thereport24.com
ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬,  ২০ মহররম 1441

সব গিরাব্যাথাই কি বাতজ্বর?

২০১৯ এপ্রিল ০৫ ১০:১৭:৩৬
সব গিরাব্যাথাই কি বাতজ্বর?

ডা. মো. শাহিনুর রহমান: বাতজ্বর বাংলাদেশে একটি বহুল পরিচিত সমস্যা। জ্বরের সঙ্গে গিরা ব্যাথা থাকলেই অনেকে বাতজ্বর হয়েছে বলে সন্দেহ করেন এবং বছরের পর ইনজেকশন নেন। কিন্তু গিরা ব্যাথা মানেই বাতজ্বর নয়। আবার বাতজ্বরের সাঠিক চিকিৎসা না করলে পরে হার্টের বালভে সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই এই রোগের সঠিক কারণ নির্ণয় করা যেমন প্রয়োজন, তেমনি দরকার সঠিক চিকিৎসা।

বাতজ্বর মূলত ৫ থেকে ১৫ বছর বয়সে হয়ে থাকে। ৩০ এর পর হয়না বললেই চলে। গিরা ব্যাথা একটি গুরুত্বপুর্ণ উপসর্গ, কিন্তু একমাত্র নয়। এ রোগে বড় গিরাগুলো একের পর এক লাল হয়ে ফুলে যায় ও তীব্র ব্যাথা হয়। একটা কমলে আর একটা শুরু হয়। অনেকের দুই তিন সপ্তাহ আগে গলাব্যাথার ইতিহাস থাকে। মনে রাখবেন, গিরায় সমস্যা না হয়ে শুধু শরীর বা হাড়ে ব্যাথা বা কামড়ানো বাতজ্বরের লক্ষণ নয়। অনেক সময় গিরা ব্যাথার সঙ্গে রক্তের একটি পরীক্ষা করা হয়। এএসও টাইটার। এটা বেশি হলেই বাতজ্বরের চিকিৎসার করা হয়। কিন্তু এটা নিশ্চিত কোন পরীক্ষা নয়। বাতজ্বরের গুরুত্বপুর্ণ লক্ষণ হলো গিরা ব্যাথা ও ফোলার সঙ্গে বুক ধড়ফড়, শ্বাসকষ্ট, বুক ব্যাথা, হাত পায়ের অনিয়ন্ত্রিত নড়াচড়া ত্বকে লাল লাল চাকা চাকা, গুটি ইত্যাদি।

বাতজ্বরের রোগীদের দীর্ঘমেয়াদি পেনিসিলিন ইনজেকশান বা বড়ি দেওয়ার উদ্দেশ্য হার্টের ভালবের সুরক্ষা। এটা গিরা ব্যাথার চিকিৎসা নয়। নানা ধরনের বিভ্রান্তির জন্য আমাদের দেশে অনেকের বাতজ্বর না হলেও পেনিসিলিন দেয়া হয়। আবার অনেকের অন্য কোন বাতজ্বর আছে কি না, তা নির্ণয় করা হয় না। তাই এ রোগের সঠিক শনাক্তকরণ ও চিকিৎসার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

লেখক
ডা. মো. শাহিনুর রহমান
শেখ বদরুদ্দিন হোমিও চেম্বার
৪২/২ ঢালকানগর লেন- গেণ্ডারিয়া ঢাকা-১২০৪
মোবাইল নম্বর-০১৭১১-১৩৮-১৩৫

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

স্বাস্থ্য এর সর্বশেষ খবর

স্বাস্থ্য - এর সব খবর