thereport24.com
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ আগস্ট ২০১৮, ৬ ভাদ্র ১৪২৫,  ৯ জিলহজ ১৪৩৯

প্রধানমন্ত্রী নিজে কোটার বিষয়টি দেখছেন: পরিকল্পনামন্ত্রী

২০১৮ মে ১৪ ২১:১৪:০০
প্রধানমন্ত্রী নিজে কোটার বিষয়টি দেখছেন: পরিকল্পনামন্ত্রী

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক: পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে কোটার বিষয়টি দেখছেন।

রাজধানীর শেরেবাংলানগরে সোমবার দুপুরে নিজ কার্যালয়ে তাৎক্ষণিক এক সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন তিনি।

মুস্তফা কামাল জানান, মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে শেখ হাসিনা বলেছেন যে কোটা নিয়ে কারও চিন্তা করার কোনো কারণ নেই। আমি নিজেই ব্যাপারটি দেখছি।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বিষয়টির দ্রুত সুরাহা করবেন। একটি স্থায়ী সমাধান দেবেন। তাই ভাবছেন এবং সময় নিচ্ছেন। এর একটি সঠিক ও গ্রহণযোগ্য সমাধান দেবেন তিনি।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, কোটা সংস্কারের পাশাপাশি এই আন্দোলনে জড়িতদের মধ্যে যারা অছাত্র, তাদেরও বিচার করা হবে। খতিয়ে দেখা হচ্ছে, এই আন্দোলনের কারণ কী।

এদিকে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম জানান, সরকারি চাকরিতে কোটার বিষয়ে দ্রুতই সিদ্ধান্ত পাওয়া যাবে।

প্রধানমন্ত্রীর কোটা বাতিলের ঘোষণার পর ৭ মে পর্যন্ত প্রজ্ঞাপন জারির সময় বেঁধে দেয় আন্দোলনকারীরা। এর মধ্যে প্রজ্ঞাপন জারি না হওয়ায় আবার রাজপথে নামে তারা। এরপর রবিবার বিকেল ৫টার মধ্যে প্রজ্ঞাপন জারির দাবি জানায় আন্দোলনকারীরা।

রবিবার পর্যন্ত প্রজ্ঞাপন জারি না হওয়ায় সোমবার থেকে তারা অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে ধর্মঘটের ঘোষণা দেয় বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের কেন্দ্রীয় শাখা।

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, সোমবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করেন পরিষদের কেন্দ্রীয় শাখা। ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে মিছিলটি শাহবাগে গিয়ে শেষ হয়। এরপরই সড়ক অবরোধে করে ফেলেন আন্দোলনকারীরা।

একই দাবিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, কুমিল্লা, খুলনা, বরিশাল, নোয়াখালীসহ দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করে আন্দোলনকারীরা।

সন্ধ্যায় সংবাদ সম্মেলন করে সড়ক অবরোধ স্থগিত ঘোষণা করা হয় পরিষদের পক্ষ থেকে। পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন বলেন, কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপন দ্রুত জারি করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তার কথায় আস্থা ও বিশ্বাস রেখে আমরা আজকের মতো আমাদের কর্মসূচি স্থগিত করছি।

তবে সব কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির অংশ হিসেব ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন অব্যাহত থাকবে বলে উল্লেখ করেন।

(দ্য রিপোর্ট/এমএসআর/মে ১৪, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর



রে