দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : গত এপ্রিলে পাকিস্তানের বিপক্ষে হোম সিরিজে ওয়ানডে ও টোয়েন্টি২০ স্কোয়াডে সুযোগ পেয়েছিলেন রনি তালুকদার। তবে পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের জার্সিতে মাঠে নামার সুযোগ হয়নি তার। পরবর্তীতে ভারতের বিপক্ষেও স্কোয়াডে ছিলেন। ধারণা করা হয়েছিল, ভারতের বিপক্ষে অন্তত একটি ম্যাচে হলেও মাঠে নামার সুযোগ পাবেন রনি। কিন্তু তা আর হয়নি। যে কারণে বাংলাদেশের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের অপেক্ষায় রয়েছেন এই তরুণ ক্রিকেটার। তিনি প্রস্তুত, শুধু অপেক্ষায় রয়েছেন সুযোগ পাওয়ার।

আগামী ৫ জুলাই মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের মাঠে গড়াচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টোয়েন্টি২০ ম্যাচ। এর আগে বুধবার ১৪ সদস্যের বাংলাদেশ দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এই স্কোয়াডেও রয়েছেন রনি তালুকদার। তবে এবারও এই কৃতী ব্যাটসম্যান মাঠে নামার সুযোগ পাবেন কিনা, তা নিয়ে সন্দেহ থাকছেই।

পরপর দুটি সিরিজে স্কোয়াডে সুযোগ পেলেও মাঠে নামতে পারেননি; কোনো কষ্ট কাজ করছে কিনা? এ প্রশ্নে দ্য রিপোর্টকে রনি তালুকদার বলেছেন, ‘এখানে কষ্টের কোনো বিষয় নেই; এখানে আনন্দের পরিমাণটাই বেশি। জয়ী একটি দলের সঙ্গে থাকতে পেরেছি, এজন্য নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছি। আমাদের দলটা এখন যেভাবে খেলছে, গত কয়েক বছর আগেও কিন্তু এভাবে খেলতে পারেনি। এই দলের সঙ্গে থাকতে পেরে খুব গর্ববোধ করছি।’

তিনি আরও যোগ করেছেন, ‘দলটা অনেক ভাল খেলছে। যে যার পজিশনে খুবই ভাল করছে। এজন্য দলে প্রতিযোগিতাও বেশি। এটা কিন্তু আমাদের দলের জন্যই ভাল। যার যার দায়িত্ব ঠিকঠাকভাবে পালন করছে সবাই। আমিও তৈরি আছি, যদি সুযোগ পাই তাহলে অবশ্যই জাতীয় দলে নিজের প্রয়োজনীয়তাটা প্রমাণ করার চেষ্টা করব।’

দলে আপনার অনেক প্রতিদ্বন্দ্বী রয়েছে। সৌম্য ওপেনিং করছে, লিটন আছে; তাদের সঙ্গে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বিতা কাজ করছে কিনা, কিংবা মানসিকভাবে কোনো চাপ অনুভব করছেন কিনা? এ প্রশ্নে তিনি বলেছেন, ‘এটা তো নেতিবাচক চিন্তা। আমি নেতিবাচক কোনো চিন্তা করতে চাই না। সব সময় ইতিবাচক চিন্তা করার চেষ্টা করি। আমার চিন্তাই থাকে, সুযোগ আসলেই সেই সুযোগের সদ্ব্যবহার করা; যাতে জাতীয় দলের জায়গাটা পাকাপোক্ত করতে পারি।’

রনি তালুকদার মূলত ঘরোয়া ক্রিকেটে ওপেনিং পজিশনে খেলে থাকেন। সীমিত ওভারের ম্যাচে দলে থাকা লিটনও ওপেনিংয়ের দায়িত্ব পালন করেন। এদিকে সৌম্য সরকারও কিছুদিন যাবত তামিমের সঙ্গী হিসেবে ওপেনিং করছেন। সেক্ষেত্রে ওপেনিংয়ে রনির সুযোগ পাওয়া একটু কঠিনও। তবে রনি পজিশন নিয়ে ভাবছেন না। দলের স্বার্থে যে কোনো পজিশনে খেলতে প্রস্তুত তিনি। এ বিষয়ে দ্য রিপোর্টকে তিনি বলেছেন, ‘এটা নিয়ে ভাবছি না। দলের প্রয়োজনে যে কোনো পজিশনেই খেলতে প্রস্তুত আমি। আমার চেষ্টা থাকবে দলের জন্য অবদান রাখার।’

একাদশে সুযোগ পেলে বিশেষ কোনো লক্ষ্য থাকবে কিনা? এ প্রশ্নে রনি বলেছেন, ‘আসলে লক্ষ্য তো একটাই, ভাল খেলার চেষ্টা করা। যাতে আমার ইনিংসের ওপর ভর করে দল জয় পায়। যদি ‍সুযোগ পাই, চেষ্টা করব দলের পরিস্থিতি অনুযায়ী ব্যাটিং করার।’

উল্লেখ্য, এবারের জাতীয় লিগে ৯ ইনিংসে ৭৪১ রান করে দ্বিতীয় অবস্থানে ছিলেন ঢাকা বিভাগের ওপেনার রনি তালুকদার। প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগেও ছিলেন এক নম্বরে। ওই লিগে ১৬ ম্যাচে ৭১৪ রান এসেছিল তার ব্যাট থেকে।

(দ্য রিপোর্ট/আরআই/জেডটি/শাহ/জুলাই ০১, ২০১৫)