thereport24.com
ঢাকা, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১,  ১৫ জিলহজ ১৪৪৫

ইসি আমন্ত্রন দিলে সংলাপে যাবো : রওশন এরশাদ

২০২৩ মার্চ ২৭ ২০:৫৬:০৬
ইসি আমন্ত্রন দিলে সংলাপে যাবো : রওশন এরশাদ

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক:নির্বাচন কমিশন সংলাপে আমন্ত্রণ জানালে জাতীয় পার্টি যাবে বলে জানিয়েছেন বিরোধীদলীয় নেতা ও দলটির প্রধান পৃষ্ঠপোষক বেগম রওশন এরশাদ। তিনি বলেন, সাংবিধানিক ধারা অনুযায়ী আগামী সংসদ নির্বাচন হবে এবং ওই নির্বাচনে জাতীয় পার্টি অংশ নেবে।

সোমবার রাজধানীর গুলশানে একটি কনভেনশন হলে জাতীয় পার্টি আয়োজিত ইফতার মাহফিলে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

এতে আরো বক্তব্য রাখেন বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা, সাবেক চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা জিয়াউল হক মৃধা, যুগ্ম মহাসচিব সাদ এরশাদ, রওশন এরশাদের মুখপাত্র কাজী মামুনূর রশীদ প্রমুখ।

লিখিত বক্তব্যে রওশন এরশাদ বলেন, অসহায় হতদ্ররিদ্র মানুষের মুখে হাসি ফোটাতেই রাজনীতি ও সরকার পরিচালনা করে গেছেন পল্লীবন্ধু। জাতীয় পার্টির শাসনামলে বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে এরশাদ ছিলেন কঠোর। আর রমজান মাসে নিত্যপণ্য সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখার জন্য প্রশাসনিক পদক্ষেপ নিতে তার ছিল কঠোর নজরদারি।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর চেষ্টায় উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় স্থান করে নিয়েছে বাংলাদেশ। কিন্তু একশ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ীরা পবিত্র রমজানের সিয়াম সাধনাকে তোয়াক্কা না করে সব নিত্য পণ্যের দাম বৃদ্ধি করে চলছে। দ্রব্যমূল্যের ভয়াবহ উর্ধ্বগতি নিন্ম আয়ের মানুষের জীবন জীবিকা দুর্বিষহ করে তুলছে। এসব অসাধু ব্যবসায়ীদের কারণে নিত্য পণ্যের এমন কোনো দ্রব্য নেই, যার দাম বৃদ্ধি পায়নি? এদের জন্য দেশের গণতন্ত্র, স্থিতিশীলতা আর উন্নয়নের উজ্জ্বলতা প্লান হয়ে পড়ছে। এতে করে স্বাধীনতা যুদ্ধে আত্মাহতি দানকারী শহীদদের আত্মা কষ্ট পাচ্ছে। সুবিধাবাদী দুর্নীতিবাজদের জন্য দেশপ্রেমিক জনতার এক সাগর রক্তের বিনিময়ে এ দেশ স্বাধীন হয়নি। সর্বগ্রাসী দুর্নীতি এখন ক্যান্সারের রূপ নিয়েছে। এদের কঠোর হাতে দমন করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই।

'এরশাদের রেখে যাওয়া নির্দেশনামতেই চলবে পার্টি। যারা তার নির্দেশনা মানবেন না, তারা পার্টি ও নিজের ক্ষতি ডেকে আনবেন। নতুন পুরাতন নবীন প্রবীণ সব ত্যাগী নেতাকর্মীদের একসঙ্গে নিয়েই দলের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করলে, পার্টি শক্তিশালী হবে।'

রওশন এরশাদ আরো বলেন, গণতন্ত্রের মূল শর্ত হচ্ছে নির্বাচন, যথা সময় জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সাংবিধানিক ধারা মেনেই হবে সেই নির্বাচন। জাতীয় পার্টি বরাবরই নির্বাচনমুখি দল। প্রতিষ্ঠার পর থেকে পার্টি সব নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে জাতীয় পার্টি। তাই ব্যাপক প্রস্তুতি নিতে হবে। দলকে তৃণমূল পর্যায়ে আরো সু সংগঠিত করতে হবে। তাই এখন থেকেই সম্ভাব্য প্রার্থীদের নিজ নিজ আসনে গণসংযোগ শুরু করতে হবে। এজন্য সর্তকতার সঙ্গে দলীয় কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে।

দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, জটিলতা সৃষ্টি হলে পার্টি সংস্কার করতে দ্রুত কাউন্সিল শেষ করতে হবে। সে জন্য জেলা পর্যায়ের নেতৃত্ব এখনই ঠিক করতে হবে। রমজানের পর জাতীয় পার্টি ব্যাপক সাংগঠনিক কর্মসূচি নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়বে। আমাদের দরজা সব দেশপ্রেমিক মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি ও ইসলামী মূল্যবোধে বিশ্বাসী দল-মত ও ব্যক্তির জন্য খোলা আছে।

পাঠকের মতামত:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

SMS Alert

রাজনীতি এর সর্বশেষ খবর

রাজনীতি - এর সব খবর