thereport24.com
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫,  ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

আড়াই লাখ কণ্ঠে জাতীয় সংগীত

২০১৪ মার্চ ২৬ ১১:২০:৩১ ২০১৪ মার্চ ২৬ ১২:৫৫:০০
আড়াই লাখ কণ্ঠে জাতীয় সংগীত

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : ২ লাখ ৫৪ হাজার ৬৮১ জন মানুষের অংশগ্রহণে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে শেষ হয়েছে জাতীয় সংগীত গাওয়া।

মহান স্বাধীনতা দিবসে বুধবার সকাল ১১টা ২০ মিনিটে জাতীয় সংগীত গাওয়া শুরু হয়। শেষ হয় ১১টা ২৩ মিনিটে। ‘লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ কর্মসূচির মূল আয়োজনটি করা হয় জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে। এতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, মন্ত্রিপরিষদ সদস্যসহ সর্বস্তরের মানুষ অংশ নেন। সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সার্বিক সহযোগিতা ও তত্ত্বাবধানে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

ভোর থেকেই বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছাড়াও, বিভিন্ন পেশার মানুষের ঢল নামে তেজগাঁও পুরাতন বিমান বন্দরের দিকে। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ছুটি থাকায় এই কর্মসূচি সরকারি, বেসরকারি সকল পর্যায়ের চাকরিজীবীদের অংশগ্রহণ ছিল সকাল থেকেই। রাজধানীর সকল প্রকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নিজ উদ্যোগে শিক্ষার্থীদের নিয়ে যাওয়া হয় মূল আয়োজন স্থলে। এদিকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য সরকারি গণপরিবহন বিআরটিসির সকল বাস বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। এ ছাড়া বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো অন্যান্য গণপরিবহনের বাস ভাড়া করে শিক্ষার্থীদের নিয়ে আসেন জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে। ঢাকা-গাজীপুর ও ঢাকা-নারায়ণগঞ্জের ট্রেনগুলো থামছে তেজগাঁও স্টেশনে।

এদিকে সকাল থেকেই রাজধানী ও আশপাশের পোশাক কারখানা হতে পোশাক শ্রমিক বিশেষ করে নারী শ্রমিকের অংশগ্রহণ ছিলো চোখে পড়ার মতো। বাসে চড়ে কেউবা পায়ে হেঁটে অংশ নেন লাখো কন্ঠে সোনার বাংলা কর্মসূচিতে।

এদিকে গণনাকারী যন্ত্রের হিসাবের কয়েকগুণ বেশি মানুষ এই কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন পর্যবেক্ষক ও উপস্থিত সংবাদকর্মীরা। তারা জানান, প্রচণ্ড রোদ ও গরমে দীর্ঘ লাইন উপেক্ষা করে বিচ্ছিন্নভাবে ভেতরে প্রবেশ করেছেন অনেকেই। মূল গ্রাউন্ডে প্রবেশের জন্য পাঁচটি প্রবেশপথ নির্ধারণ থাকলেও অধিকাংশ অংশগ্রহণকারী তা না মেনে যত্রতত্রভাবে প্রবেশ করেছেন। আর এতে করে পাঁচটি গেটে স্থাপন করা গণনা যন্ত্রের হিসাবে আসেননি তারা।

তবে কর্মসূচি আয়োজনের ব্যবস্থাপনা নিয়ে অনেকেই অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে অনেকেই ধৈর্য হারিয়ে ফিরে গেছেন। অংশগ্রহণকারীদের ধীর গতিতে ভেতরে প্রবেশ করানোর জন্য অনেকেই ফিরে গেছেন গেটের বাইরে থেকে। এদিকে কর্মসূচি শুরু হলেও অনেকেই প্রবেশ করতে পারেননি মূল আয়োজনে। অবশেষে মূল গ্রাউন্ডের বাইরে অবস্থান করেই অংশ নেন ‘লাখো কন্ঠে সোনার বাংলা’ কর্মসূচিতে।

রেকর্ড ভাঙলো বাংলাদেশ : ভারতের গড়া এক লাখ ৫০ হাজার মানুষের অংশগ্রহণে গাওয়া জাতীয় সংগীতের বিশ্ব রেকর্ড ভাঙল বাংলাদেশ। সকাল ১১টায় জানা যায়, প্যারেড গ্রাউন্ডে প্রবেশকারীর সংখ্যা ২ লাখ ৫৪ হাজার ৬৮১ জন।

(দ্য রিপোর্ট/আরএইচ/এইচএসএম/মার্চ ২৬, ২০১৪)

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

SMS Alert

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর