানবন্দর থেকে গণভবন পর্যন্ত রাস্তায় থাকবেন আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা।

(দ্য রিপোর্ট/এনটি/অক্টোবর ০৭, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

রাজনীতি এর সর্বশেষ খবর

রাজনীতি - এর সব খবর



রে