রংপুর অফিস : দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত জাপানী নাগরিক হোসি কুনিও’র মরদেহ জাপানে নিয়ে যাওয়ার জন্য একটি প্রতিনিধি দল মঙ্গলবার রংপুরে আসছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তার মরদেহ আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

প্রসঙ্গত, ৩ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রংপুরের মাহিগঞ্জ আলুটারি গ্রামে জাপানী নাগরিক হোসি কুনিও উন্নত জাতের ঘাসের বীজ প্রকল্প এলাকায় রিকশায় করে যাবার সময় দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত হন।  

ওই ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির প্রধান পুলিশের রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি হুমায়ুন কবীর সোমবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। এ সময় ডিআইজি বলেন, ‘এটি অত্যন্ত স্পর্শকাতর ঘটনা। সে কারণে খুব গুরুত্বের সঙ্গে পুরো বিষয় তদন্ত করা হচ্ছে। পুলিশ, র‌্যাব, সিআইডি, পিবিআইসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা খুনিদের চিহ্নিত করে তাদের গ্রেফতার করার জন্য কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি চিহ্নিত করে তা উদ্ধার করার জোর চেষ্টা চলছে।’ তদন্তে উল্লেখযোগ্য উন্নতি হয়েছে বলেও দাবি করেন এ কর্মকর্তা।

জাপানী নাগরিকের ময়নাতদন্ত রবিবার সম্পন্ন হয়। পরে লাশ রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়। হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ডা. বিমল চন্দ্র বলেন, জাপানী নাগরিকের মরদেহ আপাতত হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়েছে। জাপানের একটি প্রতিনিধি দল তা নিতে রংপুরে মঙ্গলবার আসছে। তারা এলে জেলা প্রশাসনের সহায়তায় মরদেহ হস্তান্তর করা হবে।

(দ্য রিপোর্ট/এমএআর/সা/অক্টোবর ০৫, ২০১৫)