thereport24.com
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫,  ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪০
শফিক কলিম

অতিথি লেখক

গাজী ফাউন্ডেশনের মুজাফফর আলী স্পোর্টস একাডেমীর পথচলা

২০১৪ ডিসেম্বর ০২ ২০:২৪:১৮
গাজী ফাউন্ডেশনের মুজাফফর আলী স্পোর্টস একাডেমীর পথচলা

অক্টোবর ২০১৪ সালে যাত্রা শুরু করেছে মুজাফফর আলী স্পোর্টস একাডেমীর। কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার প্রথম ও একমাত্র স্পোর্টস একাডেমীতে পর্যায়ক্রমে ফুটবল, ক্রিকেট, ভলিবল, কাবাডি, হ্যান্ডবল, দাবা, টেবিল টেনিস, সাঁতার, অ্যাথলেটিক্স ও ব্যাডমিন্টনের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। প্রথম দফায় ফুটবল শাখার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রতিদিন বিকালে মুজাফফর আলী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ মাঠে প্রশিক্ষণ হয়। ডিসেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহ নাগাদ দাবা, হ্যান্ডবল ও ব্যাডমিন্টনের প্রশিক্ষণ শুরু হবে।

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) অনুমোদন প্রাপ্ত কুমিল্লার মুজাফফর আলী স্পোর্টস একাডেমীর ফুটবল শাখা মেঘনা ফুটবল একাডেমীর সম্প্রতি জার্সি উন্মোচন করেছেন সাবেক জাতীয় ফুটবলার অমিত খান শুভ্র। প্রশিক্ষণ কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনায় ফুটবল উপহার দিয়েছেন প্রিমিয়ার লিগের দল টিম বিজেএমসির এই অধিনায়ক। উপস্থিত ছিলেন বিজেএমসির নাইজেরিয়ান ফুটবলার ফেলিক্স, মুক্তিযোদ্ধা গাজী মো. সফর আলী, ৮নং হরিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুর রউফ, একাডেমীর প্রধান নির্বাহী শফিক কলিম, পরিচালক প্রকৌশলী গাজী মো. আজহারুল হক, এক্সিকিউটিভ সজিব মিয়া ও শাহিন রানাসহ অন্যান্য ফুটবলাররা।

যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়ের সহোদর অমিত খান শুভ্র জানান, ‘সুনাগরিক হতে খেলাধুলা চর্চা জরুরি। যারা খেলাধুলা করে, তারা কেউ বিপদগামী হতে পারে না। আমার প্রত্যাশা, একাডেমীর খুদে ফুটবলাররা একদিন জাতীয় দলে খেলবে। তবে মন দিয়ে খেলতে হবে। তাদের প্রতি আমার উপদেশ-নির্দেশ, খেলাধুলার আগে পড়াশোনা করতে হবে, পরিবারের সিদ্ধান্তকে প্রাধান্য দিতে হবে। বাকি সময় একাডেমীর জন্য বরাদ্দ রাখবে। পড়াশোনা-খেলাধুলার বাইরে সময় নষ্ট করার কোনো যৌক্তিকতা দেখি না।’ ৬ বছর ধরে ঢাকার মাঠে খেলা নাইজেরিয়ান ফুটবলার ফেলিক্স জানিয়েছেন, ‘ফুটবলকে পেশা হিসেবে নেওয়ার মতো সময় এসেছে। কিন্তু ভাল খেলতে হবে। প্রতি মাসে অন্তত ২ লাখ টাকা উপার্জন করা অসম্ভব না।’

২০১২-এ কাতার বিশ্বকাপকে লক্ষ্য ধরে ভিশন-২০২২ ঘোষণা করেছে বাফুফে। ভিশন-২০২২ বাস্তবায়নে ও ভাল ফুটবলারের সঙ্কট কাটাতে উপজেলায় বয়সভিত্তিক প্রশিক্ষণের জন্য মেঘনা ফুটবল একাডেমী কার্যক্রম শুরু হয়েছে। একাডেমীর ফুটবল শাখা মেঘনা ফুটবল একাডেমীর অনুমোদন দিয়েছে বাফুফে। তৃণমূল পর্যায়ে মান সম্পন্ন ফুটবলার তৈরি করতে বদ্ধপরিকর গাজী ফাউন্ডেশন। প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে অনূর্ধ্ব-১০, অনূর্ধ্ব-১২, অনূর্ধ্ব-১৪ ও অনূর্ধ্ব-১৬ বয়সভিত্তিক পর্যায়ে। তৃণমূলের প্রতিভাবান ফুটবলারদের উন্নত প্রশিক্ষণ দিয়ে মান বাড়ানো হবে। উপজেলার প্রথম ও একমাত্র একাডেমীর কার্যক্রম আপাতত অনাবাসিক হলেও অদূর ভবিষ্যতে আবাসিক করার পরিকল্পনা রয়েছে। প্রাথমিক পর্যায়ে চারটি বিভাগে ২০ জন করে ৮০ জন ফুটবলার নিয়ে একাডেমীর কার্যক্রম চলবে। অনূর্ধ্ব-১০ বয়সী ফুটবলারদের দুই বছর পর ফুটবল ফেডারেশনের বাফুফে একাডেমীতে ট্রায়ালে পাঠানো হবে। অনূর্ধ্ব-১০ ও অনূর্ধ্ব-১২ বয়সীদের বিকেএসপিতে ট্রায়ালে নেওয়া হবে। অনূর্ধ্ব-১৪ ও অনূর্ধ্ব-১৬ ফুটবলারদের ঢাকার বিভিন্ন ক্লাবে ট্রায়ালের জন্য দেওয়া হবে। অনূর্ধ্ব-১৪ দলকে ২ বছর প্রশিক্ষণের পর ঢাকা পাইওনিয়ার লিগে একাডেমী দলে খেলানো হবে।

(দ্য রিপোর্ট/সিজি/আরকে/ডিসেম্বর ০২, ২০১৪)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

খুঁজে ফেরা এর সর্বশেষ খবর

খুঁজে ফেরা - এর সব খবর