thereport24.com
ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫,  ৮ মহররম ১৪৪০

কুষ্টিয়ায় বাসের ধাক্কায় আহত সেই শিশু মারা গেছে

২০১৮ আগস্ট ৩০ ১০:৫৩:৪৪
কুষ্টিয়ায় বাসের ধাক্কায় আহত সেই শিশু মারা গেছে

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ায় যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় আহত শিশু আকিফা ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে।

বৃহস্পতিবার ভোরে চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত শিশু আকিফার বাবা হারুন উর রশিদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গেলো মঙ্গলবার দুপুরে কুষ্টিয়ার চৌড়হাসে যাত্রীবাহী বাস দিয়ে পথচারী মা মেয়েকে ধাক্কা দেয় বাস চালক। এতে মা ও শিশু মেয়ে গুরুতর আহত হন। স্থানীয়দের সহায়তায় আহত মা ও মেয়েকে উদ্ধার করে নেয়া হয় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে। শিশুটির অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শিশুটির মা আশংকামুক্ত।

অভিযোগ ওঠে ওই যাত্রীবাহী বাস ইচ্ছে করে মা-মেয়েকে ধাক্কা দেয়। মঙ্গলবার বেলা ১১টা ৪৪ মিনিটে চৌড়হাস বাসস্ট্যান্ডে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি পাশের একটি সোনার দোকানের সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে। সিসি ক্যামেরায় দেখা যায়, রাজশাহী থেকে ফরিদপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা গঞ্জেরাজ (ঢাকা মেট্রো-গ-১৪-০১৭৭) নামের একটি বাস কুষ্টিয়ার চৌড়হাস মোড়ে এসে থামে। বাসটি সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে ছিল। এই সময়ে একজন নারী তার শিশু কন্যাকে কোলে নিয়ে ওই বাসের সামনে দিয়ে হেটে যাচ্ছিল। হঠাৎ কোন হর্ন ছাড়াই চালক বাসটি চালিয়ে এসে মা রিনা বেগমকে ধাক্কা দেয়। এতে মায়ের কোল থেকে রাস্তার উপর ছিটকে পড়ে আহত হয় শিশু আকিফা। ভিডিওতে দেখে মনে হচ্ছে বাস চালক ইচ্ছে করেই ওই মা মেয়েকে চাপা দিয়েছে। ঘটনা ঘটার পর দ্রুত বাসটি পালিয়ে যায়।

এদিকে ওই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেছে ওই বাসের চালক এবং হেলপারের বিরুদ্ধে।

বুধবার সকাল ১১টায় ঘটনাস্থল ওই চৌড়হাস বাসস্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে ওই বাসের চালকের শাস্তি দাবীতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। এতে স্কুলের শিক্ষার্থীরা, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পেশাজীবী ও এলাকার জনসাধারণ অংশ নেয়। এসময় পুলিশের আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দিলে ঘণ্টব্যাপী চলা এই মানববন্ধন শেষ হয়।

(দ্য রিপোর্ট/এমএসআর/আগস্ট ৩০, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর



রে