thereport24.com
ঢাকা, রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯, ৬ শ্রাবণ ১৪২৬,  ১৭ জিলকদ  ১৪৪০

৯ শতাংশ সুদহার : ব্যর্থ ব্যাংক এডিপির আমানত পাবে না

২০১৯ মে ২১ ১২:৪১:২৯
৯ শতাংশ সুদহার : ব্যর্থ ব্যাংক এডিপির আমানত পাবে না

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক: যেসব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান ঋণের সুদহার ৯ শতাংশে নামিয়ে আনতে পারেনি সেসব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান এখন থেকে সরকারের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) অর্থ আমানত হিসেবে পাবে না। এ বিষয়ে সোমবার অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

সরকারের নিয়ম অনুযায়ী এডিপির অর্থ আমানত হিসেবে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে ছয় শতাংশ সুদে গচ্ছিত রাখে। এখন নতুন নিয়মে যে সকল ব্যাংক বিগত গত বছরের ২ আগস্ট প্রদত্ত প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ঋণের সুদের হার ৯ শতাংশে নামিয়ে আনতে ব্যর্থ হয়েছে তারা এ সুবিধা পাবে না।

এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা-স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য এডিপির আওতায় সরকার থেকে প্রাপ্ত তহবিল এবং সরকারি, আধা-সরকারি প্রতিষ্ঠান, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা-স্বায়িত্তশাসিত সংস্থার মোট নিজস্ব তহবিলের অর্থ বাংলাদেশ ব্যাংকিং ব্যবসায় নিয়োজিত সকল ব্যাংকে অথবা এ বিভাগ কর্তৃক বর্ণিত অ-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠানে (এনবিএফআই) অথবা উভয় ধরনের প্রতিষ্ঠানে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে স্পেশাল নোটিশ ডেপোজিট (এসএনডি), সঞ্চয়ী হিসাব স্থায়ী আমানতে (এফডিআর) সর্বোচ্চ ছয় শতাংশ হারে আমানত রাখা যাবে। তবে যে সকল ব্যাংক গত বছরের ২ আগস্ট প্রদত্ত প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ঋণের সুদের হার ৯ শতাংশে নামিয়ে আনতে ব্যর্থ হয়েছে তারা এ সুবিধা প্রাপ্য হবে না।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২ মে সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের কাছে ব্যাংক মালিকরা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন- তারা ঋণের সুদের হার ৯ শতাংশে নামিয়ে আনবেন। কিন্তু সরকারি ব্যাংক ছাড়া অধিকাংশ ব্যাংক এ প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেনি।

এর আগে গত বছরের ১ আগস্ট আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছিল, বাংলাদেশে ব্যাংকিং ব্যবসায় নিয়োজিত বেসরকারি ব্যাংকসমূহে অথবা ১৪টি অ-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠান (এনবিএফ) অথবায় উভয় ক্ষেত্রে স্বায়ত্তশাসিত ও আধা-স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য এডিপির আওতায় সরকার থেকে প্রাপ্ত তহবিলের সর্ব্বোচ্চ ৫০ পর্যন্ত আমানত হিসেবে জমা রাখা যাবে।

(দ্য রিপোর্ট/এমএসআর/মে ২১, ২০১৯)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

অর্থ ও বাণিজ্য এর সর্বশেষ খবর

অর্থ ও বাণিজ্য - এর সব খবর