thereport24.com
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫,  ৯ মহররম ১৪৪০

ন্যায্য পারিশ্রমিক পায় না কক্সবাজারের শিশু শ্রমিকরা

২০১৪ মে ০১ ১২:৩১:৪৭
ন্যায্য পারিশ্রমিক পায় না কক্সবাজারের শিশু শ্রমিকরা

আবদুল্লাহ নয়ন, কক্সবাজার : কক্সবাজার জেলা শহরের হোটেল-মোটেল জোনের কলাতলীতে নির্মাণাধীন একটি ভবনে কারিগরের (মিস্ত্রি) সহকারী হিসেবে কাজ করে আবদুল গফফার (১২)। প্রতিদিন কত টাকা মজুরি পায় জিজ্ঞাসা করা হলে সে বলে, ‘দুপুরে বস (মিস্ত্রী) খাওয়ার জন্য ৩০ টাকা দেয়। ২০ টাকার ভাত খেয়ে ১০ টাকা রাখি। রাতে বস আরও ৭০ টাকা দেয়।’

তার অন্য সহকর্মীরাও একই পরিমাণ মজুরি পায় কিনা- জানতে চাইলে আবদুল গফফার বলে, ‘আমি যে কাজ করি রহিমও (একজন প্রাপ্ত বয়স্ক শ্রমিক) সেই একই কাজ করে। কিন্তু বস তাকে আড়াইশ’ টাকা দেয়। দুপুরে খেতে দেয় ৫০ টাকা।’

কেবল আবদুল গফফারই নয়; জেলার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তি পর্যায়ে দৈনিক চাহিদা মতো শ্রম দেওয়ার পরও ন্যায্য পারিশ্রমিক থেকে ঠকানো হচ্ছে শিশু শ্রমিকদের।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জেলায় ছয় থেকে ১২ বছরের অনেক শিশুই ঝুকিপূর্ণ পেশায় নিয়োজিত রয়েছে। তাদের অনেকে কলকারখানা, বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান, গণপরিবহনের হেলপার, সমুদ্রে চিংড়ি পোনা আহরণ, কাঠুরিয়ার কাজসহ নির্মাণ সামগ্রী বহন ও ইট ভাঙ্গার কাজ, হোটেল রেস্তোরাঁয় বয়’র কাজ, ওয়ার্কশপ ও সমুদ্রগামী মাছ ধরার ফিশিংয়ে শ্রমিক হিসেবে কাজ করছে। দৈনিক আট থেকে ১৫ ঘন্টা পর্যন্ত হাড়ভাঙ্গা শ্রম দিতে হয় এ সব শিশু শ্রমিকদের।

অভিযোগ রয়েছে, একজন প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যক্তির মতো সময় ও শ্রম দিলেও তাদের সে অনুযায়ী পারিশ্রমিক দেওয়া হয় না তাদের। দৈনিক একজন শ্রমিকের মজুরি যেখানে ৩শ’ থেকে ৫শ’ টাকা। সেখানে শিশু শ্রমিকদের দেওয়া হয় ৫০ থেকে দেড়শ’ টাকা।

বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন সংগঠন ও এনজিওগুলো মাঝে-মধ্যে কথা বললেও মালিক ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা তাদের মনোভাব পরিবর্তন না করায় বিষয়টির তেমন কোনা অগ্রগতি হচ্ছে না। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি বা সংশ্লিষ্ট সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোরও এদিকে কোনো ভ্রুক্ষেপ নেই।

ন্যায্য পারিশ্রমিকের ব্যাপারে শহরের পূর্ব লালদীঘির পাড়স্থ জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আতা উল্লাহ বলেন, ‘ন্যায্য পাওনা থেকে কাউকে বঞ্চিত করলে সেটি তার হক (অধিকার) হিসেবে থেকে যায়। যা ভুক্তভোগী লোকটি ক্ষমা না করলে স্বয়ং আল্লাহ তা’আলাও ক্ষমা করবেন না। সুতরাং সকলের উচিত ন্যায্য পারিশ্রমিক নিশ্চিত করা।’

(দ্য রিপোর্ট/এএন/এসকে/মে ০১, ২০১৪)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

জেলার খবর এর সর্বশেষ খবর

জেলার খবর - এর সব খবর



রে