thereport24.com
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭,  ২১ জিলহজ ১৪৪১

ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে বিভিন্ন মহলের শোক

২০২০ জুলাই ০১ ২০:০০:০২
ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে বিভিন্ন মহলের শোক

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক: ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে বিভিন্ন মহল শোক প্রকাশ করেছেন। শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনাও জানিয়েছেন তারা।

অর্থমন্ত্রীর শোক
বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এবং ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। আজ বুধবার এক শোকবার্তায় অর্থমন্ত্রী মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

শোকবার্তায় দেশের অর্থনীতিতে মরহুম লতিফুর রহমানের অবদানের কথা স্মরণ করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক
বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখপ্রকাশ করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বুধবার এক শোকবার্তায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন। এ সময় তিনি শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

শোকবার্তায় দেশের অর্থনীতিতে মরহুম লতিফুর রহমানের অবদানের কথা স্মরণ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তথ্যমন্ত্রীর শোক
ট্রান্সকম গ্রুপ ও দৈনিক প্রথম আলো পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান মিডিয়াস্টার লিমিটেডের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান তার শোকবার্তায় প্রয়াতের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন ও শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রীর শোক
ট্রান্সকম গ্রুপ এবং দৈনিক প্রথম আলো ও ডেইলি স্টার পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান মিডিয়াস্টার লিমিটেডের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন এমপি।

পরিবেশ মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন তার শোকবার্তায় প্রয়াতের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন ও শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রীর শোক
ট্রান্সকম গ্রুপ ও দৈনিক প্রথম আলো পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান মিডিয়াস্টার লিমিটেডের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি আজ এক শোকবার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

ডিএনসিসি মেয়রের শোক
বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও শিল্পপতি লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন। আতিকুল ইসলাম মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীর শোক
ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান এবং বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও শিল্পপতি লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান। প্রতিমন্ত্রী মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেন

এফবিসিসিআই’র সভাপতির শোক
ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) প্রাক্তন পরিচালক এবং ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান শিল্পপতি লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন এফবিসিসিআইয়ের বর্তমান সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম।

বুধবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক শোকবার্তায় এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি জানান, শিল্পপতি লতিফুর রহমান ১৯৯৪-১৯৯৬ মেয়াদে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ এ সংগঠনের পরিচালক ছিলেন।

ফাহিম বলেন, তার মৃত্যু দেশ ও জাতির জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি। তাকে হারিয়ে আমরা শোকাহত। মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান তিনি।

ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেনের শোক
প্রথম আলোর প্রকাশক ও ট্রন্সকমের গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন।

এক শোক বার্তায় ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন বলেন, লতিফুর রহমান ছিলেন বাংলাদেশের শিল্পখাতের এক প্রাণ পুরুষ। এ সময় তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়াও করেন তিনি। সেইসাথে তার শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনাও জ্ঞাপন করেন ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক।

উল্লেখ্য, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। পারিবারিক সূত্রে এ কথা জানা গেছে।

লতিফুর রহমান স্ত্রী, পুত্র, দুই কন্যাসহ আত্মীয়স্বজন, গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, লতিফুর রহমানের মরদেহ আজ ঢাকায় আনা হবে। গুলশানের আজাদ মসজিদে বাদ এশা তার জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর রাতেই বনানী কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

লতিফুর রহমান দৈনিক প্রথম আলো ও ইংরেজি দৈনিক ডেইলি স্টারের মালিক। তিনি ট্রান্সকম গ্রুপের ফাস্টফুড, কোমল পানীয়, ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক পণ্য, ওষুধ, সংবাদপত্র, চা শিল্প, বিমা ইত্যাদি ব্যবসায়ের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তিনি ন্যাশনাল হাউজিংয়ের উদ্যোক্তা পরিচালক।

লতিফুর রহমান প্যারিসভিত্তিক বৈশ্বিক বাণিজ্য সংগঠন আইসিসির নির্বাহী সদস্য, আইসিসি বাংলাদেশের ভাইস চেয়ারম্যান ও বিশ্বের বৃহত্তম এনজিও ব্র্যাকের পরিচালক। এছাড়া তিনি কয়েক মেয়াদে এমসিসিআইয়ের সভাপতি ছিলেন।

