thereport24.com
ঢাকা, বুধবার, ৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯,  ৬ জিলহজ ১৪৪৩

কিলার মিলার তাণ্ডবে অভিষেকেই ফাইনালে গুজরাট

২০২২ মে ২৫ ১০:১৪:১৩
কিলার মিলার তাণ্ডবে অভিষেকেই ফাইনালে গুজরাট

দ্য রিপোর্ট ডেস্ক: আইপিএলের ফাইনালে যেতে শেষ ওভারে গুজরাটের প্রয়োজন ছিল ১৫ রানের। এবারের আসরে প্রথম খেলছে গুজরাট টাইটান্স। রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে বোলিংয়ে প্রাসিদা কৃষ্ণা। অপরদিকে তৈরি গুজরাটের দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটার কিলার মিলার খ্যাত ডেভিড মিলারও। ইতোমধ্যে তিনি নিজের অর্ধশত তুলে নিয়েছেন ৩৫ বল খেলে।

প্রাসিদা কৃষ্ণা যিনি এর আগেও হাই টেম্পার ম্যাচগুলোতে দলকে জয় পাইয়ে দিয়েছিলেন। তাই অভিজ্ঞ হিসেবে তার হাতেই বল তুলে দেন রাজস্থান অধিনায়ক। কিন্তু প্রাসিদার করা প্রথম বলকে লং অনের ওপর দিয়ে উড়িয়ে মারেন মিলার। ৫ বলে দরকার ৯ রান। দ্বিতীয় ডেলিভারিটি ছিল গুড লেন্থে। সেটিকে ডিপ স্কয়ার লেগের ওপর দিয়ে পাঠিয়ে দিলেন গ্যালারিতে। আবারও ছক্কা। প্রাসিদার করা তৃতীয় বলকেও ডিপ মিড উইকেট দিয়ে সোজা গ্যালারিতে পাঠিয়ে দিয়ে বুনো উল্লাসে মাতেন কিলার মিলার। সেই সঙ্গে আসরে প্রথমবারের মতো খেলতে এসে ফাইনালে জায়গা করে নিলো দলটি।

মঙ্গলবার (২৪ মে) রাতে কলকাতার ইডেন গার্ডেনে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন গুজরাট অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই যশস্বী জয়সওয়ালকে বিদায় করে দারুণ শুরু এনে দেন ইয়াশ দয়াল। শুরু ধাক্কা দ্বিতীয় উইকেটে বাটলারকে নিয়ে ভালোই সামাল দেন অধিনায়ক সাঞ্জু স্যামসন। উভয়ে গড়েন সময়োপযোগী ৬৮ রানের জুটি। স্যামসন ৪৭ রান করে সাই কিশোরের বলে বিদায় নেন। দলীয় ১১৬ রানে দেবদূত পাড়িক্কালকে বোল্ড করে ফেরত পাঠান গুজরাট অধিনায়ক পান্ডিয়া। তিনি করেন ২৮ রান।

এরপর দলীয় ১৬১ রানে শিমরন হেটমায়ার বিদায় নেন। হেটমায়ারের বিদায়ের পর দলীয় ১৮৫ রানে ৫৬ বলে ১২ চার ও ২ ছয়ে ৮৯ রান করা বাটলার রান আউটে কাটা পড়েন। শেষ পর্যন্ত রাজস্থান ৬ উইকেট হারিয়ে স্কোরবোর্ডে ১৮৮ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়। এতে করে গুজরাটের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৮৯ রানের।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে স্কোরবোর্ডে রান তোলার আগে ট্রেন্ট বোল্টের প্রথম ওভারে গুজরাট ঋদ্ধিমান সাহাকে হারিয়ে বসে। শুরুর এই ধাক্কা দ্বিতীয় উইকেটে সামাল তেন শুভমান গিল ও ম্যাথিউ ওয়েড। দু’জনে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৪৪ বলে ৭২ রান তোলেন। এরপরই ২১ বলে ৩৫ রান করা গিল ফেরেন রান আউটে কাটা পড়ে। গিলের বিদায়ের ১৩ রান পর দলীয় ৮৫ রানে ৩০ বলে ৩৫ করা ম্যাথিউ ওয়েডকে বাটলারের ক্যাচ বানিয়ে ফেরত পাঠান ম্যাককয়। পরপর দুই ওভারে দুই ব্যাটারকে হারিয়ে কিছুটা বিপাকেই পড়ে গুজরাট।

কিন্তু চতুর্থ উইকেটে অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার ডেভিড মিলার পাহাড় হয়ে দাঁড়ান রাজস্থানের সামনে। শেষ পর্যন্ত তাদের অপরাজিত ১০৬ রানের জুটিতে দুর্দান্ত জয় পায় গুজরাট। ডেভিড মিলার ৩৮ বলে ৩ চার ও ৫ ছয়ে ৬৮ রান আর হার্দিক পান্ডিয়া ২৭ বলে ৫ চারের সাহায্যে ৪০ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার পান রাজস্থান বোলারদের ওপর তাণ্ডব চালানো ডেভিড মিলার।

(দ্য রিপোর্ট/আরজেড/ ২৫ মে, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

খেলা এর সর্বশেষ খবর

খেলা - এর সব খবর