thereport24.com
ঢাকা, রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫,  ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

মায়ের প্রতি অবহেলা

২০১৪ মে ১১ ১৬:৪১:২২
মায়ের প্রতি অবহেলা

লুৎফর রহমান সোহাগ, দ্য রিপোর্ট : এই প্রযুক্তিময় যুগে সবকিছুই যন্ত্রনির্ভর হয়ে পড়েছে। নিখাঁদ ভালোবাসার যোগাযোগ মাধ্যমও এর বাইরে নয়। মুঠোফোন অবশ্যই এর প্রধান বাহক। সন্তানের প্রতি মমত্ববোধ থেকেই মা সারাদিন মুঠোফোন নিয়ে অপেক্ষা করেন। ধৈর্য হারিয়ে ফোন করেন। কিন্তু ‘একটু পর, একটু পর’ শুনতে শুনতে ক্লান্ত হয়ে যান তিনি। রেগে গিয়ে আর ফোন করবেন না বলেই প্রতিজ্ঞা করে বসেন। কিন্তু তিনি মা বলেই এ প্রতিজ্ঞা নিমিষেই ভুলে যান।

বড় হওয়ার তাগিদে ছোটবেলা থেকেই বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন বাবা-মা। সেই সময় থেকেই দেখেছি বিচ্ছিন্নতায় মা কত অস্থির হয়ে ওঠেন! কিন্তু তখন উঠতি বয়স, অলিগলিতে বন্ধুর অভাব নেই। নরসিংদী সদর থেকে ঢাকা- অযথা যত ব্যস্ততা। এ দীর্ঘদিন মায়ের ভালোবাসা কেবল বিরক্তিকর মনে হয়েছে। মায়ের ভালোবাসা কেবল পাগলামি কিংবা ছেলেমানুষি মনে হয়েছে।

দিন দিন মনে হতে লাগল- বড্ড বড় হয়ে গেছি। তখন নিজের ছোট্ট ছোট্ট বিষয়ে মায়ের খোঁজখবর নেওয়া হাস্যকর মনে হওয়া শুরু করল। সবাইকে অজস্র সময় দিতে পারলেও মায়ের জন্য ফোনে ২ মিনিট সময় ব্যয় করা হয় না। কিন্তু তিনি মা বলেই এ সব এড়িয়ে চলাতেও কষ্ট পান না। একটু পরপরই ফোনে কথা বলতে চান, ছুটির দিনে সন্তানের বাড়ি ফেরার আশা করেন। উচ্চশিক্ষার প্রয়োজনে চার সন্তানের তিনজনই যখন ঘরের বাইরে, তখন মায়ের এ তাড়নাবোধ তীব্র থেকে তীব্রতর হয়। কিন্তু মায়ের মমতাকে কেবল উপেক্ষাই করছি প্রতিনিয়ত।

মা দিবসে মায়ের কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করা ছাড়া কিছুই নেই। তোমাকে সবচেয়ে বেশি ভালোবাসি বলেই তোমার প্রতি অনেক অধিকার। সেই অধিকার থেকেই ‘অবহেলা’ করা। তুমি কষ্ট পাবে বলেই অনেক সত্যকে অবলীলায় গোপন করি তোমার কাছে। সবচেয়ে আপনজন বলেই তোমার জন্য সময়জ্ঞান ভুলে যাই।

(দ্য রিপোর্ট/এলআরএস/এজেড/মে ১১, ২০১৪)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

মায়ের জন্য ভালবাসা এর সর্বশেষ খবর

মায়ের জন্য ভালবাসা - এর সব খবর