এ ছাড়াও, বাংলাদেশের বাজারে আন্তর্জাতিক ফাস্টফুড চেইন পিৎজা হাট ও কিন্টাকী ফ্রায়েড চিকেন প্রচলনের জন্য সমাধিক পরিচিত ছিলেন। ব্যবসায়ে নৈতিকতা ও সামাজিক দায়বদ্ধতার স্বীকৃতিস্বরূপ তিনি ২০১২ সালে পেয়েছেন বিজনেস ফর পিস অ্যাওয়ার্ড পুরস্কার। ২০০৯ সাল থেকে ব্যবসাখাতে স্বীকৃতিস্বরূপ এ পদক দেয়া হয়।

লতিফুর রহমান জন্ম ১৯৪৫ সালের ২৮ আগস্ট। লতিফুর রহমানে জন্ম ভারতের জলপাইগুড়িতে। থাকতেন ঢাকার গেন্ডারিয়ায়। তার স্ত্রীর নাম শাহনাজ রহমান। তাদের এক ছেলে আর দুই মেয়ে।

লতিফুর রহমান পড়াশোনা শুরু করেন সেন্ট ফ্রান্সিস স্কুলে। সেখান থেকে চলে যান হলিক্রস স্কুলে। সে সময় হলিক্রসে ছেলেরাও পড়ত। ১৯৫৬ যান শিলংয়ে এবং সেন্ট এডমন্ডস স্কুলে ক্লাস থ্রিতে ভর্তি হন। সেখান থেকে কলকাতা সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজে যান।

১৯৬৫ সালের ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ, হিন্দু-মুসলমান দাঙ্গা-এসব কারণে ঢাকায় ফিরে আসেন লতিফুর রহমান। এসে পাটের ব্যবসায় ঢুকে যান। তার বাবা তখন চাঁদপুরে গড়ে তুলেছেন ডব্লিউ রহমান জুট মিল। ১৯৬৩ সালে কাজ শুরু হলেও উৎপাদন শুরু হলো ১৯৬৬ সালে। সেখানে ট্রেইনি হিসেবে কাজ শুরু করেন তিনি ১৯৬৬ সালে। দেড় বছর কাজ শেখার পর একজন নির্বাহী হিসেবে যোগ দেন। এভাবে কাজ ১৯৭১ সাল পর্যন্ত। লতিফুর রহমান ১৯৭২ সালে যখন সবকিছু নতুন করে শুরু করেছিলেন, তখন তার সঙ্গে কাজ করতেন মাত্র পাঁচজন। ট্রান্সকম গ্রুপে এখন কাজ করছেন ১০ হাজারের বেশি মানুষ। শুরুতে ৫০ লাখ টাকা ব্যাংকঋণ নিয়ে নতুন করে শুরু করেছিলেন তিনি। এখন এই গ্রুপের বার্ষিক লেনদেনের পরিমাণ সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকার বেশি।

লতিফুর রহমান নেসলে বাংলাদেশ, হোলসিম বাংলাদেশ এবং ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স ও ইনভেস্টমেন্টের চেয়ারম্যান। তিনি লিন্ডে বাংলাদেশ এবং ব্র্যাকের গভর্নিং বোর্ডের পরিচালক। এছাড়া তিনি আইসিসি বাংলাদেশের সহ-সভাপতি। ট্রান্সকম গ্রুপ যার উৎপত্তি হয়েছিল চা চাষের মাধ্যমে, এখন বাংলাদেশের অন্যতম একটি বড় করপোরেট প্রতিষ্ঠান, যার অধীনে ১৬টি কোম্পানি রয়েছে। ট্রান্সকম গ্রুপের অধীনে প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে- ট্রান্সকম বেভারেজ লিমিটেড, বেভারেজ ডিস্ট্রিবিউশন লিমিটেড, দৈনিক প্রথম আলো, দ্য ডেইলি স্টার (বাংলাদেশ), এবিসি রেডিও, সাপ্তাহিক ২০০০, আনন্দধারা, ট্রান্সকম ফুডস লিমিটেড, ট্রান্সকম ইলেকট্রনিকস লিমিটেড, এসকেএফ বাংলাদেশ লিমিটেড, বাংলাদেশ ইলেকট্রিকাল ইন্ড্রাস্ট্রিজ লিমিটেড, বাংলাদেশ ল্যামপ্‌স লিমিটেড, টি হোল্ডিংস লিমিটেড, ট্রান্সকম ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, ট্রান্সক্রাফ্ট লিমিটেড, ট্রান্সফিন ট্রেডিং লিমিটেড, ট্রিন্কো লিমিটেড, এম. রহমান টি কোম্পানি লিমিটেড, ম্যারিনা টি কোম্পানি লিমিটেড, মনিপুর টি কোম্পানি লিমিটেড এবং হেরিটেজ টি। প্রায় ১০ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান করেছে এ গ্রুপ।

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/০১জুলাই, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর