thereport24.com
ঢাকা, শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯,  ২৫ জিলকদ  ১৪৪৩

মুশফিকের রেকর্ডের দিনে কিছুটা এগিয়ে শ্রীলঙ্কা

২০২২ মে ২৪ ১৮:৩৮:৩৪
মুশফিকের রেকর্ডের দিনে কিছুটা এগিয়ে শ্রীলঙ্কা

দ্য রিপোর্ট ডেস্ক: মিরপুরে শেষ বিকালে সাকিব আল হাসান লঙ্কান কুশল মেন্ডিসকে ফেরাতেই কিছুটা স্বস্তি নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। তবে ঢাকা টেস্টের দ্বিতীয় দিনে শ্রীলঙ্কা কিছুটা এগিয়ে আছে। সফরকারীদের জন্য আশার বিষয় হচ্ছে, মাঠে এখনও অপরাজিত আছেন তাদের অধিনায়ক দিমুথ করুণারত্নে।

এর আগে দ্বিতীয় দিনের সকাল নিজের করে নিয়েছিলেন মুশফিকুর রহিম। রেকর্ড গড়েছেন নিজে, দলকেও এনে দিয়েছেন রেকর্ড গড়া এক সংগ্রহ। যদিও মুশফিক ছাড়া এদিন লিটন দাস থেকে শুরু করে মোসাদ্দেক এবং টেল এন্ডাররা ছিলেন চরম ব্যর্থ। ব্যাটসম্যানরা বাংলাদেশকে দিয়েছিল এক লজ্জার রেকর্ড।

মিরপুর টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে বাংলাদেশ নিজেদের প্রথম ইনিংসে তুলেছে ৩৬৫ রান। এ জন্য বড় কৃতিত্ব মুশফিক ও লিটন দাসের। এই দুইজন ছাড়া বাংলাদেশের ছয়জন ব্যাটসম্যান শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন। জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে খেলতে নেমে ২ উইকেটে ১৪৩ রান তোলে শ্রীলঙ্কা। দলটির পক্ষে ৭০ রান নিয়ে অপরাজিত আছেন অধিনায়ক করুণারত্নে।

মিরপুরে দ্বিতীয় দিন সকালে মুশি-লিটন দুই ব্যাটসম্যানই অপরাজিত শতক নিয়ে শুরু করেন। এদিন হতাশ করেছেন লিটন। আগের দিনের ১৩৫ রানের সঙ্গে আর মাত্র ৬ রান যোগ করতেই স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। আউট হওয়ার আগে ক্যারিয়ার সেরা ১৪১ রান করেন লিটন।

এদিকে প্রায় তিন বছর পর টেস্ট খেলতে নেমে মোসাদ্দেক হোসেনও ছিলেন ব্যর্থ। মাত্র ৩ বল খেলে শূন্য রানে ফেরেন তিনি। ২৯৬ রানে ৭ উইকেট হারানোর পর টেল এন্ডারদের নিয়ে লড়াই করে বাংলাদেশকে ৩৬৫ রানের স্কোর এনে দেন মুশফিক। তবে অপরপ্রান্তে খালেদ ও এবাদত দেখেন শূন্য। এর আগে তামিম, জয় ও সাকিবও শূন্য রানে আউট হয়েছিলেন।

ছয় ব্যাটসম্যান শূন্যে ফেরায় বাংলাদেশ এক লজ্জার সামনে পড়ে। প্রথম দল হিসেবে টেস্টে দুইবার ইনিংসে ছয় ডাক মারা ব্যাটসম্যান দেখে বাংলাদেশ। ইনিংসে ছয় ডাক মারার পর পূর্বে কোনো দল সর্বোচ্চ ১৫২ রান করতে পেরেছিল। সেই রেকর্ড ভেঙে বাংলাদেশ এদিন করে ৩৬৫ রান।

যার জন্য সব ক্রেডিটের দাবিদার মুশফিক। এই ব্যাটসম্যান করেন অপরাজিত ১৭৫ রান। যা নূন্যতম পাঁচ ব্যাটসম্যান শূন্য রানে আউট হওয়া ইনিংসে রেকর্ড। এর আগে ইনিংসে পাঁচ শূন্য দেখেও প্রোটিয়ান অ্যাশওয়েল প্রিন্স করেছিলেন ১৬২ রান। এই রেকর্ড এখন নিজের করে নিলেন মুশফিক।

এই ইনিংস খেলার পথে মুশফিক ৫২৬ মিনিট খেলে ২১টি চার হাঁকান। সময়ের হিসাবে মুশফিকের এটি দ্বিতীয় দীর্ঘতম। এর আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে রেকর্ড অপরাজিত ২১৯ রান করার পথে ৫৮৯ মিনিট খেলেছিলেন মুশফিক।

জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে খেলতে নেমে লঙ্কান দুই ওপেনার দিমুথ করুণারত্নে ও ওসাদা ফার্নান্দোর ফিফটিতে দিনশেষে ২ উইকেট হারিয়ে ১৪৩ রান তোলে সফরকারীরা। বাংলাদেশের থেকে ২২২ রানে পিছিয়ে আছে করুণারত্নের দল। এদিন অবশ্য বাংলাদেশের বোলাররা এলবিতে কিছু আউটের সুযোগ সৃষ্টি করেছিলেন।

তবে আম্পায়ার সাড়া না দেওয়াতে এবং বাংলাদেশ যথার্থ রিভিউ না নেওয়াতে বেঁচে যায় লঙ্কান দুই ওপেনার। এছাড়াও দুই ওপেনারই ক্যাচ দিয়ে বেঁচে যান। পরবর্তীতে এই জুটি ভাঙেন এবাদত। চলতি সিরিজে এটিই বাংলাদেশি পেসারদের প্রথম উইকেট শিকার। এবাদতের বলে ফেরার আগে লঙ্কান ওপেনার ফার্নান্দো করেন ৫৭ রান। তিনে নামা কুশল মেন্ডিস ১১ রান করে ফেরেন সাকিবের বলে।

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/ ২৪ মে, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর