thereport24.com
ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫,  ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

বিশ্বকাপ : ক্রিকেটের নতুন দ্বারোন্মোচন

২০১৫ মার্চ ২৯ ১৯:৪৫:১৮
বিশ্বকাপ : ক্রিকেটের নতুন দ্বারোন্মোচন

রবিউল ইসলাম, দ্য রিপোর্ট : বিশ্বকাপের মাত্র একটি ওয়ানডে খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন নাটোরের ছেলে স্পিনার তাইজুল ইসলাম। ওই ম্যচে বল হাতে সুবিধা করতে পারেননি তাইজুল। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হ্যামিল্টনে ৫৮ রানে কোটা পূরণ করলেও উইকেট পাননি। বিশ্বকাপ শেষে ঢাকায় ফিরে অবরোধ থাকায় এ্যাম্বুলেন্সে করে নাটোরে মা-বাবার কাছে পৌঁছেছেন গত বুধবার। তার সফরসঙ্গী ছিলেন সাব্বির রহমান রুম্মন। নিজ বাড়ি থেকে মুঠোফোনে দ্য রিপোর্টেকে বিশ্বকাপ অভিজ্ঞতার কথা জানিয়েছেন জাতীয় দলের তরুণ এই বাঁহাতি স্পিনার। বিশ্বকাপ অভিজ্ঞতা বাংলাদেশকে অনেকদূর এগিয়ে নিয়ে যাবে বলেই তার বিশ্বাস। বিশ্বকাপ খুলে দিয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের নতুন দরজা।

প্রশ্ন : দেশে ফিরেছেন কেমন লাগছে?

তাইজুল : ভাল কাটছে সময়। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছি, বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছি। অনেকের সঙ্গে দেখা হচ্ছে; কথা হচ্ছে। এইতো কেটে যাচ্ছে আর কি।

প্রশ্ন : ক্যারিয়ারের প্রথম বিশ্বকাপ, কেমন কেটেছে?

তাইজুল : প্রত্যেকটা দলের জন্যই বিশ্বকাপ বড় একটা টু্র্নামেন্ট। আমাদের জন্য আরও বড় টুর্নামেন্ট। বিশ্বকাপ বাংলাদেশের খুব ভালই কেটেছে। আমরা যারা জুনিয়ার খেলোয়াড় তাদের এই অভিজ্ঞতা ভবিষ্যতে খুব কাজে দেবে।

প্রশ্ন : আপনার কোনো অতৃপ্তি আছে কি-না?

তাইজুল : অ্যাডিলেডের উইকেটে যথেষ্ট বাউন্স ছিল। বোলিং করতে বেশ সমস্যা হয়েছে স্পিনারদের। আমার মনে হয় সেদিন আমি ঠিক জায়গায় বল করতে পারি নি। কিছু কিছু বল ঠিক জায়গায় পড়েনি। জায়গা মতো বল করতে পারলে উইকেটও পেতাম। কিছু শট বল হয়েছিল যেগুলোতে আমি ৪ খেয়েছি।

প্রশ্ন : বিশ্বকাপে বিশেষ কোনো স্মৃতি আছে কি-না?

তাইজুল : অনেক স্মৃতি বিজড়িত বিশ্বকাপ এটি। এর মধ্যে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ জয়ের পর আমাদের আনন্দ উদযাপন ছিল ভিন্ন রকম। জয়ের পর মাঠে দৌড়ে মাশরাফি ভাইয়ের ওপর সবাই মিলে ঝাঁপিয়ে পড়লাম। এমন একটি মুহূর্ত কোনো দিনই ভোলার নয়।

প্রশ্ন : মাশরাফির কাছ থেকে কেমন সহায়তা পেয়েছেন?

তাইজুল : মাশরাফি ভাই একজন ভাল অধিনায়ক; একজন ভাল মানুষ। দলের তরুণদের অনেক উৎসাহ দিয়েছেন মাঠের মধ্যে। তার লিডিং পাওয়ার অনেক। সবাইকে এক করে রাখার ক্ষমতাটা তার অসাধারণ।

প্রশ্ন : প্রবাসীদের সমর্থন কেমন উপভোগ করেছেন?

তাইজুল : আমরা যখন ক্যানভ্যারায় খেলেছি আমাদের মনে হয়নি আমার অস্ট্রেলিয়াতে আছি। গ্যালারিতে লাল-সবুজের পতাকা উড়ছে। সবাই আমাদের সমর্থন জুগিয়েছেন, যা আমরা কোনো দিনই ভুলব না। তাদের অনুপ্রেরণায় আমরা ভাল খেলতে উৎসাহিত হয়েছি।

প্রশ্ন : সামনে পাকিস্তান সিরিজ; কি পরিকল্পনা করছেন?

তাইজুল : বিশ্বকাপ টুর্নামেন্ট আমাদের খুব ভাল হয়েছে। আমার মনে হয় এই অভিজ্ঞতা আমরা পাকিস্তান সিরিজে খুব ভালভাবেই কাজে লাগতে পারব। দলের সবার মধেই আত্মবিশ্বাস জন্মেছে, আমরা ভাল ক্রিকেট খেলতে পারি। আমাদের মধ্যে জেতার আকাঙ্ক্ষা জন্ম নিয়েছে। আমার বিশ্বাস খুব ভাল একটি সিরিজ হবে। পরিচিত কন্ডিশনে চেষ্টা থাকবে নিজের সেরাটা দেওয়ার। আমার বিশ্বাস এখানে স্পিনাররা একটু বাড়তি সহায়তা পাবে।

(দ্য রিপোর্ট/আরআই/এএস/আরকে/মার্চ ২৯, ২০১৫)

পাঠকের মতামত:

SMS Alert

ক্রিকেট এর সর্বশেষ খবর

ক্রিকেট - এর সব খবর