thereport24.com
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ মার্চ ২০২১, ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭,  ১৮ রজব ১৪৪২

সুশান্ত সিং রাজপুত: বলিউডের আকাশে এক আতশবাজি!

২০২১ জানুয়ারি ২১ ১৯:২১:০৩
সুশান্ত সিং রাজপুত: বলিউডের আকাশে এক আতশবাজি!

দ্য রিপোর্ট ডেস্ক: আকাশের প্রতি তার ছিল অসামান্য আগ্রহ। মহাশূন্যের গ্রহ-নক্ষত্রের প্রতি তার কৌতুহল এতোটাই প্রবল ছিল যে, নিজেই মূল্যবান দূরবীন কিনে ঘরে বসে মহাকাশ দেখতেন। এমনকি চাঁদের বুকে এক খণ্ড জমিও কিনেছিলেন।

কিন্তু সেই জমিতে পা রাখা হয়নি। ঘোরা হয়নি মহাকাশে গিয়েও। তবে মহাকাশ ছুঁতে না পারলেও মানুষটা ছুঁয়েছেন অগণিত মানুষের হৃদয়। জিতে নিয়েছেন আকাশসম ভালোবাসা। সেই ভালোবাসা নিয়েই অকালে চলে গেছেন না ফেরার দেশে। সম্ভাবনার এক প্রবল ইঙ্গিত দিয়ে বিদায় নিয়েছেন জাগতিক জীবন থেকে।

ক্যালেন্ডার বলছে আজ ২১ জানুয়ারি। আজ তার জন্মদিন। অকালে ঝরে যাওয়া এক তারকার জন্মদিন। তার নাম সুশান্ত সিং রাজপুত। গেল বছরেই যাকে হারিয়েছে বলিউড, হারিয়েছে সিনে বিশ্ব।

জন্মদিনে সুশান্তকে স্মরণ করে উচ্ছ্বাস নয়, সবার মনে বিষাদের ছায়াই নেমে এসেছে। কেননা এতো দ্রুত তাকে হারিয়ে ফেলতে হবে, কে-ইবা ভেবেছিল! তাকে বলা যায় বলিউডের আকাশে এক আতশবাজি। যিনি জমকালো এক আলোর ঝলক দেখিয়ে হঠাৎ মিলিয়ে গেছেন, মিশে গেছেন আকাশের তারাদের জগতে।

সুশান্ত সিং রাজপুতের জন্ম ১৯৮৬ সালের ২১ জানুয়ারি বিহারের পাটনায়। তার বাবা একজন অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা। প্রচণ্ড মেধাবী সুশান্ত ছোট বেলা থেকেই পড়াশোনায় দারুণ ছিলেন। পদার্থবিজ্ঞানে তিনি ভারতের জাতীয় অলিম্পিয়াড জিতেছিলেন। পরিবারের ইচ্ছে ছিল তিনি ইঞ্জিনিয়ার হবেন। সেজন্য দিল্লি টেকনোলোজিক্যাল ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি পরীক্ষা দেন এবং মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে জায়গা করে নেন।

সুশান্তের ইচ্ছে ছিল তিনি একজন অ্যাস্ট্রোনট বা মহাকাশচারী হবেন। কিন্তু পরবর্তীতে তিনি অভিনয়ের প্রতি আকৃষ্ট হন। আর সেই আগ্রহের কেন্দ্রে ছিলেন বলিউড বাদশা শাহরুখ খান। মূলত শাহরুখ খানকে দেখেই অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ জন্মায় তার। তিনিও মনে মনে স্বপ্ন বুনতে থাকেন, শূন্য থেকে একদিন তিনিও বলিউডের তারকা হয়ে উঠবেন।

সুশান্ত যখন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র, তখন তিনি পড়াশোনা ছেড়ে দেন। শুধু মাত্র অভিনয় জগতে মনোযোগ দিয়ে কাজ করার জন্য। প্রথমে শিমাক দাবেরের কাছে নাচের প্রশিক্ষণ নেন। পরবর্তীতে অভিনয়ের উপরও প্রশিক্ষণ নেন তিনি।

ব্যাকগ্রাউন্ড ড্যান্সার হিসেবে শুরু হয় সুশান্ত সিং রাজপুতের বলিউড ক্যারিয়ার। ২০০৬ সালের ‘ধুম টু’ সিনেমায় তিনি ব্যাকগ্রাউন্ড ড্যান্সার হিসেবে কাজ করেছেন। এরই ফাঁকে তিনি চলে যান মুম্বাই। সেখানে গিয়ে তিনি যোগ দেন নাদিরা বাব্বারের থিয়েটার দলে। থিয়েটার করতে করতেই একদিন সুযোগ পেয়ে যান টিভি সিরিয়ালে। ২০০৮ সালে ‘কিস দেশ মে হ্যায় মেরা দিল’ সিরিয়ালে সেকেন্ড লিড রোলে সুযোগ পান সুশান্ত। অভিনয় প্রতিভা দেখিয়ে তিনি অল্প সময়েই সবার নজরে চলে আসেন। বিশেষ করে সিরিজটির প্রযোজক একতা কাপুরের বেশ পছন্দ হয় সুশান্তকে।

