thereport24.com
ঢাকা, সোমবার, ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ৯ মাঘ ১৪২৪,  ৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯

ইমার্জিং কাপ

বাংলাদেশের বিপক্ষে বিরোধিতার অভিযোগ

২০১৭ ডিসেম্বর ২৩ ১৬:১৫:১৭
বাংলাদেশের বিপক্ষে বিরোধিতার অভিযোগ

দ্য রিপোর্ট ডেস্ক : এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি) এবারের ইমার্জিং কাপ ক্রিকেট আয়োজনের দায়িত্ব দিয়েছে পাকিস্তানকে। এশিয়ার ক্রিকেট খেলিয়ে দেশগুলোর যুবদলকে নিয়ে আয়োজিত এই আসরের দায়িত্বটা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট দেশের মাটিতে ফেরাতে উন্মুখ পাকিস্তানের জন্য ছিল বিরাট একটা সুযোগ। কিন্তু অভিযোগ উঠেছে, পাকিস্তানের মাটিতে এই টুর্নামেন্ট আয়োজনের বিরোধিতা করেছে ভারত ও বাংলাদেশ।

লাহোরে এসিসির যে বৈঠকে এই টুর্নামেন্ট পাকিস্তানে আয়োজনের সিদ্ধান্ত হয়, সেটিতে উপস্থিত ছিলেন না ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) এবং বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রতিনিধিরা। গত সপ্তাহে দুবাইয়ে এসিসির বোর্ড মিটিংয়ে দুটি দেশের ক্রিকেট বোর্ড এ ব্যাপারে সরাসরি বিরোধিতা করেছে। তাদের যুক্তি, পাকিস্তানের খেলার ব্যাপারে অনেক দলেরই নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। এশিয়ান ইমার্জিং ন্যাশনস কাপের জন্য নতুন ভেন্যুরও দাবি করেছে বিসিবি ও বিসিসিআই।

তবে পিসিবির এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, পিসিবি যেকোনো মূল্যে আসরটি পাকিস্তানের মাটিতে আয়োজন করতে চায়। বার্তা সংস্থা পিটিআইকে পিসিবির সেই কর্তা বলেন, ‘এশিয়ান ইমার্জিং ন্যাশনস কাপ আয়োজনের জন্য আমরা নিজেদের ক্ষমতার মধ্যে যথাসম্ভব সব রকম চেষ্টাই করব।’

পাকিস্তান এ আসর আয়োজনের অনুমতি পেলেও ভারত ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের আপত্তি থাকায় আপাতত তা স্থগিত রয়েছে। যদিও পাকিস্তানের কাছ থেকে আয়োজনের স্বত্ব কেড়ে নেওয়া হয়নি। তবে এই অনিশ্চয়তার জন্য বিসিসিআইকেই বেশি দুষেছেন পিসিবির সেই কর্মকর্তা, ‘প্রধানত এর বিরোধিতা করেছে ভারত। রাজনৈতিক কারণে তারা পাকিস্তানে দল পাঠাতে পারবে না। তবে এ নিয়ে ভেন্যু নির্বাচনের আগে এ নিয়ে আলোচনা করা উচিত ছিল।’

ভারত ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের আপত্তি প্রসঙ্গে পিটিআইকে পিসিবি অফিশিয়াল বলেন, ‘লাহোরে গত ২৯ অক্টোবর এসিসির বৈঠকে আসরটি আয়োজনের স্বত্ব পেয়েছিল পাকিস্তান। ভারত ও বাংলাদেশের কোনো প্রতিনিধি সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না। তারা একটি ইস্যু ধরে নেওয়া সিদ্ধান্তের ব্যাপারে এসিসির পরিচালকমণ্ডলীদের সঙ্গে যথাসম্ভব যোগাযোগও করেছে। তবে আগামী বছরের বৈঠকে পিসিবি এ নিয়ে আলোচনা করবে এবং আসরটি আয়োজনের স্বত্ব ধরে রাখার ব্যাপারে চেষ্টা চলবে।’

গত ২৯ অক্টোবর লাহোরে একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে এসেছিল শ্রীলঙ্কা দল। তখন পিসিবি-প্রধান নাজাম শেঠি জানিয়েছিলেন, আগামী এপ্রিলে এশিয়ান ইমার্জিং ন্যাশনস কাপের আয়োজন করবে পাকিস্তান। এর আগে ২০০৯ সালে পাকিস্তানের মাটিতে শ্রীলঙ্কা দলের টিমবাসে সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে আর কোনো বড় দল দেশটি সফরে যায়নি। এ ছাড়া পাকিস্তানও বড় কোনো আন্তর্জাতিক আসর আয়োজনের অনুমতি পায়নি।

এই অচলাবস্থা থেকে পাকিস্তান যখন ধীরে ধীরে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে, ঠিক তখনই ভারত বাধা সৃষ্টি করছে বলে মনে করছেন দেশটির সাবেক টেস্ট ক্রিকেটার জালালউদ্দিন। ভারত পাকিস্তানের ক্রিকেটকে ‘স্যাবোটাজ’-এর চেষ্টা করছে বলে মনে করেন সাবেক এ পেসার, ‘পাকিস্তান ক্রিকেট যেসব ব্যাপারে জড়িত, তার সবখানেই হস্তক্ষেপ করছে ভারত। যার অর্থ হলো, তারা এখানে (পাকিস্তান) আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের পুনরুত্থানের বিপক্ষে।’

(দ্য রিপোর্ট/জেডটি/ডিসেম্বর ২৩, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর



রে