thereport24.com
ঢাকা, রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ৯ কার্তিক ১৪২৭,  ৮ রবিউল আউয়াল 1442

বাংলাদেশের মাছের ঝোলের স্বাদ ভুলতে পারেন না ওয়াসিম

২০২০ মে ২০ ০৭:১৮:০৪
বাংলাদেশের মাছের ঝোলের স্বাদ ভুলতে পারেন না ওয়াসিম

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক: অতিথি আপ্যায়নে বাংলাদেশিদের বেশ সুনাম আছে। কথায় আছে বাড়ির অতিথি নাকি দেবতার সমান! দেশের মানুষ তো বটেই বিদেশিদের আপ্যায়নে কমতি রাখে না বাংলাদেশি।

তাইতো দেশের বাইরে থেকে যারা আসেন তাদের মুখে সর্বত্র থাকে বাংলাদেশের প্রশংসা। বিশেষ করে মানুষের ভালোবাসা, অতিথিপরায়ণতার প্রশংসা হয় প্রায়শই। এবার পাকিস্তানের কিংবদন্তি ওয়াসিম আকরামের মুখেও প্রশংসা ঝরল। খেলোয়াড়ী জীবনে একাধিকবার বাংলাদেশে এসেছে ওয়াসিম। খেলা ছাড়ার পর ধারাভাষ্যের কাজে নিয়মিত এসেছেন বদ্বীপে। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে গিয়েছেন। বন্ধু-বান্ধুব বানিয়েছেন। এটা-ওটা খেয়ে বাংলাদেশের খাবারের ভক্ত হয়েছেন। তবে তাঁর মুখে সবচেয়ে সুস্বাদু লেগেছে বাংলাদেশের মাছের ঝোল।

তাইতো পাকিস্তানের বিশ্বকাপজয়ী তারকা বলেন,‘বাংলাদেশের মাছের ঝোলের স্বাদ কখনো ভুলতে পারি না।’ মঙ্গলবার রাতে তামিমের নিয়মিত লাইভ আড্ডার অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে আসেন ওয়াসিম আকরাম। সেখানে বাংলাদেশ, বাংলাদেশের মানুষদের ভালোবাসার কথা ভাগাভাগি করেন ওয়াসিম। লাইভ আড্ডায় ছিলেন জাতীয় দলের তিন সাবেক ক্রিকেটার মিনহাজুল আবেদীন নান্নু, আকরাম খান ও খালেদ মাসুদ পাইলট।

শুরুতেই ওয়াসিম আকরাম বলেন,‘আমি সব সময়ই বাংলাদেশে খেলা উপভোগ করেছি। আমি এ তিনজনের সাথে খেলেছি, বিপক্ষে খেলেছি। বিশ্বাস করি মাঠে এবং মাঠের বাইরে আমরা সব সময় ভালো বন্ধু ছিলাম। কিন্তু এখন তুমি (তামিম) বাদে আমরা সবাই বুড়ো হয়ে গেছি।’

এরপর কথার ফাঁকে ফাঁকে বাংলাদেশের সংস্কৃতির প্রশংসা করেন। বাংলাদেশের খাবারের বন্দনা করেন । কিংবদন্তি ক্রিকেটার জানান, বাংলাদেশকে হৃদয় থেকে অনুভব করেন এবং বাংলাদেশ ক্রিকেটের বর্তমান অবস্থার জন্যও গর্ববোধ করেন।

‘খেলা ছাড়ার পরও বাংলাদেশে যাওয়া হয়েছে। ধারাভাষ্য দিতে বাংলাদেশি গিয়েছি। আকরাম, রিজওয়ানের সাথে অনেক আড্ডা দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশকে হৃদয় থেকে অনুভব করি এবং সত্যি বলছি বাংলাদেশ সব সময় আমার হৃদয়ের কাছে ছিল। এখানকার মানুষ, বৈচিত্র্য, খাওয়া-দাওয়া, ক্রিকেটার সব কিছুর আমি ভক্ত। বাংলাদেশের মাছের ঝোলের স্বাদ ভুলতে পারি না।’

‘পাশাপাশি যোগ করতে চাই, বাংলাদেশ ক্রিকেট আজ যে অবস্থানে এসেছে সেটা দেখে খুবই গর্ব হয়। বিশ্বের অন্যতম সেরা কিছু খেলায়াড় এসেছে। তামিম তুমি নিজে, সাকিব আল হাসান, মুস্তাফিজুর রহমান...তোমাদেরকে দেখে খুব ভালো লাগে। তবে এখানে যারা আছে তারা কেউ ফিল্ডিংয়ে ভালো ছিল না। কিন্তু এখন ফিল্ডিংয়ে অসাধারণ উন্নতি করেছে।’

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/২০মে, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর