thereport24.com
ঢাকা, রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৫ আশ্বিন ১৪২৭,  ২ সফর 1442

শিবচরে ছাড়পত্র পাওয়া তিনজন ফের আইসোলেশনে

২০২০ এপ্রিল ০৬ ০৮:৫১:৫১
শিবচরে ছাড়পত্র পাওয়া তিনজন ফের আইসোলেশনে

মাদারীপুর প্র‌তি‌নি‌ধি: মাদারীপুরের শিবচর উপজেলায় করোনা উপসর্গ দেখা দেয়ায় এক নারীসহ তিনজনকে সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে পাঠানো হয়েছে। রবিবার দুপুর ১টার দিকে তাদের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। এর আগে গত ২৭ মার্চ এই তিনজনকে আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে ছাড়পত্র দিয়েছিল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এদের সংস্পর্শে আসা ৫০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখেছে প্রশাসন।

এদিকে রবিবার বিকালে এই তিনজনের বাড়ি লাল ফ্লাগ দিয়ে চিহ্নিত কর্ডন করেছে প্রশাসন। পুরো উপজেলা রাতেই লকডাউন করে রাস্তায় রাস্তায় ব্যারিকেড দেয়া হয়েছে। পুলিশ, র‌্যাব, সেনাবাহিনী, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শিবচরজুড়ে টহল দিচ্ছে।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, আইসোলেশন ওয়ার্ডে থাকা তিনজন মধ্যে দুজন স্বামী-স্ত্রী। এক ইতালি প্রবাসীর শ্বশুর-শাশুড়ি তারা শিবচর উপজেলার পাচ্চর ইউনিয়নের হাজীপুরের বাসিন্দা। অপর একজন একই উপজেলার বহেরাতলা ইউনিয়নের ৩২ বছর বয়সী ইতালি প্রবাসী। আইসোলেশন থেকে মুক্ত হওয়ার পর বাড়িতে ফিরলে এই তিনজনসহ ১৬ জনের নমুনা সংগ্রহ শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর পক্ষ থেকে আইইডিসিআরে পাঠালে এই তিনজনের মধ্যে আবার সংক্রমণ পাওয়া যায়। রবিবার দুপুরে তাদের সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে নেয়া হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. শশাঙ্ক ঘোষ বলেন, আইসোলেশন থেকে মুক্ত হওয়ার পর বাড়িতে ফিরলে এই তিনজনসহ ১৬ জনের নমুনা সংগ্রহ শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পক্ষ থেকে আইইডিসিআরে পাঠালে এই তিনজনের মধ্যে আবার সংক্রমণ পাওয়া যায়। ওই তিনজনকে আবার আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। তাদের সংস্পর্শে আসা ৫০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

সিভিল সার্জন সফিকুল ইসলাম বলেন, ‘এক নারীসহ তিনজন দুপুর ১টার দিকেই এসেছে। তাদের ভালোভাবে চেকআপ করা হবে। তারপর নমুনা নেয়া হতে পারে।’

ওই তিনজনকে একবার আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র দেয়ার বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘তখন তারা সুস্থ ছিল। তাদের কোন অসুবিধা ছিল না। তখন তাদের টেস্ট নেগেটিভও ছিল। তাই তাদের ছাড়পত্র দেয়া হয়েছিল। এখন তারা যেহেতু আবার এসেছে, আমরা আপতত এ বিষয় কিছু বলতে পারছি না। আমাদের করোনা প্রতিরোধের জন্য নিয়োজিত মেডিকেল টিম তাদের টিটমেন্ট দিচ্ছে।’

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের দায়িত্বরত চিকিৎসক নাম প্রকাশে অনিচ্ছুকিএকজন জানান, ‘ওই তিনজনের মধ্যে একজনের বয়স ৭২ বছর। তাকে নিয়ে কিছুটা শঙ্কা রয়েছে। তবে আইসোলেশনে থাকা তিনজনই মোটামুটি ভালো আছে। আজই ওই তিনজনের নমুনা আইইডিসিআর কর্তৃপক্ষ ফের ঢাকায় পাঠাবে।’

জেলা প্রশাসন ও সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সূত্র জানায়, মাদারীপুরে ১ মার্চ থেকে বিভিন্ন দেশ থেকে মাদারীপুরে আসেন তিন হাজার ৫৩২ জন। এদের মধ্যে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয় ১ হাজার ৩৮৮ জনকে। ইতোমধ্যে হোম কোয়ারেন্টাইন শেষ হয় ১ হাজার ১৯১ জনের। বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ২৯৭ জন। গত দুইদিন জেলার ২৯ জনের নমুনা আইইডিসিআর ঢাকায় প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে সদর উপজেলার এক যুবক ও শিবচর উপজেলার তিনজনকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

শিবচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান বলেন, প্রশাসন জনগণকে ঘরে রাখতে সবধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সকল সড়ক বন্ধ রাখা হবে।

জেলা প্রশাসক ওয়াহিদুল ইসলাম বলেন, আইইডিসিআর মাদারীপুরের শিবচরকে অধিক ঝূঁকিপূর্ণ ঘোষণা দেয়ায় এ উপজেলার লকডাউনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। সকল যানবাহন বন্ধ থাকবে। জনগণাকে ঘরে থাকতে হবে।

চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী মুঠোফোনে বলেন, সবাইকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মেনে চলতে হবে। ঘর থেকে বের হওয়া যাবে না। সবাইকে ঘরবদ্ধ থাকতে হবে।

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/০৬এপ্রিল,২০২০)

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর