দ্য রিপোর্ট ডেস্ক : হয়ত এক বছর আগেই এমনভাবে দেখা যেত তাকে, যদি লিওনেল মেসি আর তার সঙ্গীরা জিতে নিতে পারতেন বিশ্বকাপ ফুটবলের শিরোপাটা। মেসিরা তা পারেননি; দিয়াগো ম্যারাডোনর বিজয় নৃত্যও তাই দেখা যায়নি। তবে রবিবার উদ্দাম নাচই নেমেছেন আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার। গ্যালারি মাতিয়ে রেখেছেন ম্যাচ চলাকালে; ম্যাচশেষে মাতিয়েছেন আর্জেন্টিনার ড্রেসিংরুম। আর ম্যারাডোনা বলে কথা! তার সেই ‘বিজয় নৃত্য’ তাই জায়গা করে নিয়েছে বিশ্বমিডিয়ায়।

না, আর্জেন্টিনা কোনো ফুটবল ম্যাচ জেতায় এমন জয়োল্লাস করেননি ম্যারাডোনা। তিনি উল্লাস করেছেন রাগবি বিশ্বকাপে টঙ্গার বিপক্ষে আর্জেন্টিনার জয় দেখে। কেননা, এই ম্যাচ ছিল আসরের কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নেওয়ার ক্ষেত্রে আর্জেন্টিনার জন্য অতীব ‍গুরুত্বপূর্ণ।

ফুটবলে পাশাপাশি রাগবির প্রতি ম্যারাডোনার রয়েছে গভীর আকর্ষণ। আর বছরের পর বছর ধরে ফুটবল বিশ্বকাপের শিরোপা জিতে না পারা আর্জেন্টিনা অন্তত রাগবি বিশ্বকাপের শিরোপা জিতুক; মনে-প্রাণে তেমনটাই প্রার্থনা ম্যারাডোনার। তাই তো ১৯৮৬ সালের ফুটবল বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে চ্যাম্পিয়ন করা ম্যারাডোনা রাগবি ম্যাচটি দেখতে ছুটে গিয়েছিলেন কিং পাওয়ার স্টেডিয়ামে।

ম্যাচ চলাকালে পুরোটা সময় দলকে উজ্জীবিত করেছেন তিনি। আর ম্যাচশেষে ড্রেসিংরুমে গিয়ে আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়দের অভিনন্দনও জানিয়েছেন। তার মতো কিংবদন্তিকে কাছে পেয়ে আর্জেন্টিনা রাগবি দলের খেলোয়াড়রা যারপরনাই খুশি। তাদের আনন্দ আরেকটু বাড়িয়ে দিতে রাগবি বল দিয়ে ফুটবলের বেশ কিছু ক্রীড়াকৌশলও দেখিয়ে দিয়েছেন ম্যারাডোনা।

(দ্য রিপোর্ট/জেডটি/সা/অক্টোবর ০৫, ২০১৫)