thereport24.com
ঢাকা, বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪,  ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

সন্ত্রাসবাদ রুখতে সৌদি সরকারের নতুন ধর্মীয় কর্তৃপক্ষ

২০১৭ অক্টোবর ১৯ ০০:৫৫:১০
সন্ত্রাসবাদ রুখতে সৌদি সরকারের নতুন ধর্মীয় কর্তৃপক্ষ



















দ্য রিপোর্ট ডেস্ক : আলকায়েদা এবং ইসলামিক স্টেটের মতো গোষ্ঠীগুলো নবী মুহাম্মদের(স:)হাদিস এবংঅন্যান্য ধর্মীয়লেখা ব্যাখ্যা করে তাদের সন্ত্রাসী কার্যক্রমের যৌক্তিকতা তুলে ধরার চেষ্টা করে বলে মনে করে সৌদি আরব সরকার।

নবীর বাণী ব্যবহার করে কোনজঙ্গী গোষ্ঠী যেন সন্ত্রাসবাদকে জায়েজ করতে না পারে সেজন্যে সৌদি সরকার একটি নতুন ধর্মীয় কর্তৃপক্ষ গঠন করেছে। সারা বিশ্বের নাম করা ইসলামী চিন্তাবিদদের এই প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ করা হবে।

বাদশাহ সালমান পবিত্র মদিনা নগরী থেকে জারি করা এক ফরমান বলে এই ঘোষণা দেন।

সৌদি তথ্য মন্ত্রণালয় বলছে, সহিংসতা এবং অপরাধের পক্ষে সাফাই হিসেবে যেসব ভূয়া ইসলামী লেখার বরাত দেওয়া হয়, সেগুলো নির্মূল করা হবে এই প্রতিষ্ঠানের কাজ।

নবী মুহাম্মদের যেসব বাণী সংকলন করা হয়েছে ইসলাম ধর্মে সেগুলি 'হাদিস' হিসেবে পরিচিত।

ইসলামে কোরআনের পর এই হাদিসকেই বিভিন্ন বিষয়ে ধর্মীয় নীতি বা ব্যাখ্যার জন্য নির্ভরযোগ্য সূত্র হিসেবে ব্যবহার করা হয়।তবে বিভিন্ন রকম হাদিসের ব্যাখ্যা নিয়ে ধর্মীয় পন্ডিতদের মধ্যে মত পার্থক্য আছে।

সৌদি কর্তৃপক্ষ মনে করে জঙ্গী গোষ্ঠী গুলো যেভাবে হাদিসের অপব্যাখ্যা দিয়ে সন্ত্রাসবাদের পক্ষে সাফাই গাওয়ার চেষ্টা করে সেটা বন্ধে কার্যকর ব্যবস্থা দরকার। আর তা ঠেকাতেই এই উদ্যেগ।

খবর: বিবিসি বাংলা

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

বিশ্ব এর সর্বশেষ খবর

বিশ্ব - এর সব খবর



রে