thereport24.com
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫,  ৪ রবিউস সানি ১৪৪০

রায়ে সন্তুষ্ট রাষ্ট্রপক্ষ, সাজা বেআইনি দাবি আসামিপক্ষের

২০১৮ অক্টোবর ১০ ১৪:১৩:৩৬
রায়ে সন্তুষ্ট রাষ্ট্রপক্ষ, সাজা বেআইনি দাবি আসামিপক্ষের

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলার রায়ে সন্তোষ জানিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের বেশ কয়েকজন আইনজীবী। এদিকে রায়ে তারেক রহমানকে বেআইনিভাবে সাজা দেওয়া হয়েছে বলে দাবি জানিয়েছেন আসামিপক্ষের আইনজীবী।

বুধবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে রায় ঘোষণার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তারা এ সন্তোষ-অসন্তোষ প্রকাশ করেন।

সুপ্রিম কোর্টের প্রবীণ আইনজীবী ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন বলেন, ‘রায় হয়েছে। এর মাধ্যমে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হলো।’

অপর আইনজীবী গোলাম আরিফ টিপু বলেন, ‘নারকীয় হত্যাকাণ্ড যারা ঘটিয়েছিল তাদের প্রত্যেকের সাজা হয়েছে। এ রায়ে আমরা খুশি।’

রাষ্ট্রপক্ষের চিফ প্রসিকিউটর সৈয়দ রেজাউর রহমান বলেন, রায় পর্যালোচনা করার পর যদি মনে হয় করো সাজা কম হয়েছে তখন আমরা উচ্চ আদালতে সাজা বৃদ্ধির আবেদন জানাব।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, ‘১৯৭৫ এর ১৫ আগস্টের নারকীয় হত্যাকাণ্ডের পর ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা সংঘটিত হয়। ইতিহাসের নারকীয় এই হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের সাজা হয়েছে। এর মাধ্যমে নিষ্পত্তি হলো। এ জন্য আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জানাই। ১৯ জনের ফাঁসি হয়েছে, তারেক রহমানসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবন হয়েছে। এ জন্য শুকরিয়া জানাই।’

‘তারপরও আমরা রায়টি নিয়ে পর্যালোচনা করব। সিনিয়র সঙ্গে আলাপ করে এ বিষয়ে পরবর্তী করণীয় ঠিক করা হবে।’

এদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া বলেছেন, তারেক রহমান কোনো অন্যায় করেননি। তিনি নির্দোষ। তাকে বেআইনিভাবে সাজা দেওয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘অভিযোগে বলা হয়েছে তারেক রহমান মিটিং করেছেন। কিন্তু তারেক রহমানের সঙ্গে পিন্টু কিংবা লুৎফুজ্জামান বাবরের দেখা হয়নি। এছাড়া কোনো সাক্ষী এসে বলেনি যে, তারেক রহমান এ বোমা হামলার ঘটনায় জড়িত।’

আসামিপক্ষের এই আইনজীবী বলেন, ‘হামলায় তারেক রহমানের কোনো সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়নি। তিনি নির্দোষ। তাকে অন্যায়ভাবে সাজা দেওয়া হয়েছে।

‘আমরা আশা করেছিলাম তারেক রহমানসহ বিএনপি নেতারা এই মামলায় খালাস পাবেন। কিন্তু এ মামলার রায়ে আমরা খুশি হতে পারিনি।’

উল্লেখ্য, বুধবার ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে। রায়ে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে। মামলার অপর ১৯ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এছাড়া বাকি ১১ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

(দ্য রিপোর্ট/এনটি/অক্টোবর ১০, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর