thereport24.com
ঢাকা, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬,  ২৩ জিলহজ ১৪৪০

‘নায়িকা বলে স্পেশাল খাতির নেই’

২০১৯ আগস্ট ১৪ ১২:৩৩:১৫
‘নায়িকা বলে স্পেশাল খাতির নেই’

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক: ঈদুল আজহা মানেই ত্যাগের মহিমায় উজ্জ্বল একটি দিন। দিনটি অন্যদের মতো তারকারাও যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন করে থাকেন। অন্যদের মতো পরিবারের সঙ্গে ঈদুল আজহার আনন্দ উপভোগ করছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া।

এ প্রসঙ্গে নুসরাত ফারিয়া বলেন, ‘‘ঈদ এবার ঢাকায় পরিবারের সঙ্গেই করছি। কোরবানির ঈদ প্রতিবার পরিবারের সঙ্গে করার পরিকল্পনা থাকে, এবারো তাই। ঈদের ছুটি শেষে ‘ঢাকা ২০৪০’ সিনেমার শুটিং করব।’’

তিনি আরো বলেন, ‘কোরবানির ঈদ শুরু হয় ভোরবেলা থেকে। নামাজ থেকে আসার পর বাবা-দাদাদের কোরবানির প্রস্তুতি দেখাটা অন্যরকম মজা। ঘুমিয়ে কাটিয়ে দেয়ার মাঝে কোনো মজা নেই। যখন থেকে বুঝতে শুরু করেছি তারপর থেকে এখনো এই কাজ করি। মাংস কাটা, ভাগাভাগি করা এই বিষয়গুলো খুব ইনজয় করি। আমার ১৮ বছর বয়সে নিজের টাকায় কোরবানি দিয়েছি। এটা আমার কাছে একটি স্মরণীয় ঈদ ছিল। আমি বাবাকে বলেছিলাম, আমি একটা ছাগল কোরবানি করতে চাই। এটা তুমি পছন্দ করে কিনে আনবা। তখন মনে হলো আব্বু-আম্মু যদি নিজেরা উপার্জন করে কোরবানি দিতে পারেন তা হলে আমি কেন পারব না? এই উপলব্ধি থেকে আমার উপার্জনের টাকায় ছাগল কোরবানি দিয়েছিলাম।’

কোরবানির ঈদে রান্না করার অভিজ্ঞতাও রয়েছে এই অভিনেত্রীর। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘কোরবানি আসলে আমিতো রান্না নিয়েই ব্যস্ত থাকি। এটা নিয়ে আমার অনেক প্রস্তুতি থাকে। শোবিজে কাজ করলেও ঈদের সময় আমাকে ছুটি নিতে হয়। আমাদের সবাইকে কাজ করতে হয়। নায়িকা বলে ফারিয়ার জন্য স্পেশাল খাতির নেই। কাজ করতে হয়। প্রচুর মেহমান আসে। প্রচুর রান্না-বান্না করতে হয়। গতবার কোরবানিতে আমি বিফ রান্না করেছিলাম। সবাই সেটা খেয়ে পছন্দ করেছিলেন। আমি গরুটা খুব ভালো রান্না করি। কিন্তু আমার মা এটা অন্যরকম করে রান্না করে। আর আমি ঝাল করে আচারি বিফ রান্না করি। এটা আমার সিগনেচার। এটা আমার স্পেশাল। এটা আমি প্রায়ই রান্না করি। বন্ধু-বান্ধবীদের আড্ডা হলেও আমি রান্না করি। আমার চারজন বান্ধবী আছে। ওদের সঙ্গে আমার এখনো দেখা হয়, আড্ডা দিই। আর বন্ধু খুব বেশি নেই। একবার আমার রান্না খেয়ে সবাইকে হা করে থাকতে হয়েছিল। আসলে রান্নায় অতিরিক্ত ঝাল দিয়ে ফেলেছিলাম। তারকা হওয়ার পরও আমি আগের মতোই আছি। আমার আব্বু-আম্মু এখনো আগের মতোই বাসায় কাজ করান। সবকিছু আগের মতোই আছে। আমার কাছে খুব একটা আহামরি পার্থক্য লাগে না। সিনেমা মুক্তির সময় একটু আলাদা পরিবেশ তৈরি হয়।’

উপস্থাপনার মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু করলেও এখন চলচ্চিত্রের কাজ নিয়েই ব্যস্ত সময় পার করছেন নুসরাত ফারিয়া। তিনি ‘আশিকী’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় পা রাখেন। সিনেমাটি ২০১৫ সালের ঈদুল আজহায় সারা দেশে মুক্তি পায়। এরপর তিনি ‘হিরো ৪২০’ সিনেমায় কাজ করেন। সৈকত নাসির পরিচালিত সিনেমাটি ২০১৬ সালে মুক্তি পায়। এছাড়া ২০১৭ সালের ঈদুল ফিতরে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘বাদশা’ সিনেমায় জিতের বিপরীতে অভিনয় করেন তিনি। সিনেমাটি ভারত-বাংলাদেশে একই সময় মুক্তি পায়। সম্প্রতি তার অভিনীত ওপার বাংলার ‘বিবাহ অভিযান’ সিনেমাটি মুক্তি পায়। এছাড়াও বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি।

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/আগস্ট ১৪, ২০১৯)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জলসা ঘর এর সর্বশেষ খবর

জলসা ঘর - এর সব খবর