thereport24.com
ঢাকা, রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ২ ভাদ্র ১৪২৬,  ১৫ জিলহজ ১৪৪০

মানুষের ভালোবাসার ঋণ শোধের জন্য ব্যক্তিগত উদ্যোগে কাজ করছি: সোহেল তাজ

২০১৯ জুলাই ১৯ ১০:৪৬:২৬
মানুষের ভালোবাসার ঋণ শোধের জন্য ব্যক্তিগত উদ্যোগে কাজ করছি: সোহেল তাজ

দ্য রিপোর্ট ডেস্ক: বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদের পুত্র ও সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমেদ সোহেল তাজ বলেছেন, ‘আমার পরিচিতি আছে, মানুষ আমাকে সম্মান দিয়েছে, আমি সেটা কাজ লাগাবো মানুষের কল্যাণের জন্য। আমি মানুষের ভালোবাসার ঋণ পরিশোধের জন্য ব্যক্তিগতভাবে কাজ করছি।’

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) রাতে একাত্তর জার্নালের ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেছেন তিনি।

সামাজিক বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরা এবং সুস্বাস্থ্যের প্রতি নজর দিতে মানুষকে সচেতন করতে ‘হটলাইন কমান্ডো’ নামে একটি টেলিভিশন রিয়্যালিটি শো নিয়ে আসার ব্যাপারে সোহেল তাজ বলেছেন, ‘এটা আমার ব্যক্তিগত উদ্যোগ। আমি মানুষের ভালোবাসার প্রতিদান, ঋণ পরিশোধের একটা উপায় হিসেবে দেখছি, আমি মনে করি, রাজনীতি করে যেমন মানুষের কল্যাণে কাজ করা যায়, একজন ব্যক্তিগত মানুষ হিসেবেও সেটা করা সম্ভব।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, ‘রাজনীতির প্রতি অনীহা বা অনাস্থা ঠিক না। আমি ব্যক্তি স্বাধীনতায় বিশ্বাস করি। আমি মনে করি এই পথেই আমি মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করতে পারবো। প্রতিটা নাগরিকের দায়িত্ব বাংলাদেশের উন্নয়নে নিজ নিজ জায়গা থেকে কাজ করা। ’

রাজনীতি ছাড়াও জনকল্যাণে কাজ করা যায় উল্লেখ করে সোহেল তাজ বলেছেন, ‘একটা কিছু সমাধান করতে হলে তো শুরু করতে হবে। ডেঙ্গুর ভ্যাকসিন তৈরির একটা সংবাদ দেখলাম, তার কী রাজনীতি করতে হয়েছে? শুধু রাজনীতি দিয়েই যে মানুষের কল্যাণ করতে হবে ধারণাটা সঠিক নয়। সদিচ্ছা থাকলে আমরা নিজ নিজ জায়গা থেকেও কাজ করতে পারি। সবকিছু কেনো রাজনীতিবিদের ওপর চাপিয়ে দিতে হবে। আমরা কেনো নিজে চেষ্টা করি না।’

মানুষের ভালোবাসার ঋণ শোধ করার একটা প্রচেষ্টা হিসেবে কিছু করার চেষ্টা করছেন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘২০০৮ সালে দ্বিতীয় বারের মতো সংসদ সদস্য হয়েছিলাম। সেসময় আমার দল ক্ষমতায় আসে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেন। আমাদের যে নির্বাচনি ইশতেহার, দিন বদলের সনদ, তা ছিল যুগান্তকারী। যাই হোক, পরবর্তীতে রাজনীতি থেকে নিজেকে সরিয়ে নেই। কিন্তু এরপরও আমি যেখানেই গিয়েছি, মানুষের ভালোবাসা আমাকে অভিভূত করেছে। মানুষের এই যে ভালোবাসা, এই ঋণ শোধ করার একটা ইচ্ছা ছিল।’

আপাতত ১২ পর্বের মাধ্যমে ‘হটলাইন কমান্ডো’ শুরু করলেও ভবিষ্যতে রোড সেফটি নিয়ে কাজ করার কথাও বলেছেন সোহেল তাজ।

দুঃসময়ে নিজের পরিবার আওয়ামী লীগ ও দেশের মানুষের পাশে ছিল উল্লেখ করে নিজেও দুঃসময়ে দেশ ও দলের পাশে থাকার কথাও বলেছেন তিনি।

এসময় ফারজানা রূপার উপস্থাপনায় স্টুডিওতে অতিথি হিসেবে ছিলেন ডিবিসি নিউজের সম্পাদক জায়েদুল আহসান পিন্টু ও মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা প্রধান রেজোয়ানুল হক রাজা।

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/জুলাই ১৯,২০১৯)

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

SMS Alert

রাজনীতি এর সর্বশেষ খবর

রাজনীতি - এর সব খবর