thereport24.com
ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮,  ১৬ সফর 1443

বর্ষায় বাড়ছে পোকামাকড়ের উপদ্রব, প্রতিকার জানুন

২০২১ জুলাই ০২ ০৯:১৮:১৪
বর্ষায় বাড়ছে পোকামাকড়ের উপদ্রব, প্রতিকার জানুন

দ্য রিপোর্ট ডেস্ক: বর্ষাকালে পোকা মাকড়ের উপদ্রব অনেকাংশেই বেড়ে যায়। কারণ যেসব পোকামাকড় মাটিতে কিংবা শুকনা জায়গায় থাকে তাদের জন্য বর্ষাকাল মানেই বিপদ। এসময় তারা সেসব জায়গা ছেড়ে ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে। তাই তেলাপোকা, পিঁপড়া, মশা-মাছি ছাড়াও টিকটিকি, মাকড়সাও যখন তখন হানা দিতে পারে বাড়িতে।

ঘরের পোকামাকড় দূর করতে বাজারে নানা রকম কীটনাশক কিনতে পাওয়া যায়। তাছাড়া রাস্তা ঘাটে ফেরি করেও অনেক পোকামাকড় দমনের ঔষধ খুব ঘটা করে বিক্রি হয়ে থাকে। তবে এসব রাসায়নিক দ্রব্য কি দিয়ে তৈরী তা আমরা কেউই কিন্তু জানিনা। তাছারা এগুলো কোন ভাবে নিঃশ্বাসের মাধ্যমে কিংবা কোন খাবারের সাথে পেটে চলে গেলে হতে পারে ভয়াবহ সমস্যা। তাই পোকা মাকড় দমনের ক্ষেত্রে ঘরোয়া উপায়ই সব থেকে উত্তম।
চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক পোকামাকড় দমনের ঘরোয়া কিছু পদ্ধতি-

পোকামাকড়

বর্ষার সময় রান্নাঘরের সিংক ও বাথরুমের বেসিন বা কমোড দিয়ে বিভিন্ন পোকামাকড় উঠে আসে। এর থেকে রক্ষা পেতে গরম পানিতে স্যাভলন মিশিয়ে কয়েক দিন পরপর কমোড, বেসিন ও রান্নাঘরের সিংকে ঢালুন। বিশেষ করে যেদিন বৃষ্টি পড়বে সেদিন। তবে ঢালার সময় এমনভাবে ঢালুন যাতে সরাসরি পাইপে পড়ে। না হলে কমোড কিংবা বেসিনে চিড় ধরতে পারে।

মশা-মাছি

মশা-মাছির তাড়ানোর জন্য কয়েক টুকরো কর্পূর আধা কাপ পানিতে মিশিয়ে ঘরের এক কোণে রেখে দিন। রান্নাঘরে ঢাকনা দেওয়া ডাস্টবিন ব্যবহার করুন। এছাড়া শুকনা চা-পাতা পোড়ানো ধোঁয়া ছড়িয়ে দিন পুরো বাড়িতে। এতে মশা-মাছির উপদ্রব কমে যাবে।

তেলাপোকা ও পিঁপড়া

তেলাপোকা ও পিঁপড়ার উপদ্রব এ সময় বেড়ে যায়। তাই সব সময় ঘর পরিষ্কার রাখুন। কোথাও খাবার পড়ে থাকলে বেসিনের সিংকে যাতে খাবার জমে না থাকে, খেয়াল রাখুন। প্রতিদিনের ময়লা নির্দিষ্ট স্থানে ফেলে আসুন। রান্নাঘর স্যাভলন ও ভিনেগার দিয়ে মুছে নিন। পিঁপড়ার উপদ্রব কমাতে জানালায় ও দরজায় বরিক পাউডার ঢেলে রাখুন।

এছাড়া বেশকিছু এসেনশিয়াল অয়েলের প্রভাবেও ঘরবাড়ি দূষণমুক্ত রাখতে পারেন। চলুন জেনে নেই কোন তেল কিভাবে ব্যবহার করলে উপকার পাবেন-

ল্যাভেন্ডার অয়েল

এর সুগন্ধও পোকামাকড় রোধে অত্যন্ত কার্যকর। বিশেষ করে, মশা-মাছি রোধে এই তেল খুব উপকারী। শেষ হয়ে যাওয়া শ্যাম্পুর বোতলে এককাপ পানি নিয়ে তার মধ্যে তিন চামচ মতো ল্যাভেন্ডার তেল মিশিয়ে নিন। ভালো করে ঝাঁকিয়ে এই মিশ্রণই ছড়িয়ে দিন ঘরের নানা কোণায়।

টি ট্রি অয়েল

পানির সঙ্গে টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে তারপর সেই মিশ্রণ ঘরের আনাচকানাচে ছড়িয়ে দিন। এতে পোকামাকড়ের উপদ্রব কমবে। বিশেষ করে, বর্ষায় ছারপোকার যে সমস্যা বাড়ে, তার জন্যও এটি খুবই কার্যকর।

ইউক্যালিপটাস তেল

ইউক্যালিপটাস গাছের গা থেকে এক প্রকার ঝাঁজালো গন্ধ বের হয়। এই গন্ধ সইতে পারে না কোনো কীটপতঙ্গ, এমনকি ইঁদুরও। তাই একটি শেষ হয়ে যাওয়া শ্যাম্পুর বোতলে এক কাপ পানি ভরে, তাতে এক চামচ লেমন অয়েল ও দু`মচ ইউক্যালিপটাস তেল মিশিয়ে ঝাঁকিয়ে রেখে দিন। বাড়ির চারপাশে, বেসিনে স্প্রে করুন এই মিশ্রণ। বর্ষায় পোকামাকড়ের হাত থেকে বাঁচতে বিশেষ উপকার পাবেন।

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/ ০২ জুলাই, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

লাইফস্টাইল এর সর্বশেষ খবর

লাইফস্টাইল - এর সব খবর