thereport24.com
ঢাকা, সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫,  ১ রবিউস সানি ১৪৪০

রংপুর ৬ আসনে আ. লীগের প্রার্থী শিরীন শারমিন

২০১৮ ডিসেম্বর ০৭ ০৯:৩৩:২২
রংপুর ৬ আসনে আ. লীগের প্রার্থী শিরীন শারমিন

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রংপুর-৬ (পীরগঞ্জ) আসনে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীকে ছেড়ে দিচ্ছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

স্পিকারকে নিজের মেয়ের মতো উল্লেখ করে তাকে জেতানোর জন্য পীরগঞ্জ আওয়ামী লীগকে নির্দেশ দেন শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) গণভবনে তার সরকারি বাসভবনে পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা দেখা করতে গেলে তিনি এ নির্দেশ দেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বামী প্রয়াত পরমাণু বিজ্ঞানী ড. ওয়াজেদ মিয়ার বাড়িও পীরগঞ্জে। এই আসনসহ গোপালগঞ্জ-৩ আসনেও মনোনয়ন দাখিল করেছিলেন শেখ হাসিনা। তবে, পীরগঞ্জে তার পাশাপাশি স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীও মনোনয়ন দাখিল করেন। প্রধানমন্ত্রীর আজকের ঘোষণার মাধ্যমে তিনি নিশ্চিত করলেন স্পিকারই হচ্ছেন এ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী। প্রধানমন্ত্রী শুধু একটি আসনেই নির্বাচন করছেন।

আগামী ৯ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। তার আগেই প্রধানমন্ত্রী এ আসনের চূড়ান্ত প্রার্থী নির্বাচন ও তার পক্ষে গণসংযোগের জন্য পীরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, দলীয় ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা অওয়ামী লীগ, ১৫টি ইউনিয়ন ও পৌরসভা অওয়ামী লীগ এবং ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি-সম্পাদককে ঢাকায় গণভবনে আমন্ত্রণ জানান। বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী দিনব্যাপী মতবিনিময়ের পর এ আসনে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীকে প্রার্থী ঘোষণা করে পীরগঞ্জবাসীর হাতে তুলে দেন বলে সূত্রে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র তাজিমুল ইসলাম শামীম বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে ঢাকায় এসে আমরা স্পিকারকে আবারও এবং সরাসরি সংসদ প্রার্থী হিসেবে পেলাম। এখন ভোটের জন্য অপেক্ষা। আশা করি, পীরগঞ্জবাসী আবারও বিপুল ভোটে তাকে বিজয়ী করবে।’

এ আসনে দশম সংসদ নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী বিজয়ী হন। পরে উপ-নির্বাচনে স্পিকার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। শ্বশুরবাড়ির এ আসন থেকে প্রধানমন্ত্রী ১৯৯৬ সাল থেকেই সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হয়ে আসছেন। আসন্ন একাদশ সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে এখানে প্রার্থী হিসেবে গত ২৭ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী এবং স্পিকার দু’জনই মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। কে প্রার্থী হচ্ছেন এত দিন দলীয় নেতাকর্মীসহ কারও কাছেই তা স্পষ্ট ছিল না। প্রত্যাহারের সময়সীমার আগেই প্রধানমন্ত্রীর এ ঘোষণায় প্রার্থিতার বিষয়ে অস্পষ্টতা দূর হলো।

(দ্য রিপোর্ট/এমএসআর/ডিসেম্বর ০৭, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

রাজনীতি এর সর্বশেষ খবর

রাজনীতি - এর সব খবর