thereport24.com
ঢাকা, রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫,  ৭ রবিউস সানি ১৪৪০

ঢাকায় পৌঁছেছে ‘হংসবলাকা’

২০১৮ ডিসেম্বর ০২ ০৮:৩৩:২৯
ঢাকায় পৌঁছেছে ‘হংসবলাকা’

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সংবলিত ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার ‘হংসবলাকা’ যুক্তরাষ্ট্র থেকে ঢাকায় এসে পৌঁছেছে।

শনিবার (১ ডিসেম্বর) রাত ১১টা ৪০ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নিরাপদে অবতরণ করে এটি। যুক্তরাষ্ট্রে সিয়াটলের এভারেট থেকে কোনও যাত্রাবিরতি ছাড়াই টানা ১৫ ঘণ্টা উড়ে ঢাকায় এসেছে হংসবলাকা।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে রোববার (২ ডিসেম্বর) এসব কথা বলা হয়েছে।

বিজি-২১১২ ফ্লাইটটি পরিচালনা করেন চার পাইলট স্মল স্কি, মো. আমিনুল, শোয়েব চৌধুরী ও ফার্স্ট অফিসার আনিতা রহমান। ফ্লাইট পার্সার শবনম কাদিরসহ কেবিন ক্রু হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন পাঁচজন।

শনিবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৮টায় উড্ডয়ন করে এই আকাশযান। তার আগে এভারেটে লাল ফিতা কেটে নতুন ড্রিমলাইনারের যাত্রার উদ্বোধন হয়।

দেশের পতাকাবাহী এয়ারলাইনসের আরেকটি ড্রিমলাইনার ফ্লাইট বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

জানা গেছে, শুক্রবার রাত ১টায় বিমানের দ্বিতীয় ড্রিমলাইনার যুক্তরাস্ট্র ত্যাগ করার কথা ছিল। সব কিছু চূড়ান্ত হবার পর বিমানের ক্রু এবং বোয়িং এর পাইলট বিমানের ককপিটে উঠে বসেন।

ঢাকা থেকে যারা গেছেন তারাও বিমানে আসন নেন। বিমানটি এয়ারফিল্ডে নেয়ার পর পাইলট জানতে পারেন উড়োজাহাজের ইঞ্জিনের রিডিং এ ত্রুটি রযেছে। তাৎক্ষণিক তিনি বিষয়টি বোয়িং কর্তৃপক্ষকে জানান।

এরপর বোয়িং এর প্রকৌশলীরা প্রায় ৫ ঘণ্টা পরীক্ষা নিরীক্ষার পর ইঞ্জিনের রিডিং ত্রুটি মেরামত করে ড্রিমলাইনারকে যাত্রার জন্য প্রস্তুত করেন।

উল্লেখ্য, এই বিমানটি বাংলাদেশে পৌঁছলে দেশের বিমানবহরে উড়োজাহাজের সংখ্যা হবে ১৫টি।

এর আগে গত ১৯ আগস্ট প্রথম ড্রিমলাইনার 'আকাশবীণা' ঢাকায় আসে। আসন্ন দ্বিতীয় বিমানটির নাম দেয়া হয়েছে হংসবলাকা।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ১০ ডিসেম্বর থেকে ড্রিমলাইনার আকাশে উড়বে। ওই দিন থেকে ২৭১ আসনের ড্রিমলাইনারে ঢাকা-লন্ডন রুটে সপ্তাহে ৬টি, ঢাকা-দাম্মাম রুটে সপ্তাহে ৪টি এবং ঢাকা-ব্যাংকক রুটে সপ্তাহে ৩টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।

ড্রিমলাইনার ঘণ্টায় ৬৫০ কিলোমিটার বেগে উড়তে সক্ষম। উড়োজাহাজের শব্দ কমাতে ইঞ্জিনের সঙ্গে শেভরন প্রযুক্তি যুক্ত রয়েছে।

বিমানটি নিয়ন্ত্রিত হবে ইলেকট্রিক ফ্লাইট সিস্টেমে। কম্পোজিট ম্যাটেরিয়াল দিয়ে তৈরি হওয়ায় বিমান ওজনে হালকা।

ভূমি থেকে বিমানটির উচ্চতা ৫৬ ফুট। দুটি পাখার আয়তন ১৯৭ ফুট। এর মোট ওজন ১ লাখ ১৭ হাজার ৬১৭ কিলোগ্রাম, যা ২৯টি হাতির সমান! এর ককপিট থেকে টেল (লেজ) পর্যন্ত ২৩ লাখ যন্ত্রাংশ রয়েছে।

(দ্য রিপোর্ট/এনটি/ডিসেম্বর ০২, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর