thereport24.com
ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬,  ১৪ রমজান ১৪৪০

মহাসড়ক থেকে গতিরোধক-বিদ্যুতের খুঁটি সরানোর সুপারিশ

২০১৯ মে ১৬ ২০:৪৫:৫৩
মহাসড়ক থেকে গতিরোধক-বিদ্যুতের খুঁটি সরানোর সুপারিশ

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : দেশের সব মহাসড়ক থেকে গতিরোধক (স্পিডব্রেকার) ও বৈদ্যুতিক খুঁটি সরিয়ে নেওয়ার সুপারিশ করেছে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। এছাড়া ঈদে ঘরমুখো মানুষের যাত্রা নিরাপদ করতে সড়ক বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সব ধরনের ছুটি বাতিল এবং বাসের আগাম টিকিট কালোবাজারে বিক্রি বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে এসব সুপারিশ করা হয়। কমিটি সভাপতি একাব্বর হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে অংশ নেন কমিটির সদস্য এনামুল হক, হাসিবুর রহমান স্বপন, আবু জাহির, ছলিম উদ্দীন তরফদার, শেখ সালাহউদ্দিন, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা ও রাবেয়া আলীম।

সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বৈঠকে এ মন্ত্রণালয়ের অধীনে বাস্তবায়নাধীন মেগা প্রকল্পগুলো সঠিক সময়ে বাস্তবায়নের সুপারিশ করা হয়েছে।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, সভায় জানানো হয়, পদ্মা সেতু প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি হয়েছে ৬৭ ভাগ। ২০২০ সালের ডিসেম্বর থেকে ২০২১ সালের এপ্রিল মাসের মধ্যে এ সেতুতে গাড়ি চলাচল শুরু করা যাবে। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের চলমান ১৭৮টি প্রকল্পের অগ্রগতি ৫৪ দশমিক ৫২ শতাংশ।

বৈঠকে সেতু বিভাগ এবং সড়ক বিভাগ ও মহাসড়ক বিভাগের আওতাধীন সংস্থাসমূহের প্রকল্পের বর্তমান অবস্থান ও অগ্রগতি তুলে ধরা হয়।

পদ্মা সেতুর কার্যক্রম সম্পর্কে বৈঠকে জানানো হয়, বর্তমান সরকার দেশের সব অঞ্চলের মধ্যে সুষ্ঠু ও সমন্বিত যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্যে মাওয়া-জাজিরা অবস্থানে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি ৩৮ লাখ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে বাংলাদেশ সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে এই অবকাঠামোর বাস্তবায়ন কাজ পুরোদমে এগিয়ে চলছে। ইতোমধ্যে ১২টি স্প্যান স্থাপনের মাধ্যমে সেতুর ১ দশমিক ৮০ কিলোমিটার দৃশ্যমান হয়েছে। এপ্রিল ২০১৯ পর্যন্ত পদ্মা সেতু প্রকল্পের সার্বিক ভৌত অগ্রগতি ৬৭ শতাংশ। পদ্মা সেতু নির্মাণ প্রকল্পের কাজ সংসদীয় স্থায়ী কমিটি কর্তৃক সরেজমিন পরিদর্শনের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রণালয়কে উদ্যোগ গ্রহণের সুপারিশ করা হয়।

কমিটি আসন্ন পবিত্র ঈদুল-ফিতর উপলক্ষে ঘরমুখো মানুষের নিরাপদে বাড়ি পৌঁছাতে এবং মহাসড়কে যানজট কমাতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে। বৈঠকে মহাসড়কের পাশে বৈদ্যুতিক খুঁটি এবং গতিরোধক অপসারণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রণালয়কে উদ্যোগ গ্রহণের কথা বলা হয়। তবে এক্ষেত্রে কোনো সময়সীমা বেঁধে দেয়া হয়নি।

বৈঠকের কার্যপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, রাজধানীর যানজট নিরসনে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুতুবখালী পর্যন্ত র‌্যাম্পসহ ৪৬ দশমিক ৭৩ কিলোমিটার দীর্ঘ ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাজ চলছে। গত এপ্রিল পর্যন্ত ১ হাজার ৩২৩টি ওয়ার্কিং পাইল ড্রাইভিং, ২৮৯টি পাইল ক্যাপ, ৬৯টি ক্রস বীম, ১৭১টি কলাম (সম্পূর্ণ), ১০৩টি কলাম (প্রথম পর্যায়) এবং ১৮৬টি আই গার্ডার কাস্টিং সম্পন্ন হয়েছে। এর মধ্যে ৯টি স্প্যানে আই গার্ডার স্থাপন করা হয়েছে।

(দ্য রিপোর্ট/একেএমএম/ মে ১৬,২০১৯)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর