thereport24.com
ঢাকা, রবিবার, ২৭ মে ২০১৮, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫,  ১০ রমজান ১৪৩৯

খালেদার জামিন : গ্রেপ্তারি মামলার সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি

২০১৮ মে ১৬ ১৮:২৯:১১
খালেদার জামিন : গ্রেপ্তারি মামলার সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। কিন্তু অন্য কত মামলায় খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে এ নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন তথ্য দিয়েছেন তার আইনজীবীরা।

বুধবার (১৬ মে) আপিল বিভাগের রায়ের পর খালেদা জিয়ার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেছেন, ‘বর্তমানে তিনটি মামলা আছে। দুটি কুমিল্লায় ও একটি নড়াইলে। এসব মামলায় তার জামিন নিতে হবে। সরকার যদি অশুভ প্রচেষ্টা না চালায় তাহলে তিনি এসব মামলায় জামিন নিয়ে দ্রুতই ছাড়া পাবেন।’

অপরদিকে বিএনপির চেয়ারপারসনের আরেক আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, ‘এখন পর্যন্ত সাতটি মামলা আছে। তিনটি কুমিল্লায়, দুটো ঢাকায় ও একটি নড়াইলে।’ সাত মামলার কথা বলা হলেও মওদুদ আহমদের হিসাব অনুযায়ী মামলার সংখ্যা দাঁড়ায় ছয়টি।

এসব মামলায় জামিন প্রসঙ্গে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘যেহেতু আপিল বিভাগ এই মামলায় তার জামিন বহাল রেখেছে এখন নিম্ন আদালতে জামিন পেতে আমাদের খুব বেশি অসুবিধা হবে না। অতি দ্রুত এই মামলাগুলো জামিন পাওয়ার পর বেগম জিয়া আমাদের মাঝে ফিরে আসবেন।’

খালেদা জিয়ার আরেক আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া আপিল বিভাগের রায়ের পর বলেছেন, ‘জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়া জামিন পেলেও অন্য মামলায় গ্রেপ্তার থাকায় আপাতত মুক্তি পাচ্ছেন না। খালেদা জিয়াকে কুমিল্লায় তিন, ঢাকায় দুই ও নড়াইলের একটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।’

কুমিল্লার মামলাগুলো কী, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘একটি বিশেষ ক্ষমতা আইনে,একটি ৩০২ ধারা (হত্যা মামলা) ও অপরটি বিস্ফোরক আইনে করা হয়েছে। বাকি তিনটি মামলাই মানহানির।’

সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, ‘এই ছয়টি মামলায় নিম্ন আদালতে আমরা জামিন পাইনি। হাইকোর্টে জামিনের প্রস্তুতি নিচ্ছি।’ তিনি বলেন, ‘বড় পুকুরিয়া, গ্যাটকো, নাইকো, জিয়া চ্যারিটেবল এই চারটি মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে প্রডাকশন ওয়ারেন্ট রয়েছে। এগুলো প্রত্যাহারের আবেদন করা হবে।’

সানাউল্লাহ মিয়া বলেন,‘খালেদা জিয়ার কারামুক্তিতে আরো ৬ মামলায় জামিন পেতে হবে। এর মধ্যে চার মামলায় প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট, এগুলো প্রত্যাহার করতে হবে। কুমিল্লা, নড়াইল এবং ঢাকাতে এ মামলাগুলো রয়েছে। তার বিরুদ্ধে সর্বমোট মামলা ৩৬টি।’

খালেদা জিয়ার মামলা প্রসঙ্গে বিএনপির আইন সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, ‘তার বিরুদ্ধে সর্বমোট ৩৬টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে শুধু দুটি মামলায় প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট (হাজিরা পরোয়ানা) রয়েছে। খালেদা জিয়ার মামলার সব ফাইল আমার কাছেই থাকে। এখন সরকার বাধা সৃষ্টি না করলে এসব মামলাতেও তাঁর জামিনে মুক্তিতে বাধা থাকবে না।’

খালেদা জিয়ার জামিনে কারামুক্তিতে আর কত মামলায় জামিন পেতে হবে জানতে চাইলে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, ‘এ বিষয়ে আমি জানি না। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ভালো বলতে পারবে।’

(দ্য রিপোর্ট/এনটি/মে ১৬, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর



রে