thereport24.com
ঢাকা, সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫,  ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

বাংলাদেশের লক্ষ্য এবার ফাইনাল

২০১৫ ফেব্রুয়ারি ০২ ২০:৫০:২৭
বাংলাদেশের লক্ষ্য এবার ফাইনাল

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : প্রাথমিক লক্ষ্য পূরণ হয়েছে। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবলের সেমিফাইনালের টিকিট পেয়ে গেছে বাংলাদেশ দল। সাফল্য যত হাতের মুঠোয় ধরা দেয় মানুষের প্রত্যাশার পারদটাও ততই উপরের দিকে ওঠতে থাকে; বাংলাদেশের জাতীয় ফুটবল দলের ক্ষেত্রেও এর অন্যাথা হচ্ছে না। সেমিফাইনালের স্বপ্ন পূরণ হওয়ার পর এখন ফাইনালে খেলার লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে বাংলাদেশ। সোমবার ম্যাচপরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে তেমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশের অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম। সেমিতে খেলার প্রাথমিক লক্ষ্য পূরণের পর এখন দলকে নিয়ে ফাইনালে যেতে চান তিনি। ৬ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৫টায় বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে সেমিফাইনালে ‘বি’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়নদের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ওই ম্যাচ জয়ের প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন মামুনুল।

আসর শুরুর আগে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) সভাপতির কাছে একটি অঙ্গীকার করেছিলেন বাংলাদেশের ফুটবলাররা (মামুনুল ও এমিলি)। তা হলো— বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে দলকে শেষ চারে নিয়ে যাবেন, নয়তো বা ফুটবলই ছেড়ে দেবেন তারা। মাঠে নিজেদের পারফরম্যান্স দিয়েই ওয়াদা রক্ষা করেছেন মামুনুলরা। তাই তো মামুনুলের কণ্ঠে ছিল সন্তুষ্টির সুর। বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেছেন, ‘জুনিয়রদের বলেছিলাম, তোমরা আমার জন্য ও এমিলির জন্য খেলবে, বাংলাদেশের জন্য খেলবে। তারা সেই অনুযায়ী খেলেছে। আমরাও নিজেদের অঙ্গীকার রক্ষা করতে পেরেছি।’

একটা লক্ষ্য অর্জিত হয়ে গেলেই যে থেমে যেতে হবে তা নয়; আয়োজক দেশ হিসেবে বাংলাদেশের জন্য ফাইনালে খেলাটাই হবে সবচেয়ে আনন্দের। সেই আনন্দ গোটা জাতিকে উপহার দিতে চান মামুনুল। চাপের মুখে থেকে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েছেন। এবার চাপমুক্ত থেকে ফাইনাল নিশ্চিত করতে চান বাংলাদেশের অধিনায়ক।

মামুনুল বলেছেন, ‘আমরা অঙ্গীকার করেছিলাম সেমিফাইনালে খেলব। সেই অঙ্গীকার পূর্ণ করতে পেরেছি। প্রাথমিক লক্ষ্য অর্জিত হয়েছে। এখন ফাইনাল খেলতে চাই। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে ফাইনাল খেলতে পারাটাই হবে এখন দেশের মানুষের জন্য সবচেয়ে বড় উপহার।’

মালয়েশিয়ার বিপক্ষে হারের পর অনেক সমালোচনা হয়েছে। মাঠে পারফরম্যান্স দিয়েই সেই সমালোচনার জবাব দিয়েছেন মামুনুলরা। বাংলাদেশ দলপতি বলেছেন, ‘আমি মনে করি, সমালোচকরা জবাবটা ইতোমধ্যে পেয়ে গেছেন। আমরা মাঠেই প্রমাণ করেছি যে কতটুকু সামর্থ্য আমাদের রয়েছে।’

বাংলাদেশের পক্ষে গোল করেছেন তরুণ হেমন্ত ভিনসেন্ট। ১৯ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডারের গোলেই সোমবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। ১০ নম্বর জার্সিটার মান রেখেছেন উল্লেখ করে হেমন্ত বলেছেন, ‘আমার গোলে বাংলাদেশ জিতেছে, এটি অত্যন্ত আনন্দের। আমি খুব খুশি। ১০ নম্বর জার্সিটা একটা বিশেষ প্রেরণা বহণ করে। আমি মনে করি, জার্সির মান রাখতে পেরেছি।’

কোচ লোডভিক ডি ক্রুইফ নিজ দেশ নেদারল্যান্ডসে ফিরে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের মাত্র কয়েক দিন আগে বাংলাদেশে এসেছেন। মালয়েশিয়ার কাছে হেরে শুরু হয়েছিল বাংলাদেশের বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ মিশন। এতে কিছুটা চাপ ছিল। এখন শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে কাঙ্ক্ষিত সেমিফাইনালে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের ডাচ কোচের কণ্ঠেও তাই স্বস্তির সুর।

ডি ক্রুইফ বলেছেন, ‘প্রথম ম্যাচের তুলনায় আজকে অনেক ভাল খেলেছি আমরা। অনেক সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারিনি। এরপরও জিতে সেমিফাইনালে যেতে পেরেছি বলে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। আমি মনে করি, এটি বাংলাদেশ ও দেশের মানুষের জন্য দারুণ আনন্দের।’

(দ্য রিপোর্ট/কেআই/জেডটি/শাহ/ফেব্রুয়ারি ০২, ২০১৫)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

ফুটবল এর সর্বশেষ খবর

ফুটবল - এর সব খবর