এরপর একতা কাপুরের তুমুল জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘পবিত্র রিশতা’তে প্রথমবারের মতো মূল চরিত্রে অভিনয় করেন সুশান্ত সিং। এরপর তিনি নাচের প্রতিযোগিতা ‘ঝালাক দিখলা যা’-তেও অংশ নিয়েছিলেন। ওই প্রতিযোগিতায় তিনি রানারআপ হয়েছিলেন।

এতো সব কাজের ভিড়েও সুশান্তের মূল লক্ষ্য ছিল বলিউডের সিনেমা। সেই কাঙ্ক্ষিত সুযোগ আসে ২০১১ সালে। নির্মাতা মুকেশ ছাবরার ‘কাই পো চে!’ সিনেমার মাধ্যমেই বলিউডে অভিনেতা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। ওই সিনেমায় তিন বন্ধুর গল্প ফুটিয়ে তোলা হয়। যার একজন ছিলেন সুশান্ত এবং বাকি দুজন ছিলেন রাজকুমার রাও ও অমিত সাধ।

সিনেমাটি দারুণ প্রশংসিত হয়। রাজকুমার রাও ও সুশান্ত সিং রাজপুত দু’জনেই বলিউডের নজরে চলে আসে। ২০১৩ সালে সুশান্ত অভিনয় করেন ‘শুদ্ধ দেশি রোম্যান্স’ সিনেমায়। এই সিনেমায় তার বিপরীতে ছিলেন পরিণীতি চোপড়া। এই সিনেমাও দর্শকদের মন জয় করে নেয়।

২০১৪ সালে সুশান্ত ডাক পান বলিউডের অন্যতম সফল নির্মাতা রাজকুমার হিরানির সিনেমায়। নাম ‘পিকে’। যেখানে অভিনয় করেছেন আমির খানের মতো সুপারস্টার। এই সিনেমায় অভিনয় করে সুশান্ত দারুণ প্রশংসিত হন। অনেকেই বলতে শুরু করেন, সুশান্ত হতে যাচ্ছে আগামীর শাহরুখ খান।

২০১৬ সালে সুশান্ত সিং রাজপুত তারকাখ্যাতি পান। ভারতজুড়ে তার জনপ্রিয়তা ছড়িয়ে পড়ে। শুধু ভারতেই নয়, পুরো উপমহদেশেই তার পরিচিতি ছড়িয়ে যায়। সফল সেই সিনেমার নাম ‘এমএস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি’। এটি মূলত ভারতীয় ক্রিকেটার মহেন্দ্র সিং ধোনির বায়োপিক। এতে ধোনির চরিত্রে অভিনয় করে ভূয়সী প্রশংসা পান সুশান্ত। সিনেমাটি দুই’শ কোটির বেশি আয় করে ব্লকবাস্টার হিট হয়েছিল।

তারপর সুশান্ত সিং রাজপুত অভিনয় করেছেন ‘রাবতা’, ‘ওয়েলকাম টু নিউ ইয়র্ক’, ‘কেদারনাথ’, ‘সোনচিড়িয়া’, ‘ছিছোরে’, ‘ড্রাইভ’ ও ‘দিল বেচারা’। এছাড়া তিনি ‘ডিটেক্টিভ ব্যোমকেশ বক্সি’ নামেও একটি সিনেমায় অভিনয় করে প্রশংসিত হয়েছেন।

অভিনয়ের জন্য সুশান্ত সিং রাজপুত ইন্ডিয়ান টেলিভিশন অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড, বিগ স্টার এন্টারটেইনমেন্ট অ্যাওয়ার্ড, গোল্ড অ্যাওয়ার্ড, স্ক্রিন অ্যাওয়ার্ড ও ইন্ডিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল অব মেলবোর্ন অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন।

ব্যক্তিগত জীবনে সুশান্ত সিং রাজপুত ভীষণ মিশুক ও হাস্যোজ্জ্বল মানুষ ছিলেন। দীর্ঘ দিন ধরে তিনি প্রেম করেছিলেন অঙ্কিতার সঙ্গে। এরপর অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান।

২০২০ সালের ১৪ জুন থেমে যায় সুশান্তের নিঃশ্বাস। মুম্বাইয়ে তার নিজস্ব ফ্ল্যাট থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তে জানানো হয়, ডিপ্রেশনে থেকে তিনি আত্মহত্যা করেছেন। তবে বিভিন্ন রহস্যের কিনারা না হওয়ায় এখনো নিশ্চিত নয়, সুশান্তের মৃত্যুর কারণ। এখনো সেই রহস্য উদঘাটনে তদন্ত করছে ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই।

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/২১ জানুয়ারি, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জলসা ঘর এর সর্বশেষ খবর

জলসা ঘর - এর সব খবর